সিদ্ধার্থের অতৃপ্ত আত্মা কাছে চাইছে প্রিয়জনকে, মৃত্যুর পরও ছাড়তে পারেননি ইহলোকের মায়া

সিদ্ধার্থের অতৃপ্ত আত্মা কাছে চাইছে প্রিয়জনকে, প্রকাশ্যে এলো প্যারানর্মাল এক্সপার্টের কথোপকথন

Steve Huff claimed that He has spoke with actor Sidharth Shukla after his Death

প্রায় এক সপ্তাহেরও বেশি সময় কেটে গেল। সিদ্ধার্থ শুক্লাকে (Sidharth Shukla) হারিয়েছে টলিউড (Tollywood)। তবে তার পার্থিব শরীর এই পৃথিবীতে না থাকলেও সিদ্ধার্থের অশরীরী আত্মার সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করা গেল। এমন অসম্ভবকে সম্ভব করে দেখিয়েছেন ইউটিউবার (YouTuber) স্টিভ হাফ (Steve Huff) । অশরীরীদের নিয়েই তার কারবার। তার দাবি অশরীরীদের সঙ্গে তিনি সংযোগ স্থাপন করতে পারেন। তাদের সঙ্গে কথা বলতে পারেন। সম্প্রতি সিদ্ধার্থের সঙ্গেও কথা বললেন স্টিভ।

ওই ইউটিউবার সম্প্রতি তার ইউটিউব চ্যানেল ‘হাফ প্যারানর্মাল’ এ একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। স্টিভের দাবি, তিনি সিদ্ধার্থের সঙ্গে যে কথোপকথন করেছেন, তা ভিডিও মারফত ক্যামেরাবন্দি করে ইউটিউবে শেয়ার করেছেন। সেখানে স্টিভ সিদ্ধার্থকে বেশ কিছু প্রশ্ন করেছেন। সিদ্ধার্থ তার জবাব দিয়েছেন। সিদ্ধার্থ অনুরাগীদের দাবি, এই গলা সিদ্ধার্থেরই। কোনও কারচুপি নেই।

ঠিক কী দেখা যাচ্ছে এই ভিডিওতে? ভিডিও শুরুতেই স্টিভ হাফ নিজেকে একজন অলৌকিক শক্তি বিশেষজ্ঞ বলে দাবি করেন। তিনি জানিয়েছেন তার কাছে এমন একটি যন্ত্র আছে যার মাধ্যমে কোন ব্যক্তির মৃত্যুর পরেও তার আত্মার সঙ্গে কথা বলা যায়। সিদ্ধার্থের ক্ষেত্রেও তিনি তেমনটাই করেছিলেন। সিদ্ধার্থকে স্টিভ প্রশ্ন করেন, “আপনি এখন কোথায় আছেন?”

এরপরেই ওই যন্ত্র থেকে অস্পষ্ট কন্ঠে উত্তর মেলে, “আমি হাফের কাছে আছি। আমার কুকুরকে আনা দরকার।” স্টিভ এরপর সিদ্ধার্থকে তার অনুরাগীদের উদ্দেশ্যে কিছু বার্তা দিতে বলেন। সেই অস্পষ্ট কন্ঠ বলে ওঠে, “আমি শুনতে পাচ্ছি”। সিদ্ধার্থ আরও জানিয়েছেন, “আমি এখন ঈশ্বরের সঙ্গে আছি”। এরপরেও ওই ইউটিউবার সিদ্ধার্থের সঙ্গে বেশ কিছুক্ষণ কথোপকথন চালান।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই প্রথম নয়। এর আগেও স্টিভ হাফ নামের ওই একই ব্যক্তি বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রয়াণের পরেও তার আত্মার সঙ্গে কথা বলেছেন বলে দাবি করেন। সেই ভিডিও তিনি তার ইউটিউব চ্যানেলে শেয়ারও করেছিলেন। সুশান্ত অনুরাগীদের মধ্যে সেই সময় হৈ চৈ পড়ে গিয়েছিল। এবারেও সিদ্ধার্থ অনুরাগীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভিডিও। যদিও অনেকেই অবশ্য এমন ভিডিওকে ফেক বলেই দাবি করেন।