প্রেম হয় ৭ রকমের, আপনারটা ঠিক কী রকম ?

প্রেম এক অদ্ভুত অনুভূতি। প্রেমে পড়লে আকাশ-বাতাস সবই ভালো লাগে। অতি বড় শত্রুকেও আপন মনে হয়। জীবনের বিভিন্ন পর্যায়ে বিভিন্ন সময়ে নানা রুপে ধরা দেয় প্রেম। বদলে যায় তার সংজ্ঞা।
সাইকোলজিস্ট রবার্ট স্টেনবার্গ ভালবাসাকে তিনিটি উপাদানের মধ্যে ভাগ করেছেন। সেই উপাদানটিকে একটি ত্রিভুজের মাধ্যমে প্রতিস্থাপন করেছিলেন। তিনটি উপাদান হল- আবেগ (যৌন অথবা রোম্যান্টিক আকর্ষণ), অন্তরঙ্গতা (গভীর অনুভূতি) এবং সহানুভূতি (শুধুমাত্র সম্পর্ককে রক্ষা করাই নয়, তাকে সসম্মানে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া)। এই উপাদানগুলিকে একসঙ্গে ৭ ভাগে ভাগ করেছেন। যার ফলে আমরা ৭ রকমের ভালবাসার সংজ্ঞা পাই। তাহলে এক ঝলকে দেখে নিন আপনার ভালবাসার নাম কী…

১। ভালোলাগা

যার সঙ্গে সময় কাটাতে, গল্প করতে, সমস্ত কিছু শেয়ার করতে ভালো লাগে। বেশীরভাগ সময় এটাকেই ভালোবাসা বলে ভুল হয়। আসলে সে ভালো বন্ধু হতে পারে, কাছের মানুষ নয়।

২। মোহ

একটা মানুষকে প্রতিদিন দেখতে দেখতে ভালো লাগা তৈরি হয়। তার সঙ্গে সময় কাটাতে ইচ্ছে করে। এটাই মোহ। মোহ কেটে গেলেই ভালো লাগা দূরে চলে যাবে।

৩। প্রতিশ্রুতি

শুধুমাত্র কথা দেওয়া আছে বলে কারও প্রতি আটকে থাকা। হয়ত কোনও রকম আকর্ষণ অনুভব হচ্ছে না কিন্তু ছাড়তেও মন চাইছে না। অনেক সময় বহু বছর প্রেম করার পরে অনেকেই বিয়ে করেন কেবল একে ওপরের কাছে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ আছেন বলেই।

৪। রোমান্টিক প্রেম

কোনও প্রতিশ্রুতি নয় শুধু আবেগের সঙ্গে মিশে থাকে অন্তরঙ্গতা। তখন তাকে রোম্যান্টিক প্রেম বলা যায়। এই সম্পর্ক বেশিদিন না টিকলেও একটা মধুর অনুভূতি দিয়ে যায়।

৫। ঘনিষ্ঠ প্রেম

কোনও সম্পর্কে অন্তরঙ্গতার সঙ্গে প্রতিশ্রুতি মিশলে সেটা ঘনিষ্ঠ প্রেম। এমন প্রেম টেঁকে বেশিদিন।

৬। অর্থহীণ প্রেম

সময় বিশেষে কোনও মানুষের প্রতি আকৃষ্ট হই আমরা। একজনের ভালোলাগা বা পছন্দের জিনিস অন্যজনকে প্রভাবিত করে। অনেক সময় এমন সম্পর্ক বিয়ে পর্যন্ত গড়িয়ে যায়। তবে ভাললাগার অবসান ঘটলেই প্রেম কেটে যায়। দূর থেকে বা ওপর ওপর কোনও মানুষকে বিচার করায় তার ভালো-মন্দ গুণ আমাদের চোখে পড়ে না। দোষ-ত্রুটি নজরে আসতে আরম্ভ করলেই সম্পর্ক ভাঙে।

৭। অনবদ্য প্রেম

অন্তরঙ্গতা, আবেগ এবং প্রতিশ্রুতির মিশেল। এমন সম্পর্কে অজান্তেই হাত ধরাধরি করে একে অপরের প্রতি বিশ্বাস এবং ভরসা। এই প্রেমই সত্যিকারের প্রেম। বলা যায় কাঁঠালের আঠা, ‘লাগলে পরে ছাড়ে না…’