অভিনয় ছেড়ে স্কুল টিচার, দেশের সেরা ইংরেজি মিডিয়াম স্কুলের চাকরি নিলেন তিয়াসা

অভিনয় ছেড়ে দেশের সেরা এই সংস্থায় চাকরি নিলেন কৃষ্ণকলির শ্যামা তিয়াসা

Krishnakali Actress Tiyasha Roy Opens Her Own YouTube Channel

খবরটা বেশ কিছুদিন আগে থেকেই স্টুডিওপাড়ায় ভাইরাল হয়েছিল। অবশেষে এসে গেল সেই শুভক্ষণ। দর্শকদের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে আবার দূরদর্শনের পর্দায় ফিরে এল কৃষ্ণকলির (Krishnokoli) নিখিল-শ্যামার জুটি। সম্পূর্ণ নতুন এক ধারাবাহিকে নতুন অবতারে ফিরছেন নীল ভট্টাচার্য (Neel Bhattacharya) এবং তিয়াসা লেপচা (Tiyasha Lepcha)। খবর ছিল, স্টার জলসাতে (Star Jalsha) নাকি নতুন সিরিয়ালে জুটি বাঁধবেন দুজনে! সেই খবরই সত্যি হল অবশেষে।

প্রায় এক বছর আগে শেষ হয়েছে জি বাংলার (Zee Bangla) কৃষ্ণকলি (Krishnokoli) ধারাবাহিকটি। এর মাঝে তিয়াসাকে নতুন কোনও সিরিয়ালে দেখা না গেলেও নীল অভিনয় করেছিলেন জি বাংলার ‘উমা’ সিরিয়ালে। সেই সিরিয়াল শেষ হতে না হতেই নতুন খবর এসে গেল। স্টার জলসার তরফ থেকে শেয়ার করা হয়েছে নীল এবং তিয়াসার নতুন সিরিয়াল বাংলা মিডিয়ামের প্রোমো।

প্রথমে অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়াতে খবর রটেছিল আসন্ন এই সিরিয়ালের নাম হতে চলেছে ‘সহজপাঠ’। তবে প্রোমো শেয়ার করে স্টার জলসা জানিয়ে দিল সিরিয়ালের আসল নাম। এই সিরিয়ালে তিয়াসাকে একজন শিক্ষিকার ভূমিকায় দেখা যাচ্ছে। তিয়াসা এখানে গ্রামের মেয়ের ভূমিকাতে অভিনয় করছেন যে গ্রামের ছোট ছোট বাচ্চাদের পড়ায়।

আসন্ন এই ধারাবাহিকে বাংলা মিডিয়াম এবং ইংরেজি মিডিয়াম স্কুলের চিরকালীন দন্দ্ব তুলে ধরা হয়েছে। ধারাবাহিকের নায়িকা এখানে গ্রামের মেয়ে, সে পড়াশোনা করেছে বাংলা মিডিয়ামে। ঠিক এই কারণেই নাকি বিয়ের দিন শহুরে বর তাকে বিয়ে করতে আসেনি। তবে বিয়ে ভেঙে যাওয়ার দুঃখ মন থেকে সরিয়ে নায়িকা চাকরি খোঁজার দিকে মন দিয়েছে।

ধারাবাহিকের প্রোমোতে দেখানো হয়েছে একসঙ্গে দু-দুটো জায়গা থেকে চাকরির সুযোগ এসেছে নায়িকার হাতে। এর মধ্যে একটি আবার ইংরেজি মিডিয়াম স্কুলের প্রস্তাব। এই স্কুলটা আবার ধারাবাহিকের নায়ক ওরফে নীল ভট্টাচার্য ও তার দিদি চালায়। শুধু শহরের নয় দেশের টপ মোস্ট ইংরেজি মিডিয়াম স্কুল এটি। তাই গর্বে মাটিতে পা পড়ে না নায়কের দিদির।

এবার এই স্কুলেই নাকি বিজ্ঞান পড়াতে আসবেন তিয়াসা। সাধারণত ইংরেজি মিডিয়াম স্কুলগুলোতে ইংরেজি জানা শুধু নয়, ইংরেজি মিডিয়াম স্কুলে পড়াশোনা করা শিক্ষক-শিক্ষিকাদের অগ্রধিকার দেওয়া হয়। সেখানে বাংলা মিডিয়ামের গ্রাম্য নায়িকা কি পারবে ইংরেজি মিডিয়ামে বিজ্ঞান পড়াতে? উত্তর ক্রমশ প্রকাশ্য।