গাঁজাখুরি গল্পে লিপস্টিক দিয়ে সিঁদুরদান, অদ্ভুত যুক্তি দেখিয়ে নিন্দুকদের জবাব দিল ‘ধূলোকণা’র ফুলঝুরি

লিপস্টিক দিয়ে বিয়ে দেখানোয় খিল্লি, সমালোচকদের জবাব দিলেন মানালি

বাংলা সিরিয়াল (Bengali Mega Serial) মানেই গল্পের গরু গাছে ওঠে। অবশ্য বাংলা হোক বা হিন্দী সব সিরিয়ালের গল্পই হয় লার্জার দ্যান লাইফ। তাই তো সেখানে বারবার মরে গিয়েও বেঁচে ওঠে নায়ক-নায়িকা! বাস্তবে হোক বা না হোক, ধারাবাহিকে অন্ততপক্ষে ৩-৪ বার বিয়ে হয় তাও আবার একই ব্যক্তির সঙ্গে! কোনও কোনও ক্ষেত্রে তো আবার সংখ্যাটা ৮-৯ বারেও পৌঁছে যায়।

তবে ইদানিং বাংলা সিরিয়ালের বিয়ে নিয়ে অনেক বেশি ট্রোলিং হচ্ছে। গল্পের নাটকীয় মোড় আনতে অদ্ভুতভাবে নায়ক-নায়িকার বিয়ের গল্প লিখছেন চিত্রনাট্যকাররা। উড়ন্ত সিঁদুর, উড়ন্ত মালা, উড়ন্ত গায়ে হলুদ, বিয়ের অনুষ্ঠানগুলোর পেছনে যুক্তি খুঁজে পান না দর্শকরা। তবে বাংলা সিরিয়ালের বিয়ের ইতিহাসে নতুন ট্রেন্ড গড়েছে স্টার জলসার (Star Jalsha) ‘ধূলোকণা’ (Dhulokona)। সেই নিয়ে এখন কিছু বেশিই চর্চা হচ্ছে।

ধুলোকণা ধারাবাহিকে সম্প্রতি লিপস্টিক দিয়ে বিয়ে দেখানো হয়েছে। লালন এবং তিতিরের বিয়ের অনুষ্ঠানে সিঁদুরের বদলে লালন লিপস্টিক দিয়ে তিতিরের সিঁথি রাঙিয়ে দেয়। এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে চরম খিল্লি হয়। ধারাবাহিকটিকে নিয়ে নিন্দা হতে থাকে। একই সঙ্গে হিন্দু ধর্মীয় বিয়ের অনুষ্ঠানের রীতি নিয়ে ছেলেখেলা করার অভিযোগ ওঠে ধারাবাহিকের বিরুদ্ধে।

তবে এবার এই ট্রোলিং নিয়ে মুখ খুললেন ধূলোকণা ধারাবাহিকের নায়িকা ফুলঝুরি ওরফে মানালি দে। সোশ্যাল মিডিয়াতে যেভাবে ধারাবাহিকটিকে নিয়ে খিল্লি করা হচ্ছে তার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন তিনি। নিন্দুকদের একহাত নিয়ে নিউজ এইট্টিন বাংলার কাছে তার দাবি, “যাঁরা বিষয়টি নিয়ে মজা করছেন, তাঁরা গল্পটি ভালো ভাবে বোঝেননি। তিতির আর লালনের বিয়েটা আসল ছিল না। লালনকে সুস্থ করে তোলার জন্য শুধুই বিয়ের নাটক করা হচ্ছিল। নকল বিয়ে বলেই সেখানে সিঁদুরের পরিবর্তে লিপস্টিক ব্যবহার করা হয়েছিল।”

উল্লেখ্য এরকম লিপস্টিক দিয়ে বিয়ের ট্র্যাক দেখিয়েও কিন্তু এই সপ্তাহে সেরা হয়েছে ধুলোকণা। এই সাফল্যে দারুণ খুশি হয়েছেন অভিনেত্রী। এক্ষেত্রে সমস্ত কৃতিত্ব তিনি লেখিকা লীনা গাঙ্গুলীকেই দিয়েছেন। সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বলেছেন, “পুরো কৃতিত্বটাই লীনাদির। উনি জানেন, কী ভাবে এই গল্পের মোড় ঘুরিয়ে দিতে হয়। তাই ওঁকেই আরও একবার ধন্যবাদ জানাতে চাই।”

সেই সঙ্গে লিপস্টিক দিয়ে বিয়ে দেখানোর স্বপক্ষে তার যুক্তি, “আমরা তো অনেক সময় পর্দায় রক্ত দিয়ে সিঁদুর দানও দেখেছি। কিন্তু সেটা নিয়ে তো এত চর্চা হয়নি। তা হলে শুধু মাত্র গল্পের প্রয়োজনে সিঁদুরের জায়াগায় লিপস্টিক ব্যবহৃত হলে সমস্যা কোথায়!” উল্লেখ্য, তুমুল হারে ট্রোল হওয়ার পর এই একই যুক্তি শোনা গিয়েছিল তিতির ওরফে সম্পূর্ণা মন্ডলের মুখেও। এবার সেই সুর শোনা গেল ধারাবাহিকের নায়িকার মুখেও।