উন্মুক্ত ব্লাউজে শ্রীলেখাকে নিয়ে সমালোচনা, পাল্টা জবাব দিলেন অভিনেত্রী

উন্মুক্ত ব্লাউজে ‘অভদ্র’ শ্রীলেখাকে নিয়ে সমালোচনা, চটে লাল অভিনেত্রী

ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে অংশগ্রহণ করার জন্য টলিউড (Tollywood) অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র (Sreelekha Mitra) এই মুহূর্তে বিদেশ সফর করছেন। আর বিদেশে যে রীতিমতো ফেস্টিভ মুহূর্ত কাটাচ্ছেন শ্রীলেখা, সেটা তার সোশ্যাল মিডিয়া পেজে চোখ রাখলেই বেশ স্পষ্ট ধরা পড়ে। সম্প্রতি বিদেশের জায়েন্ট স্ক্রিনে সম্প্রচারিত হলো তার অভিনীত ছবি। ছবির স্ক্রিনিংয়ের দিনে শাড়ি পড়ে একেবারে বঙ্গললনার সাজে রেড কার্পেট মাতিয়েছেন শ্রীলেখা।

সবুজ রঙের শাড়ি, খোলা চুল, হালকা গয়না, ছোট্ট টিপ, লিপস্টিকে মোহময়ী অবতারে ক্যামেরার পর্দার সামনে দাঁড়িয়ে পোজ দিয়েছেন অভিনেত্রী। তবে নেটিজেনদের চোখ আটকিয়েছে তার ডিপকাট স্লিভলেস ব্লাউজে! সেই নিয়ে শুরু হলো সমালোচনা। এমনকি নেটমাধ্যমে সর্বসমক্ষে শ্রীলেখাকে ‘অভদ্র’ বলেও দেগে দেন জনৈক নেটিজেন। এতে বেশ বিরক্ত হয়েছেন শ্রীলেখা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাই তিনি তার সমালোচককে দিলেন পাল্টা জবাব।

৭ই সেপ্টেম্বর ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে অংশগ্রহণ করেছিলেন শ্রীলেখা। সেই চলচ্চিত্র উৎসবের একাধিক মুহূর্তের ছবি তিনি নিজের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে তুলে ধরেছিলেন। সেখানে বেশ কিছু বিদেশীর সঙ্গে একত্রে একটি ছবি তুলতে দেখা গিয়েছে তাকে। আর সেই ছবি ঘিরেই সমালোচনার শুরু। শ্রীলেখার পোশাকের মধ্যে অভদ্রতামি খুঁজে পেলেন জনৈক মহিলা। উল্লেখ্য, এই নেটিজেন আবার একজন বাম সমর্থকও বটে।

কস্তুরী রাকা মৈত্র নামের সেই মহিলা শ্রীলেখার ছবি পোস্ট করে তাকে কটাক্ষ করে লিখেছেন, “এই ছবিটি ভেনিস ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের । আমাদের বাংলার ছায়াছবি সেখানে সুযোগ পেয়েছে তার জন্য আমি অবশ্যই গর্বিত। তবে এই ছবিতে সকলকে একটা বিষয় লক্ষ্য করতে বলবো। একজন ছাড়া, অন্যরা বেশিরভাগ বিদেশী হলেও শরীরের অধিকাংশ ঢাকা ভদ্র পোশাক পরেছে। আর একজন শাড়ি পরলেও ব্লাউজের বেশীরভাগই উন্মুক্ত।”

তিনি আরও লেখেন, “শাড়ি পরলেই যে ভদ্র পোশাক পরা হয় তা কখনোই নয়। বরঞ্চ এই ছবিতে যা দেখা যাচ্ছে বিদেশীরা অনেক ভদ্র পোশাক পরেছে। শেষে বলব এই ছবিটি আমার প্রোফাইলে পোস্ট করার জন্য দুঃখিত ও লজ্জিত। এই মহিলার আরও অনেক ছবি ফেসবুকে দেখা যায়, সেই ছবি তো পোস্ট করতেই পারব না।”

এই পোস্ট শ্রীলেখার নজরেও পড়েছে। একজন বাম সমর্থকের এমন মনোভাবে শ্রীলেখা বেশ আঘাত পেয়েছেন। তিনি সেই পোস্ট নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় তুলে ধরে লিখেছেন, “মুগ্ধতা বাড়ছে আমার দলের প্রতি। এরা নাকি লিবারাল! মানুষের কাজের থেকে এবার তার পোশাক নিয়ে….’তথাকথিত শিক্ষিত মহিলার থেকে’!!! কেয়া বাত।’ অভিনেত্রী আরও লেখেন, ‘‘আমি একসময় বলতাম, ‘লেফট ইজ অলওয়েজ রাইট।’ আমার বিশ্বাসের মৃত্যুতে আমি শোকাহত”।