করোনা যুদ্ধে শাহরুখের ৭টি বড় ঘোষণা, দাঁড়ালেন পশ্চিমবঙ্গের পাশেও

shah-rukh-khan-announces-series-of-initiatives for corona virus

ভারতে করোনার থাবা দিন দিন বেড়েই চলেছে। শুরু হয়েছে এক অদৃশ্য দানবের সাথে যুদ্ধ। আর এই যুদ্ধে দেশের পাশে দাঁড়িয়েছেন দেশের বড় বড় শিল্পপতি থেকে তারকারা। সকলেই নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী অনুদান দিয়ে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী কেয়ার্স তহবিলে। শিল্পপতি, তারকাদের মতো এগিয়ে আসছেন দেশের সাধারণ মানুষেরাও। যেনতেন প্রকারে এই যুদ্ধে আমাদের জয়লাভ করতেই হবে, এমনই প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়ে উঠছেন দেশের মানুষ। আর এবার কিছুটা দেরি হলেও দেশের পাশে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার মিলল বলিউডের বাদশা শাহরুখ খানের থেকে।

বলিউডের বাদশা শাহরুখ খান দেশের পাশে দাঁড়ানোর পাশাপাশি আলাদাভাবে বাংলার পাশে দাঁড়ানোর কথাও জানিয়েছেন। আর এই করোনা যুদ্ধে শামিল হতে তিনি একগুচ্ছ ঘোষণা তুলে ধরলেন দেশ ও বাংলার সামনে। ঘোষণা মতো তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁর সংস্থা রেড চিলিজ বিএফএক্স, কলকাতা নাইট রাইডার্স, রেড চিলিজ এন্টারটেনমেন্ট ও মীর ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে তিনি তাঁর সাহায্য পৌঁছে দেবেন দেশের মানুষের দোরগোড়ায়।

করোনা মোকাবিলায় দেশের প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের পদক্ষেপকে ভূয়সী প্রশংসা করেছেন এই বলিউড বাদশা। তিনি প্রশংসা করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকুরের, প্রশংসা করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কেকেআর-এর তরফ থেকে একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী কেয়ার্স তহবিলে অনুদান করবেন শাহরুখ খান। রেড চিলিজ অনুদান করবে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে। এছাড়াও রয়েছে আরও অন্যান্য কয়েকটি ঘোষণা।

করোনা যুদ্ধে শাহরুখ খানের ৭ ঘোষণা

১) কলকাতা নাইট রাইডার্স আইপিএল দলের মালিকানাভুক্ত শাহরুখ খান, গৌরী খান, জুহি চাওলা ও জয় মেহতা কলকাতা নাইট রাইডার্স-এর প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অনুদান দেবেন।

২) মহারাষ্ট্রের ত্রাণ তহবিলে অনুদান দেবে শাহরুখ খান ও গৌরী খানের সংস্থা রেড চিলিজ এন্টারটেনমেন্ট।

৩) ৫০ হাজার পার্সোনাল প্রোটেকটিভ ইকুইপমেন্ট বা পিপিই করোনা যুদ্ধে সহযোগিতার জন্য দেওয়া হবে পশ্চিমবঙ্গ ও মহারাষ্ট্রের সরকারকে।

জ্বর সর্দি গলাব্যাথা নয়, করোনা সংক্রমনে দেখা যাচ্ছে ৫টি নতুন লক্ষণ

৪) মুম্বইয়ে ৫৫০০-এর বেশি পরিবারকে অন্ততপক্ষে এক মাসের খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করা হবে মীর ফাউন্ডেশন দ্য আর্থ ফাউন্ডেশনের সঙ্গে হাত মিলিয়ে। পাশাপাশি একটা রান্নাঘর চালু করে সেখান থেকে ২০০০ পেকেট বন্দি টাটকা খাবার পৌঁছে দেওয়া হবে দুঃস্থ দরিদ্র পরিবারগুলি পাশাপাশি হাসপাতালগুলিতে।

৫) আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া মানুষ ও দিনমজুরদের পাশে দাঁড়াবে মীর ফাউন্ডেশন ও রোটি ফাউন্ডেশন। তারা তিন লক্ষ প্যাকেট খাবারের বন্দোবস্ত করবে। যার মাধ্যমে মাসখানেক ১০ হাজারের বেশি মানুষ খাবার পাবেন।

৬) দিল্লির ২৫০০ দিনমজুরকে অন্ততপক্ষে এক মাসের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও রেশনের বন্দোবস্ত করবে ওয়ার্কিং পিপলস চার্টারের সঙ্গে হাত মিলিয়ে মীর ফাউন্ডেশন।

আপনার জেলার কোন কোন হাসপাতালে হচ্ছে করোনার চিকিত্‍সা, দেখুন তালিকা

৭) করোনা প্রকোপের পরিস্থিতিতে পশ্চিমবঙ্গ, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ বিহার, উত্তরাখণ্ডের ১০০-এর বেশি অ্যাসিড আক্রান্ত মানুষের পাশে দাঁড়াবে শাহরুখ খান ও তাঁর সংস্থা। এই সকল মানুষদের এক মাসের প্রয়োজনীয় চাহিদা মেটানোর প্রচেষ্টা চালাবেন তারা।

আর এই সকল ঘোষণার পাশাপাশি দুই পাতার বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে শাহরুখ খান ও তাঁর সংস্থা প্রথম দফায় কলকাতা, দিল্লি ও মুম্বইয়ে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে। শাহরুখ খান আরও জানিয়েছেন, “এটা সবেমাত্র শুরু।পরবর্তী ক্ষেত্রে দেশের যেমন যেমন প্রয়োজন হবে ঠিক তেমন তেমন চাহিদা মেটানোর সর্বাঙ্গীণ ভাবে চেষ্টা করবেন তারা।”