জনসমক্ষে সন্তানকে স্তন্যপান করিয়ে কটাক্ষের শিকার মহাভারত খ্যাত অভিনেত্রী, রইলো ছবি

সম্প্রতি মা হয়েছেন বলিউড (Bollywood) অভিনেত্রী শিখা সিং (Shikha Singh)। গত বছরে শিখার কোল জুড়ে এসেছে তার কন্যা সন্তান। মেয়ের নাম তিনি রেখেছেন আলায়না (Alayna)। আপাতত আলায়নাকে নিয়েই কাটছে তার দিন। মেয়ের সঙ্গে বিভিন্ন মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল সাইটে আপলোড করে থাকেন অভিনেত্রী। শিখা এবং তার মেয়ে আলায়নার ছবি নেটিজেনরা ইতিপূর্বে বহুবার দেখেছেন। প্রশংসাও করেছেন। তবে সম্প্রতি তিনি যে ছবিটি সোশ্যাল সাইটে আপলোড করেছেন তাতে নেটিজেনদের বক্রোক্তির সম্মুখীন হতে হয়েছে তাকে।

গত পয়লা জুলাই শিখা নিজের ইনস্টাগ্রাম ওয়ালে আলায়নাকে স্তন‍্যপান (Breastfeed Photo) করানোর সময়ের একটি ছবি আপলোড করেছেন। সেই ছবির ক্যাপশনে তিনি উল্লেখ করেছেন, “আমরা এমন এক সমাজে বাস করি যেখানে একজন মা তার সন্তানকে ঠান্ডা পানীয় পান করানোর জন্য যতটা না সমালোচিত হন, প্রকাশ্যে স্তন্যপান করালে তার থেকেও বেশি সমালোচিত হন। সমাজের এই সমস্যার পরিবর্তনের জন্য আমার লড়াই চলবে”।

উল্লেখ্য এই কথাটি অবশ্য শিখার নিজের কথা নয়। ডিয়ানা ডেকার (Deanna decker)-এর উদ্ধৃতিই নিজের ক্যাপশনে লিখেছেন শিখা। প্রসঙ্গত, শিখা এবং ডিয়ানার বক্তব্য কিন্তু বর্তমান সমাজের মানসিকতা সঙ্গে একেবারেই মিলে যায়। কারণ যে উদ্দেশ্যে শিখা এই ছবিটি সোশ্যাল সাইটে পোস্ট করেছিলেন, নেটিজেনদের একাংশ তা বুঝতে পারেননি। যে কারণে শিখাকে কেন্দ্র করে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

এই ছবিটি শেয়ার করার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনরা শিখার ‘নগ্নতা প্রদর্শন’ এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন। কারণ এই ছবিতে শিশুকে স্তন্যপান করানোর সময় শিখার শরীরের কিছু অংশ দৃশ্যমান হয়েছে। যদিও শিশুর মুখ এই ছবিতে দেখা যায়নি। তবুও নেটিজেনদের চোখে এই ছবি দৃষ্টিকটু বলে মনে হয়েছে। সমালোচকরা এক বাক্যে বলছেন, এই ছবিটি শিখার নগ্ন ছবি। যদিও সমালোচনার মুখে পড়ে শিখা কিন্তু তার এই ছবিটি ডিলিট করে দেননি।

শিখা নেটিজেনদের এই সমালোচনা গায়ে মাখতে রাজি নন। তিনি এই অযথা ট্রোল, কু মন্তব্য, সমালোচনা নিয়ে বিন্দুমাত্র বিচলিত নন। নেটিজেনদের সমালোচনার পরিপ্রেক্ষিতে শিখার পাল্টা বক্তব্য, “শিশুকে স্তন্যপান করানোর দৃশ্য একটি অত্যন্ত স্বাভাবিক দৃশ্য। সেই দৃশ্যকে ‘নগ্ন ছবি’-র আখ্যা দেওয়া মানে মাতৃত্বকে অপমান করা”। নেট নাগরিকদের এমন মনোভাব শিখাকে ব্যথিত করে তুলেছে।

নেটিজেনদের সমালোচনার শিকার হয়ে শিখা সমালোচকদের উদ্দেশ্যে প্রশ্ন তুলেছেন, “বিকিনি পরা ছবিতে মানুষের আপত্তি নেই। তবে আমি এ ধরনের ছবি আপলোড করলে এত নাটক?” অবশ্য এমন অভিজ্ঞতা তার এর আগেও বহুবার হয়েছে। বেশ কয়েকজন মন্তব্য করেছেন, “এটা আমাদের সংস্কৃতি নয়”। এতে শিক্ষার প্রতিক্রিয়া, “আমাদের মা বুকের দুধ খাইয়েই তো বড় করেছেন, এটা একেবারেই স্বাভাবিক বিষয়। এতে এ ধরনের কমেন্ট করা এবং অপমানিত হওয়ার কোনও কারণ নেই”।

Sikha Singh Breastfeeding

অনেকে প্রশ্ন তুলছেন, শিখার স্বামী কিভাবে এমন ছবি আপলোড করার অনুমতি দিলেন? তবে তারা জানেন না যে এই ছবিটি শিখার স্বামী নিজেই তুলেছেন। প্রসঙ্গত হিন্দি টেলিভিশনের পর্দার অত্যন্ত পরিচিত মুখ শিখা শিং। স্টার প্লাসে সম্প্রচারিত ‘মহাভারত’ ধারাবাহিকে প্রবল পরাক্রমী যোদ্ধা ‘শিখন্ডী’র চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন তিনি।