প্রধানমন্ত্রীকে ৯ পয়সার চেক পাঠালেন এক ব্যক্তি

টানা ১৬ দিন ধরে উর্ধমুখী ছিল পেট্রলের দাম৷ তারপর কমেছিল মোটে এক পয়সা৷ সেই হার দেখে চোখ কপালে উঠেছিল অনেকেরই৷ অনেকে প্রশ্ন তুলেছিলেন এ কি রসিকতা নাকি! তারপর ৬, ৭ পয়সা হয়ে সর্বোচ্চ দাম কমেছে ৯ পয়সা৷ এবার সেই ৯ পয়সা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ফিরিয়ে দিয়ে কেন্দ্রকে বিঁধলেন তেলেঙ্গানার রাজন্য সিরসিলা জেলার বাসিন্দা চাঁদু গৌড়। চেকটি জেলা কালেক্টর কৃষ্ণ ভাস্করের হাতে তুলে দেন তিনি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই চেক পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে নিশ্চিন্ত করেছেন তিনি।

Source

পেট্রপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির ফলে ভুগছেন কৃষকেরা। নতুন শস্য উৎপাদন থেকে যন্ত্রপাতি কেনার ক্ষেত্রে ব্যাপক সমস্যায় পড়েছেন তাঁরা। সেখানে ৯ পয়সা দাম কমানোর বিষয়টি হাস্যকর বলেই অনেকে মনে করেন। এরই প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে ৯ পয়সার চেক দান করেছেন চাঁদু।

Photo : Twitter

নেটদুনিয়ায় এখন ঘুরছে সেই ছবি৷ গায়ত্রী ব্যাঙ্কের চেক। পেয়ির জায়গায় লেখা প্রাইম মিনিস্টার ন্যাশনাল রিলিফ ফান্ড৷ অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলের জন্যই চেকটি কাটা হয়েছে৷ কিন্তু অর্থের জায়গায় চোখ রেখেই সকলে তাজ্জব৷ লেখা ৯ পয়সা৷ ভাষায় এবং সংখ্যায় একই৷ কোথাও কোনও ফারাক নেই৷ ভুল যে ওই ব্যক্তি লেখেননি তা স্পষ্ট৷ তাহলে লিখলেন কেন? আসলে কেন্দ্রকে বিদ্রূপ করতেই কাঁটা হয়েছে এই চেক। অগ্নিমূল্য পেট্রলের জেরে প্রায় দিশেহারা দেশবাসী৷ কিন্তু এখনও কোনও সদর্থক পদক্ষেপ করেনি প্রশাসন৷ কখনও বলা হচ্ছে জিএসটি কাউন্সিলের অন্তর্ভুক্ত করা হবে পেট্রোপণ্যকে৷ কখনও আবার অন্য কিছু৷ কিন্তু কাজের কাজ হচ্ছে না কিছুই৷ ফলে দাম কমছে না পেট্রলের৷ অনেকের আবার ধারণা, দাম বাড়তে বাড়তে শ’য়ের কোটা ছুঁলে তবেই তা কমানোর দিকে ঝুঁকবে প্রশাসন৷ বিশেষ কিছু পদক্ষেপ নিলে এই মুহূর্তে দাম কমতেও পারে৷ যেভাবে দু’একটি রাজ্য ভর্তুকি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে৷ সেভাবে কেন্দ্রও কোনও পদক্ষেপ নিতে পারত৷ তবে ভোটের মুখে সে পদক্ষেপ নিয়ে তা নির্বাচনী প্রচারে কাজে লাগানো হবে বলেও কেউ কেউ মনে করছেন৷

জল্পনা যাই হোক না কেন পেট্রলের ছেঁকা লাগছে আম আদমির গায়ে৷ ষোলো দিনের মূল্যবৃদ্ধির পর যদি ৯ পয়সা সর্বোচ্চ দাম কমে তবে আর বলার কিছু থাকে না৷ কটাক্ষেই তাই কেন্দ্রকে জবাব দিয়েছেন তেলেঙ্গানার ওই ব্যক্তি৷ ৯ পয়সা দাম কমায় বেঁচেছে এটুকুই৷ সেটুকু তিনি তুলে দিতে চান প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে৷ রসিকতার ছলে তাঁর এই প্রতিবাদ ইতিমধ্যেই শোরগোল ফেলেছে নেটদুনিয়ায়৷