টিআরপি তুলতে নোংরামি, বিগ বসে কয়েকশো ক্যামেরা এড়িয়ে এইভাবে প্রেগন্যান্ট হন তেজস্বী

রিয়েলিটি শোয়ের নামে নোংরামি, টিআরপি তুলতে বিগ বসে প্রেগন্যান্ট হয়েছিলেন তেজস্বী

Tejasswi Prakash

বাংলা হোক কিংবা হিন্দি, টেলিভিশনের ক্ষেত্রে টিআরপিই হল শেষ কথা। টিআরপি টানার জন্য সিরিয়ালগুলোতে যেমন অতিনাটকীয়তা দেখানো হয়, তেমনই রিয়েলিটি শোগুলোতেও রিয়েলিটির নাম করে দর্শককে ঠকানোর বন্দোবস্ত করা হয়। ঠিক যেমনটা করা হয়েছিল বিগ বস সিজন ১৫ তে (Big Boss 15)। সালমান খানের এই রিয়েলিটি শোয়ের বিরুদ্ধে উঠল ভয়ংকর অভিযোগ।

আর মাত্র কিছুদিনের অপেক্ষা। তারপরেই টেলিভিশনের পর্দায় আসছে বিগ বস সিজন ১৬। তার জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি তুঙ্গে। এই মুহূর্তে বিগ বস সিজন ১৫ এর বিজেতা তেজস্বী প্রকাশকে (Tejasswi Prakash) নিয়ে সরগরম হল সোশ্যাল মিডিয়া। মিষ্টি এবং শিশুসুলভ ব্যবহারের মাধ্যমে সালমানের মন জয় করে নিয়েছিলেন তেজস্বী। সেই সঙ্গে দর্শকদেরও পছন্দের প্রতিযোগী ছিলেন তিনি।

রিয়েলিটি শোয়ের টিআরপি বাড়ানোর জন্য মিথ্যের আশ্রয় নেন তেজস্বী। বিগ বস হাউসে নাকি প্রেগন্যান্ট হয়ে পড়েছিলেন তেজস্বী প্রকাশ। তার প্রেগনেন্সির খবর জানতেন সালমান খান। হাউসের কয়েকশো ক্যামেরার ফাঁক গলেও সকলে অজান্তে চুপি চুপি এই কাজটিই করেছিলেন তেজস্বী। তার কান্ড জেনে হতবাক হয়েছেন ভক্তরা। এই নিয়ে ভক্তদের মনে উঠছে নানা প্রশ্ন। অবশেষে প্রকাশ্যে এলো আসল ঘটনা।

আদতে সত্যি সত্যি প্রেগনেন্ট হয়ে পড়েননি তেজস্বী। সালমান খান এবং গোবিন্দার কথা অনুযায়ী প্রাঙ্ক করেছিলেন অভিনেত্রী। আসলে শোয়ের অপর আরেক প্রতিযোগী উমর রিয়াজকে নিয়ে মজা করতে গিয়েছিলেন তেজস্বী। সালমান এবং গোবিন্দার কথা অনুসারে তেজস্বী উমরকে বলেন তার গ্যাস হয়েছে। যা শুনে ডাক্তার রিয়াজ হাসতে শুরু করেন।

Tejasswi Prakash

তখনই বোমা ফাটান তেজস্বী। তেজস্বী বলেন তিনি মা হতে চলেছেন। স্বভাবতই এতে হকচকিয়ে গিয়েছিলেন রিয়াজ। তখন তেজস্বী বলেন, “তোর কি মনে হয় গ্যাস থেকে কোনও মেয়ে গর্ভবতী হয়ে যেতে পারে?” অবশেষে আসল সত্যিটা জেনে সেখান থেকে বেরিয়ে যান রিয়াজ। তেজস্বী এইসব করেছিলেন সালমান এবং গোবিন্দার প্ল্যানমাফিক।