হাঁচি-কাশি নয়, কীভাবে ছড়ায় করোনা, গবেষণায় উঠে এলো নতুন তথ্য

এতদিন সবার ধারণা ছিল কাশি এবং হাসির মাধ্যমে করোনাভাইরাস (Corona Virus) সংক্রমণ বেশি পরিমাণে ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু সম্প্রতি কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় একটি গবেষণায় উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য।দাবি করা হচ্ছে কাশির থেকেও বেশি কথা বলার মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে করোনা ভাইরাস।

সম্প্রতি কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে ‘প্রসিডিংস অব দ্যা রয়্যাল সোসাইটি’-র জার্নালে। জানা যাচ্ছে কথা বলার মধ্যে দিয়েও ড্রপলেট এর মাধ্যমে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ে। এবং এই কারণেই বাইরে থেকে বন্ধ ঘরে সংক্রমণ বেশি ঘটে। কারণ রাস্তায় যে দূরত্ব  বজায় রাখা সম্ভব ঘরের ভেতর তা সম্ভব নয়।

How much time Coronavirus stay on Human Skin

গবেষণাপত্র থেকে জানা যায় কোন সংক্রামিত ব্যক্তি কারো সাথে ৩০ সেকেন্ড কথা বললে তার এক ঘন্টা পর সংক্রমিতের আশেপাশের বাতাসের থাকা দূষণের মধ্যে যে ভাইরাস জন্মায় তা কাশির থেকে ছড়ানো ভাইরাস এর থেকে অনেক গুন বেশী।

কথা বলার মধ্যে দিয়ে যে ড্রপলেট বাতাসে ছড়ায় তাকারে অনেক ছোট হয়।বড় ড্রপলেট ভারী হওয়ার ফলে বেশি দূরত্ব অতিক্রম করতে পারে না। কিন্তু ছোট ড্রপলেট হালকা হওয়ার বাতাসে ২ মিটারের বেশি দূরে যেতে পারে মাত্র ২ সেকেন্ডে। এর ফলে দূরে থাকা ব্যক্তিও সহজে সংক্রমিত হতে পারেন।

How corona tests are done

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্লুইড মেকানিক্সের অধ্যাপক, গবেষক পেড্রো মাগালহায়েস ডি অলিভিয়েরার মতে পরিস্থিতিকে জয় করতে সব সময় মাছ পড়ে থাকতে হবে।পাশাপাশি দূরত্ব বৃদ্ধি সবসময় মেনে চলতে হবে। ঘরের মধ্যে একটি ভেন্টিলেশনের ব্যবস্থা রাখলে সুবিধা হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।