মিঠি-মিঠাই এবার মুখোমুখি! কবে ফিরছে মিঠাই? দারুণ সুখবর দিলেন সৌমিতৃষা

কবে ফিরছে মিঠাই? অবশেষে ভক্তদের দারুণ সুখবর শোনালেন সৌমিতৃষা কুন্ডু

Soumitrisha Kundu opens up about Mithai's come back and she alive or not

মিঠি কি আসলেই মিঠাই (Mithai)? নাকি অন্য কেউ? মিঠির সঙ্গে মিঠাইয়ের কি রক্তের সম্পর্ক রয়েছে আদেও? নাকি তারা দুজনে একই ব্যক্তি? আপাতত এই প্রশ্নগুলো ভাবাচ্ছে মিঠাই ভক্তদের। তাই টানটান উত্তেজনা হয় মিঠাইয়ের প্রতিটি পর্ব থেকে চোখ সরাতে পারছেন না তারা। আর এই ইউএসপির উপর ভর করেই দ্রুত টিআরপি বাড়ানোর কৌশল নিয়েছেন নির্মাতারা।

দর্শকদের মধ্যে এখন মিঠি আর মিঠাইকে নিয়ে চলছে তুমুল চর্চা। কে এই মিঠি? হঠাৎ মনোহরাতেই বা তার আগমন কেন হল? সে কি সত্যিই না জেনেবুঝে স্রেফ পরিস্থিতির চাপে পড়ে মোদক বাড়িতে এসে উঠেছে নাকি এর পেছনে রয়েছে তার অন্য কোনও উদ্দেশ্য? উত্তর ক্রমশ প্রকাশ্য। এই রহস্যভেদ হতে এখন আর কিছুদিন মাত্র বাকি। কারণ খুব শীঘ্রই ধারাবাহিকে ফিরছে মিঠাই।

এবার এই বিষয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী সৌমিতৃষা কুন্ডু। সম্প্রতি একটি সংবাদ মাধ্যমের কাছে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে তিনি মিঠি এবং মিঠাইকে নিয়ে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ কথাটাই বললেন। আপাতত মিঠাই ভক্তরা এটা জানতে চান মিঠাই বেঁচে আছে তো? মিঠাই আবার ফিরবে তো? তাদের আশ্বস্ত করলেন সৌমিতৃষা। জানালেন, দর্শকদের ভেঙে পড়ার কোনও কারণ নেই। কারণ মিঠাই বহাল তবিয়তেই রয়েছে।

মোদকবাড়ির সকলে ধরেই নিয়েছেন আগুনে পুড়ে মিঠাইয়ের মৃত্যু হয়েছে। তারপর কেটে গিয়েছে বেশ কয়েকটা বছর। মিঠাই-সিদ্ধার্থের ছেলে শাক্য এখন একটু বড়। তার হোমটিউটর হয়ে ধারাবাহিকে পা রেখেছে মিঠি। মায়ের মত দেখতে বলে নয়, মিঠির জোকস শুনে, তার প্রানোচ্ছল স্বভাব দেখে শাক্য মিঠিকে তার বন্ধু ভাবতে শুরু করেছে। এখন তারা ক্রাইম পার্টনার! ‌

শাক্যের সঙ্গে মিঠির রসায়ন যত জমে উঠছে দর্শকদের মনে ততই আশঙ্কা দানা বাঁধছে মিঠাইকে নিয়ে। সত্যি কি তাহলে আর ফিরবে না মিঠাই? এই বিষয়ে সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে সৌমিতৃষা জানালেন মিঠাই বেঁচে আছে। ধারাবাহিকের নাম যেহেতু মিঠাই তাই নায়িকা কখনও মরতে পারে না। সৌমিতৃষার মুখ থেকে এই কথা শুনে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেললেন ভক্তরা।

সৌমিতৃষা জানিয়েছেন মিঠাই বেঁচে আছে। একদিন সে আবার ফিরে আসবে গল্পে। তবে সে মিঠাই রূপেই ফিরবে নাকি অন্য কোনও রূপে ফিরবে সেটা এখনই বলা যাচ্ছে না। ভক্তদের ভরসা যুগিয়ে তিনি বলেছেন, “আমরা তো আপনাদের কখনও আশাহত করিনি। এটাও মানতে হবে গল্পে একটা ক্রাইসিস রাখতে হবে। নইলে দর্শকরা আগ্রহ হারিয়ে ফেলবেন।”