টিআরপি কম, বন্ধ হয়ে যাচ্ছে ‘ওগো নিরুপমা’, আসছে নতুন ধারাবাহিক

Ogo Nitupama Serial

শীঘ্রই একগুচ্ছ নতুন ধারাবাহিক দর্শকদের উপহার দিতে চলেছে স্টার জলসা (Star Jalsha)। আর মাত্র ২ দিন পরই ম্যাজিক মোমেন্টসের বহু প্রতীক্ষিত ধারাবাহিক ‘ধূলোকণা’ (Dhulokona) সম্প্রচারিত হতে চলেছে। নতুনের আগমনে স্বভাবতই দর্শকমহলে খুশির আবহাওয়া সৃষ্টি হয়েছে। নতুনকে আগমন জানাতে গেলে পুরোনোকে যে বিদায় নিতেই হয়! ‘ধূলোকণা’ আসছে ঠিকই, তবে পর্দা থেকে চিরতরে হারিয়ে যাচ্ছে ‘ওগো নিরুপমা’ (Ogo Nirupoma)। এই মাসেই বন্ধ হয়ে যাচ্ছে ধারাবাহিকের শুটিং।

সমাজের কাছে সৌন্দর্যের নতুন ব্যাখ্যা উপস্থাপন করতে এসেছিল ‘নিরুপমা’। দীর্ঘ প্রায় ৯ মাস যাবত সমাজের প্রতি সেই দায়বদ্ধতা পালন করেছে ধারাবাহিকটি। তবে কুৎসিত এবং সুন্দরের প্রকৃত ব্যাখ্যা উপস্থাপন করতে গিয়ে মাঝপথেই খেই হারিয়ে ফেলে ধারাবাহিকের গল্প। যার ফলে শেষের দিকে দর্শকের মনে সেভাবে আর দাগ কাটতে পারেনি ধারাবাহিকটি। প্রথমদিকে অবশ্য বিকেল ৫.৩০টার স্লটে ৫.২ রেটিং দিয়েছে ‘ওগো নিরুপমা’।

টিআরপির রেটের নিরিখে এই রেটিং কিন্তু খুব একটা ফেলে দেওয়ার মতো নয়। আসলে বিকেল ৫.৩০-৬টার এই স্লটকে প্রাইম টাইমের আওতায় ধরা হয় না। সেই হিসেবে বিচার করলে টিআরপি খুব একটা কম ছিলনা ওগো নিরুপমার। তবে আগামী ১৯শে জুলাই থেকে প্রতিদিন রাত ৮টার স্লটে সম্প্রচারিত হবে লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের নতুন ধারাবাহিক ‘ধূলোকণা’। যে কারণে ওই সময় সম্প্রচারিত ‘বরণ’কে সরাতেই হচ্ছে। ‘বরণ’ও নতুন ধারাবাহিক। অতএব এখনই বন্ধ হয়ে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। তাই সরে যেতে হচ্ছে ‘ওগো নিরুপমা’কে।

সম্প্রতি চ্যানেলের তরফ থেকে ধারাবাহিকের সম্প্রচারের সময় সংক্রান্ত অদল-বদলের বিষয়ে জানানো হয়েছে। সেখানে জানানো হয়েছে যে বিকেল ৫.৩০টার স্লটে আসছে ‘বরণ’। অতএব ‘ওগো নিরুপমা’ ধারাবাহিক বন্ধ হয়ে যাওয়ার খবরের উপরেই সীলমোহর পড়লো। আগামী ২৪ শে জুলাই অবধি ‘ওগো নিরুপমা’-র শুটিং হবে বলে জানা যাচ্ছে। সেই হিসেবে আগামী পয়লা আগস্ট পর্যন্ত দেখা যাবে ওগো নিরুপমা ধারাবাহিকটিকে। চ্যানেল এবং প্রযোজনা সংস্থার এই সিদ্ধান্তে বিষাদের ছায়া নেমে এসেছে শুটিং সেটে।

মন খারাপ ‘নিরুপমা’ চরিত্রের অভিনেত্রী অর্কজা আচার্যেরও। এই ধারাবাহিকটি তার কেরিয়ারে প্রথম টেলিভিশনের পর্দার কাজ ছিল। ‘ওগো নিরুপমা’ই অর্কজাকে থিয়েটার মঞ্চ থেকে তুলে টেলিভিশনের পর্দায় নিয়ে এসেছে। ‘নিরুপমা’ চরিত্রটির সঙ্গেও তিনি নিজের সংযোগ স্থাপন করতে পারতেন। নিরুপমা চরিত্রটি নিয়ে অর্কজার বক্তব্য, ‘‘নিরুপমা আর সংযুক্তার সহাবস্থানে যেন আমি তৈরি। তাই অভিনয়ের সময় কখনও মনে হয়নি, অভিনয় করছি!’’

তবে তিনি খুশি এই ভেবে যে প্রথম ধারাবাহিকের দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করতে পেরেছেন তিনি। তাছাড়া ধারাবাহিকের টিআরপি রেটিং কম থাকলেও তার অভিনয় নিয়ে কখনও দর্শকের বিরূপ মন্তব্য শুনতে হয়নি তাকে। সিরিয়াল শুরুর সেই প্রথম দিন থেকে আজ পর্যন্ত প্রতিটি দিনের অভিজ্ঞতা তার কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। টিআরপি রেটিং কম থাকা ছাড়াও ওগো নিরুপমা ধারাবাহিকের চিত্রনাট্য নিয়েও সমালোচনা শুরু হয়েছিল। ‘নিরুপমা’র মেকআপ নিয়েও প্রশ্ন তুলেছিলেন অনেকে।

‘নিরুপমা’ এবং ‘সংযুক্তা’, কুৎসিত এবং সুন্দরের রুপরেখা অঙ্কন করতে গিয়ে মেকআপের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ধারাবাহিকের নির্মাতারা। তবে সেই মেকআপে বিস্তর গলদ ছিল বলে দাবি দর্শকের। ‘নিরুপমা’র চেহারায় খুব সামান্য কিছু পরিবর্তন এনেই তাকে ‘সংযুক্তা’ হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছিল। এতে সংযুক্তার রূপধারী ‘নিরুপমা’কে সহজেই চিনে নিতে পারছিলেন দর্শক। দুর্বল চিত্রনাট্য, দুর্বল মেকআপ এবং ততোধিক দুর্বল টিআরপি রেটিংই ধারাবাহিক বন্ধ হয়ে যাওয়ার পেছনে দায়ী।