কারোর পা চেটে বলিউডে নয়, অভিনয়ে আসার আগে এই কাজ করতেন স্টার কিডরা

নেপোটিজম নয়, অভিনয়ে আসার আগে বলিউড স্টার কিডরা করতেন এই কাজ

বলিউডে (Bollywood) নেপোটিজম (Nepotism) কথাটা ভীষণই প্রাসঙ্গিক। শাহরুখ খান, সাইফ আলি খান, সুনীল শেট্টি, অনিল কাপুর, ঋষি কাপুর, ডেভিড ধাওয়ানের সন্তানরা আজ ইন্ডাস্ট্রির সদস্য হয়ে উঠেছেন। তবে তারা যে শুধুই বাবা-মায়ের পরিচয় খাটিয়ে সিনেমাতে সুযোগ পাচ্ছেন এমনটা কিন্তু নয়। এরা প্রত্যেকেই পাকাপাকিভাবে অভিনয় শুরু করার আগে সহকারী পরিচালক (Assistant Director) হিসেবে রীতিমতো ট্রেনিং নিয়েছেন। এই তালিকায় রয়েছেন কারা? দেখে নিন এক নজরে।

রণবীর কাপুর (Ranbir Kapoor) : রনবীর কাপুরও তার বাবা ঋষি কাপুরের ‘প্রেম গ্রন্থ’, ‘আ অব লউট চলে’, ‘ব্ল্যাক’ ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ শুরু করেছিলেন। এরপর তিনি সোনমের সঙ্গে সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘সাওরিয়া’ ছবির হাত ধরেই বলিউডে নায়ক হিসেবে পা রাখেন। সোনমের সঙ্গে তার আলাপ হয়েছিল ‘ব্ল্যাক’ ছবির সূত্রে। রণবীরের সঙ্গে তিনিও ছিলেন ছবির সহকারী পরিচালক।

সোনম কাপুর (Sonam Kapoor) : সোনমের বাবা অনিল কাপুরের নামডাক তো বলিউডে বিস্তর। অভিনয়ে আসার আগে সোনম ছিলেন একজন মডেল। তবে অভিনয় করার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে তিনি রীতিমত হোম ওয়ার্ক করেছেন। ইন্ডাস্ট্রিতে তিনি পা রেখেছিলেন ‘ব্ল্যাক’ ছবির সহকারী পরিচালক হিসেবে। তিনি একটি সাক্ষাৎকারেও বলেছিলেন তিনি যখন কাজ চাইতে গিয়েছিলেন তখন পরিচালক তার বাবার পরিচয় জানতেনই না। পরে সোনম বানসালির ‘সাওয়ারিয়া’ ছবির হাত ধরে বলিউডে ডেবিউ করেন।

বরুণ ধাওয়ান (Varun Dhawan) : বরুণ ধাওয়ানের বাবা হলেন বিখ্যাত পরিচালক ডেভিড ধাওয়ান। তার ছবিতে কাজ করে বহু অভিনেতা এবং অভিনেত্রী সুপারস্টার হয়েছেন। তবে ছেলে হয়ে বাবার ছবিতে কাজ করতে চাননি বরুণ। তাই তিনি করণ জোহরের ‘মাই নেম ইজ খান’ ছবির সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেন। পরে করণেরই ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’ ছবি দিয়ে শুরু হয়েছিল তার অভিনয় কেরিয়ার।

অর্জুন কাপুর (Arjun Kapoor) : অর্জুন কাপুরের বাবা বনি কাপুর বলিউডের বিখ্যাত প্রযোজক। চাইলেই তিনি বাবার প্রযোজনা সংস্থার ছবিতে কাজ করে অভিনয় কেরিয়ার শুরু করতে পারতেন। কিন্তু তার বদলে আদিত্য চোপড়ার সহকারী হিসেবে কাজ করতে তিনি পছন্দ করেছেন। ‘কাল হো না হো’, ‘সালামে ইশক’ ছবির সহকারী ছিলেন তিনি। এরপর ‘ইশকজাদে’র ছবি দিয়ে শুরু হয়েছিল তার কেরিয়ার।

ঈশান খট্টর (Ishaan Khattar) : শাহিদ কাপুরের ভাই ঈশন খট্টর জাহ্নবী কাপুরের সঙ্গে অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পেয়েছেন। তবে বলিউডে তার অভিষেক হয়েছিল অনেক আগেই। তিনি তার দাদা শাহিদ কাপুরের ছবি ‘উড়তা পাঞ্জাব’ এর সহকারী হিসেবে কাজ করেছেন। পরে বলিউডে তার এন্ট্রি হয়েছিল মজিদের চলচ্চিত্র ‘বিয়ন্ড দ্য ক্লাউডস’ ছবি দিয়ে।

সুরজ পাঞ্চোলি (Suraj Pancholi) : সুরজ পাঞ্চোলি হলেন জনপ্রিয় অভিনেতা আদিত্য পাঞ্চোলি এবং অভিনেত্রী জারিনা ওয়াবের সন্তান। বলিউডে তার কেরিয়ার শুরু হয়েছিল ছবির সহকারী হিসেবে কাজ করেন। হৃত্বিক রোশন এবং ঐশ্বর্য রাই বচ্চন অভিনীত ‘গুজারিশ’ ছবিতে তিনি সহকারী হিসেবে ছিলেন। নিখিল আডবাণীর ‘হিরো’ ছবির হাত ধরে তার ডেবিউ হয় নায়ক হিসেবে।

 

হর্ষবর্ধন কাপুর (Harshvardhan Kapoor) : ইনি হলেন অনিল কাপুরের ছেলে, সোনম কাপুরের ভাই। তিনি ‘বম্বে ভেলভেট’ ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করতে শুরু করেন। ‘মির্জিয়া’ ছবির হাত ধরে নায়ক হিসেবে তার ডেবিউ হয়।