‘বুড়ো সুদীপে’র এত সুন্দর বউ! নেটিজেনদের কটাক্ষের পাল্টা উত্তর দিলেন স্ত্রী পৃথা

‘বুড়ো সুদীপ’কে টাকার জন্য বিয়ে করেছে পৃথা! কটাক্ষ করে পাল্টা তোপের মুখে ট্রোলাররা

Sudip Mukherjee and Preetha Chakraborty answered Trollers Questions on Ismart Jodi

সুদীপ মুখার্জি (Sudip Mukherjee), বাংলা টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রির নামি তারকা। বহুদিন যাবৎ তিনি ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত। তবে ‘শ্রীময়ী’ ধারাবাহিকে অভিনয় করার পর থেকে তার জনপ্রিয়তা আরও বেড়েছে। সাধারণত নেগেটিভ শেডসের চরিত্রেই তাকে বেশি মানায়। স্টার জলসার (Star Jalsha) ‘ইস্মার্ট জোড়ি’র (Ismart Jodi) মঞ্চে সস্ত্রীক সুদীপ মুখার্জিকে উঠতে হল কাঠগড়ায়! ব্যাপারটা কী?

সুপারস্টার জিৎ সঞ্চালিত এই রিয়েলিটি শো আদতে বাংলা টেলিভিশন এবং বলিউডের তারকাদের জুটিদের এক মঞ্চে এনে ফেলেছে। এখানে তারকা জুটিদের জীবনের নানা ঘটনা, প্রেম এবং দাম্পত্য জীবনের গল্প শোনা হয় এবং সঙ্গে তারকা জুটিদের নিয়ে নানা মজার খেলার আয়োজন করা হয়। একটি বিশেষ পর্বে সুদীপ মুখার্জি এবং তার স্ত্রী পৃথা চক্রবর্তীও উপস্থিত ছিলেন। তারা তাদের প্রেম এবং বিয়ে নিয়ে অকপট হয়েছিলেন।

Sudip-Preetha

সুদীপ জানান বাস্তবে ‘শ্রীময়ী’ ধারাবাহিকের মতই তার দুটো বিয়ে। প্রথম স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়ে নিজের হাঁটুর বয়সী পৃথাকে বিয়ে করেন তিনি। তাদের বয়সের পার্থক্যটা চোখে পড়ার মত। সোশ্যাল মিডিয়াতে এই অসমবয়সী জুটির ছবির নিচে বিরূপ মন্তব্যের বন্যা বইছে। পৃথকে কটাক্ষ করে কেউ লিখেছেন, “পৃথা কি সুদীপকে টাকার জন্য বিয়ে করেছে, নাকি কোনও ভালো অল্প বয়সী ছেলে ছিল না?”

কেউ আবার সরাসরিই সুদীপ-পৃথার সম্পর্ক প্রসঙ্গে ‘শ্রীময়ী’ ধারাবাহিকের প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন। ‘ইস্মার্ট জোড়ি’র মঞ্চে এই সব মন্তব্য তারকা জুটিদের সামনে তুলে ধরা হয়। দুটি প্রশ্নের জবাব দেন সুদীপ এবং পৃথা। সুদীপ বলেছেন, প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হলেও এখনও তার সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ক রয়েছে। প্রথম দিয়ে থেকে তাদের যে সন্তান রয়েছে, সুদীপ এবং তার প্রথম স্ত্রী দুজনে মিলেই তার দেখভাল করেন।

পৃথাও বলেছেন সুদীপের প্রথম স্ত্রীর সঙ্গে বন্ধুর মত সম্পর্ক রয়েছে তার। দ্বিতীয় প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে পৃথা বলেন, মনের মানুষকে সত্যিই কোনও অল্পবয়সী পুরুষের মধ্যে তিনি খুঁজে পাননি। টাকার প্রসঙ্গে মজা করে সুদীপ বলেন, “কিন্তু আমার তো টাকা নেই। সাইকেল নিয়ে যাতায়াত করি। পিৎজা খেতে পারি না, মুড়ি খাই।” পৃথা স্পষ্ট জবাব দেন, “সুদীপের টাকা থাকলেও আমি টাকার জন্য বিয়ে করিনি।”