ভাল না লাগলেও করতে হবে প্রশংসা, ইন্ডিয়ান আইডলের বিচারকের আসন ছাড়লেন সুনিধি

টেলি পর্দার রিয়েলিটি শো গুলির মধ্যে বলতে গেলে এক নম্বর স্থানে রয়েছে গানের রিয়েলিটি শো “ইন্ডিয়ান আইডল সিজন ১২”। “ইন্ডিয়ান আইডল” ইতিপূর্বে বলিউডকে বহু প্রতিভাবান শিল্পী উপহার দিয়েছে। দেশের প্রায় প্রতিটি প্রান্ত থেকে সর্বস্তরের মানুষ এই প্ল্যাটফর্মে এসে নিজেদের প্রতিভাকে সকলের সামনে মেলে ধরতে পারেন! রিয়েলিটি শোয়ের এই উদ্যোগের কারণেই শিল্পীদের প্রতিভার বিকাশ ঘটে থাকে। তবে সেই উদ্যোগের সত্যতা কতখানি? রিয়েলিটি শো নিয়ে এই প্রশ্ন উঠেছে বারংবার।

এতদিন বিভিন্ন রিয়েলিটি শো নিয়ে দর্শকদের একাংশের অভিযোগ ছিল যে, রিয়েলিটি শো শুধু নামেই রিয়েল, আদতে এই শো হয় স্ক্রিপ্ট নির্ভর! বিচারকদের বিরুদ্ধে প্রতিযোগীদের প্রতি একচোখামি, পক্ষপাতমূলক আচরণ এমনকি স্বজনপোষণেরও অভিযোগ তুলেছেন দর্শকেরা। তবে এতদিন এই অভিযোগ শুধু একতরফাই থেকে গিয়েছে। বর্তমানে রিয়েলিটি শো নিয়ে বিতর্ক উঠছে উভয় তরফ থেকেই!

বিশেষত গানের রিয়েলিটি শো “ইন্ডিয়ান আইডল”কে কেন্দ্র করে বিতর্ক তুঙ্গে। ইতিপূর্বে অমিত কুমার, অভিজিৎ সাওয়ান্ত, সোনু নিগমের মত বিচারকেরা এই প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কিত বিস্ফোরক সত্য সকলের সামনে উত্থাপন করেছিলেন। অমিত কুমার তো বলেই দিয়েছিলেন যে টাকার জন্য শো কর্তৃপক্ষ তাকে যা বলতে বলেছে, তিনি তাই বলেছেন! প্রতিযোগীদের মিথ্যে প্রশংসা করতেও পিছপা হননি।

এবার এই রিয়েলিটি শো সম্পর্কে একই অভিযোগ তুলে বিচারকের আসন ছাড়লেন বলিউডের বিখ্যাত সঙ্গীত শিল্পী সুনিধি চৌহান। সুনিধির অভিযোগ, শো কর্তৃপক্ষ বরাবর প্রতিযোগীদের যোগ্যতার নিরিখে বিচার করার তুলনায় তাদের প্রশংসা করার উপর জোর দিয়ে গিয়েছে। এমনটা করা তার পক্ষে সম্ভব নয়। তিনি একজন বিচারক হিসেবে প্রতিযোগীদের যোগ্যতার মানদণ্ডের উপর বিচার করতে চেয়েছেন। তবে শো কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে তেমনটা সম্ভব হচ্ছে না।

প্রসঙ্গত সুনিধি চৌহান “ইন্ডিয়ান আইডল”এর পঞ্চম এবং ষষ্ঠ সিজনের বিচারক ছিলেন। শো কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে তার। তার অভিযোগ, শুধুমাত্র দর্শকের মনোযোগ আকর্ষণ করতেই অনুষ্ঠানটিকে অহেতুক লম্বা করে চলেছে শো কর্তৃপক্ষ। সুনিধি আরও বলেন, যা কিছু হচ্ছে তাতে কিন্তু প্রতিযোগীদের কোনও দোষ নেই। আসলে রিয়েলিটি শো যেভাবে এগোচ্ছে তাতে প্রতিযোগিরা কার্যত নিজেদের প্রশংসা শুনতে অভ্যস্ত হয়ে পড়ছেন। এতে আসল প্রতিভা বঞ্চিত হচ্ছে।

Sunidhi Chauhan Indian Idol

সুনিধি মনে করেন, রিয়েলিটি শো গানের জগতে প্রতিযোগীদের রাতারাতি বিখ্যাত করে দিচ্ছে। তবে এই পন্থা কার্যত শিল্পীর জন্য ক্ষতিকারক। নিজেদের জীবনের সংগ্রাম পর্দায় তুলে ধরে রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যাওয়ার এইযে প্রবণতা, তা কার্যত শিল্পীর শৈল্পিক সত্তার বিকাশের ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। খুব তাড়াতাড়ি অনেক কিছু পাওয়ার প্রলোভন দেখাচ্ছে রিয়েলিটি শো। টিআরপির লোভেই কার্যত এমনটা করা হচ্ছে বলে মনে করেন সুনিধি।

এ সম্পর্কে বলতে গিয়ে সুনিধি আরও বলেছেন, কিছু মানুষ পরিশ্রম করছেন ঠিকই, তবে রাতারাতি বিখ্যাত হয়ে যাওয়ার মানসিকতা তাদের মাথায় চড়ে বসছে! প্রতিযোগীদের পারফরম্যান্স টেলিকাস্ট হওয়ার আগেই সবকিছু ঠিক করে দিচ্ছে শো কর্তৃপক্ষ। রিয়েলিটি শো হলেও কখনো কখনো রেকর্ডেড গানও চালিয়ে দেওয়া হয়! এমনই বিস্ফোরক সত্য সকলের সামনে তুলে ধরলেন সুনিধি চৌহান।