ঘরেই সাত পাক ঘুরিয়ে করোনাবিধি মেনে মেয়ের বিয়ে দিল সর্বজয়া, ট্রোলিং চরমে

করোনাবিধি মেনে ঘরেই সাতপাক ঘুরিয়ে মেয়ের বিয়ে দিল সর্বজয়া, ট্রোলিং চরমে

Sarbojaya is being Trolled for Sara Zishan Marriage

টিআরপি তালিকাতে প্রতি সপ্তাহেই চমক দেয় সর্বজয়া (Sharbojoya)। যদিও প্রথম প্রথম অবশ্য সেরা তিনে থেকে মিঠাইয়ের ঘাড়ে নিশ্বাস ফেলতে শুরু করেছিলেন দেবশ্রী। তবে ক্রমে টিআরপি তালিকায় পিছিয়ে পড়ছে সর্বজয়া। তাতেও অবশ্য সেরা দশে জায়গা থাকে বাঁধা। চলতি সপ্তাহে ধারাবাহিকের নতুন চমক সারা-জিশানের বিয়ে।

ধারাবাহিকের সাম্প্রতিকতম পর্বে দেখানো হয়েছে ঘরের মধ্যেই নিজের মেয়ের বিয়ে দিল সর্বজয়া। বিয়ের সানাই, পুরোহিত, মন্ডপ, ঘরভর্তি অতিথি নিয়ে নয়, সারার বিয়ে হল নিতান্তই এক ঘরোয়া পরিস্থিতিতে। কনের গায়ে বেনারসি পোশাক বা বরের গায়ে পাঞ্জাবিও নয়, নিতান্তই ঘরোয়া পোশাকে সারার সিঁথিতে সিঁদুর তুলে দিল জিশান। মায়ের বাধ্য মেয়ের মত জিশানকে বিয়ে করে নিল সারা।

জি বাংলা চ্যানেলের তরফ থেকে সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা হয়েছিল একটি ভিডিও। সেখানে দেখা যায় মেয়ের প্রেমিকের সঙ্গেই তাকে ঘরের মধ্যে সাত পাক ঘুরিয়ে বিয়ে দিচ্ছেন সর্বজয়া। দেবশ্রীকে বলতে শোনা গেল, এই বিয়েতে নেই কোনও সানাই, নেই কোনও আলো, আছে শুধুই বিশ্বাস। মায়ের এই সিদ্ধান্তে খুশি মেয়ে। তবে এই দৃশ্য দেখে নেট মাধ্যমে ট্রোলিং চরমে।

ঘরে এইভাবে দুজনের বিয়ে হওয়াতে নেটিজেনরা মজার মজার কমেন্ট করছেন। যদিও এই করোনা পরিস্থিতিতে চারিদিকে যে দুর্বিষহ অবস্থা তাতে এইভাবে বিয়ে হওয়াটাই ঠিক বলে দাবি করছেন অনেকে। সর্বজয়া ধারাবাহিক নিয়ে মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়াতে চরম ট্রোলিং হয়। ধারাবাহিক শুরুর আগে দেবশ্রীকে নিয়ে ট্রোল করে অভিনেত্রীর থেকেই তার উপযুক্ত জবাব পেয়েছিলেন সমালোচকরা।

তবে তারপরেও অবশ্য ধারাবাহিকের গল্প নিয়ে থেমে থাকেনি ট্রোলিং। সর্বজয়ার শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা প্রত্যেকেই প্রতিমুহূর্তে ষড়যন্ত্র করে চলে। তবে সর্বজয়া চৌধুরী বুদ্ধির জোরে সবাইকে হারিয়ে দেয়। সর্বজয়া, তার স্বামী এবং মেয়েকে বাড়ি এবং অফিস থেকে বহিষ্কার করার জন্য কম ষড়যন্ত্র হয়নি। কিন্তু প্রতিবার সর্বজয়া বুদ্ধি দিয়ে সব সমস্যার সমাধান করেছে।