স্কুলের বাংলা বইতে স্থান পেল সুশান্ত সিং, সীমাহীন উচ্ছ্বাস ভক্তদের মধ্যে

বলিউডের নবীন প্রতিভা সুশান্ত সিং রাজপুত আজও তার অনুরাগীদের মানসপটে বেঁচে রয়েছেন। প্রায় এক বছর হতে চললো, ইহলোক ত্যাগ করেছেন তিনি। তবে তার অস্বাভাবিক মৃত্যুটা যেন আজও তার অনুগামীরা ঠিক মেনে নিতে পারছেন না। এমন প্রতিভাশালী, প্রাণবন্ত মানুষটি কিভাবে নিজের জীবন শেষ করে দেওয়ার মত চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেন তা আজও তার অনুরাগীদের কাছে এক রহস্য।

সুশান্তের স্মৃতির উদ্দেশ্যে তার অনুরাগীরা ইতিপূর্বে অনেক কাজ করেছেন। সুশান্তের পরিবারবর্গ তার ব্যবহৃত বিভিন্ন সামগ্রী একত্রিত করে তা দিয়ে একটি মিউজিয়াম বা সুশান্তের স্মৃতির আগার গড়ে তুলেছেন। গত বছর দুর্গাপূজার সময় কলকাতায় এক মৃৎশিল্পী কার্তিক ঠাকুরের মুখের আদল গড়েছিলেন সুশান্তের মুখের আদলের অনুকরণে। সুশান্তের ম্যানিকুইন বানিয়েছিলেন তার আরেক অনুরাগী।

তবে এই সব কিছুকেই ছাপিয়ে গেল একটি বাংলা স্কুল। কারণ সেই বাংলা স্কুলের স্কুল পাঠ্য বইয়ে সুশান্তের ছবি ছাপানো হয়েছে! সুশান্তের অভিনীত টেলি ধারাবাহিক “পবিত্র রিস্তা” থেকে নেওয়া হয়েছে সেই ছবি। যা দিয়ে পরিবারে “বাবা”র চিত্র তুলে ধরা হয়েছে শিশুদের সামনে।

 

শিশুদের পারিবারিক মূল্যবোধ শেখাতেই নাকি এমন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। সুশান্তের বন্ধু স্মিতা পরীখ সম্প্রতি নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে এই ছবিটি তুলে ধরেন। স্কুল কর্তৃপক্ষের এমন উদ্যোগ দেখে আপ্লুত স্মিতা। পোস্টের ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, “পরিবার ও বাবার চিত্র বোঝাতে একটি প্রাথমিক বাংলা বই আমাদের প্রিয় সুশান্তের একটি ছবি প্রকাশ করেছে। আমি গর্বিত এই দেখে যে আমাদের শিক্ষা বোর্ডও তাকে সেরা বিবেচনা করে।”

স্কুল কর্তৃপক্ষের এমন উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়েছেন নেটাগরিকরা। বিশেষত সুশান্ত সিং রাজপুতের অনুরাগীরা এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানাচ্ছেন। সুশান্ত আর আমাদের মধ্যে না থাকলেও তার অভিনীত ধারাবাহিক, সিনেমা এবং এবার থেকে এই স্কুল পাঠ্য বইয়ের পাতায় আজীবন আমাদের আশেপাশেই রয়ে যাবেন।

আবার তৃতীয় শ্রেণীর বিজ্ঞান বইতেও জায়গা করে নিয়েছে সুশান্ত। এখানে মানুষ ও পশুর মধ্যে পার্থক্য বোঝাতে ব্যবহার করা হয়েছে অভিনেতার ছবি। টুইটারে সুশান্তের আরেক অনুগামী স্যান্ডি এই ছবি শেয়ার করেছেন।

আরও পড়ুন : একেই বলে কর্মফল, কাজের খোঁজে দরজায় দরজায় ঘুরছেন অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী

তিনি লিখেছেন, ‘এটি তাঁর ছোট বোনের স্কুলের বিজ্ঞান বই এটা। ও তৃতীয় শ্রেণীতে পড়ে। এই অধ্যায়ে মানুষ কোনটা, পশু কোনটা শেখানো হয়েছে। আর সুশান্তের ছবি ব্যবহৃত হয়েছে মানুষের উদাহরণ হিসেবে।’ সুশান্ত অনুগামী স্যান্ডির মতো আরো সব অনুগামী এই খবর জানতে পেরে খুশিতে আত্মহারা। নিমেষে ভাইরাল হয় এই ট্যুইট।

আরও পড়ুন : দরজায় দরজায় ঘুরেও মিলছে না কাজ, বলিউড ছেড়ে সাউথে পালালেন রিয়া চক্রবর্তী

প্রসঙ্গত, বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতকে গতবছর মুম্বাইয়ের বান্দ্রায় তার নিজস্ব ফ্ল্যাট থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। তার আচমকা মৃত্যু নিয়ে সোশ্যাল সাইটে শোরগোল পড়ে যায়। প্রিয় অভিনেতার এহেন করুণ পরিণতি মেনে নিতে পারেননি কেউ। তার মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনে আত্মহত্যার তত্ত্বই উঠে এসেছে। ঘটনার তদন্ত চালিয়েছে সিবিআই। আজও সুশান্তের মৃত্যু রহস্য মামলা চলছে আদালতে।