ভারতের এই মন্দিরের ‘প্রসাদ’ মটন বিরিয়ানি!

তামিলনাড়ুর মাগুরাইয়ের এই মন্দিরে পূজিত হন মুনিয়ান্ডি, যাঁর অপর নাম হল মুনীশ্বর৷ শিবের অপর একটি রূপই এই মন্দিরে পূজিত হয়৷ আর সেই মন্দিরেই নাকি একটি উৎসবে মন্দিরে আগত দর্শনার্থীদের প্রসাদ হিসেবে দেওয়া হয় মটন বিরিয়ানি৷

মাদুরাইয়ের ছোট্ট গ্রাম থিরুমঙ্গলম তালুকের মুনিয়ানদি স্বামীর মন্দিরের প্রসাদে থাকে এমনই বিরল চমক। প্রতি বছর জানুয়ারির তৃতীয় সপ্তাহের শুক্রবার ও শনিবার মুনিয়ান্ডি স্বামী মন্দিরে একটি বিরাট উৎসব পালন করা হয়৷ আগত ভক্তদের দান করা প্রচুর পরিমাণে অর্থ প্রসাদ তৈরির কাজে ব্যবহার করা হয়৷

জানুয়ারির ২৪ -২৬ তারিখ পর্যন্ত চলে প্রসাদ বিতরণ। ৮৩ বছর ধরে চলে আসছে এই প্রথা। স্বামী মুনিয়ানদিকে তুষ্ট করতে এই বিশেষ দিনে তৈরি হয় এই মাটন বিরিয়ানি। যা খেতে ভিড় করেন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা ভক্ত ও পর্যটকরা। পথচলতি যে কোনও মানুষের অবাধ প্রবেশ এই মন্দিরে।

তিন দিনে প্রায় ২ হাজার কেজি বিরিয়ানি তৈরি হয়। প্রায় ৫০০ পাঁঠা বলি হয় এই তিন দিনে। ঐতিহ্য মেনে বলি হওয়া পাঁঠা দিয়েই তৈরি হয় বিরিয়ানি। যা মন্দিরের বাইরেও বিতরণ করা হয়। আগত ভক্তদের দান করা প্রচুর পরিমাণে অর্থ প্রসাদ তৈরির কাজে ব্যবহার করা হয়৷