১০ বার বিয়ে ছাড়া বাংলা সিরিয়ালে আর গল্প নেই, লীনা গাঙ্গুলীকে ধুয়ে দিল দর্শকরা

টিআরপি বাড়াতে শুধু ১০ বার বিয়েই ভরসা, চরম সমালোচিত হচ্ছেন লীনা গাঙ্গুলী

লালন-ফুলঝুরির জীবনে আর শান্তি নেই। একটার পর একটা নতুন বিপদ তাদের জীবনে লেগেই আছে। একসময় তাদের প্রেমের পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল ফুলঝুরির বুড়ো প্রেমিক মানিক, লালনের নাছোড় প্রেমিকা চড়ুই। এখন আবার ডাক্তারের মেয়ে তিতিরও নেমে পড়েছে এই লড়াইতে। স্টার জলসার (Star Jalsha) ‘ধুলোকণা’ (Dhulokona) ধারাবাহিকে আবার আসছে নতুন বিয়ের ট্র্যাক।

বেশ কিছুদিন ধরেই ধারাবাহিকে চলছে বিরহ পর্ব। বিয়ের পর সপরিবারে হানিমুনে গিয়ে বড় বিপদের মুখে পড়ে লালন-ফুলঝুরি। চান্দ্রেয়ীর ষড়যন্ত্রে সমুদ্রের মধ্যে তলিয়ে যায় লালন। যদিও লালন অবশ্য মরেনি। ধারাবাহিকের নিয়ম মেনেই অন্যান্য নায়কদের মত এত বড় দুর্ঘটনা থেকেও বেঁচে ফিরেছে লালন। তবে সে হারিয়ে ফেলেছে তার স্মৃতিশক্তি।

এদিকে লালনকে হারিয়ে ফুলঝুরির সিঁথির সিঁদুর মুছে যায়। বিধবার সাদা শাড়ি ওঠে তার পরনে। তবে লালন অবশ্য বহাল তবিয়তে ডাক্তারের বাড়িতে ডাক্তারের ছেলের মত আদর-যত্ন পাচ্ছে। রীতিমত জামাই-আদরে রাখা হয়েছে তাকে। কারণ ডাক্তারের মেয়ে তিতির যে আবার লালনের প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছে! এরই মধ্যে লালনকে নিয়ে বিয়ের স্বপ্ন দেখে ফেলেছে সে।

তাই এবার ধারাবাহিকে আবারও শুরু হল ত্রিকোণ প্রেমের গল্প। লালন-ফুলঝুরির মাঝে চড়ুই হটে গিয়ে এখন এসে গিয়েছে তিতির। তিতিরের সঙ্গেই নাকি লালনের আবার বিয়ে হবে। আপাতত ধারাবাহিকে সেই প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। এদিকে ফুলঝুরি আবার সবকিছু জেনেশুনেও প্রথমে চোখ বন্ধ করে মেনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। পরে কমলিনী তাকে বোঝানোতে লালনকে আবার নতুন করে ফিরে পাওয়ার আশায় ফুলঝুরি সপরিবারে লালনের সঙ্গে দেখা করতে আসে।

 এমনই টানাপোড়নের মধ্যে এসে গেল ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো। সেখানে আবার দেখা যাচ্ছে নতুন এক টুইস্ট। তিতির তার বাবাকে বলছেন সে নিজেই লালন-ফুলঝুরির মধ্যে মিল করাবে। আর তার জন্যই নাকি সে বিয়ের নাটক করতে চলেছে। তিতির বাবাকে বলে, “আমি তোমার সম্মান নষ্ট হতে দেব না বাপি, লালনের স্মৃতি ফেরাতে আমি কনের সেজে স্যাক্রিফাইস করব”!

অর্থাৎ ধারাবাহিকে খুব শীঘ্রই আবার বিয়ের পর্ব আসতে চলেছে। একবার নয় দুবার নয়, এই নিয়ে তিনবার বিয়ের পিঁড়িতে বসবে লালন। যদিও প্রত্যেকবারের শেষে অবশ্য লালন এবং ফুলঝুরিরই বিয়ে হয়। এবারেও নিশ্চয়ই তেমনই কিছু ঘটতে চলেছে। দর্শকদের দাবি ধারাবাহিকে বিয়ে দেখালেই কেবল টিআরপি ওঠে। তাই লেখিকা লীনা গাঙ্গুলীও নায়ক-নায়িকার বারবার বিয়ে দেওয়ার সুযোগ ছাড়তে চান না।