তালের বড়া বানাতে এত কেরামতির কি আছে, সর্বজয়াকে কটাক্ষ নেটিজেনদের

এত বাড়াবাড়ির কী আছে! তালের বড়া তৈরি করতে গিয়ে সমালোচনায় বিদ্ধ সর্বজয়া

প্রথম সপ্তাহেই সেরা তিনে জায়গা করে নিয়েছে সর্বজয়া (Sarbojaya)। দ্বিতীয় সপ্তাহ যেতে না যেতেই অন্যান্য সব ধারাবাহিককে পেছনে ফেলে দিয়ে টিআরপি তালিকা ওলট-পালট করে দিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে জয়া। দেবশ্রী (Debashree Roy) ম্যাজিক ক্রমশ দর্শকের মনে জাঁকিয়ে বসছে। সর্বজয়ার অনুরাগীদের অনুমান, জয়া যেভাবে ছুটছে তাতে বাংলার সেরার সেরা মিঠাইকেও যেকোনও মুহূর্তে টেক্কা দিতে পারে দেবশ্রীর সর্বজয়া। তবে তার মাঝেই ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো (New Promo) ঘিরে শুরু হলো নতুন বিতর্ক।

ধারাবাহিকের নতুন প্রোমোতে দেখা যাচ্ছে বাড়ির বউ জয়া পরিবারের সকল সদস্যের জন্য একা হাতে তালের বড়া বানাচ্ছে। নিজে হাতে তাল ছাড়িয়ে, রস বের করে, নারকেল কুরিয়ে বড়া বানাচ্ছে জয়া। ‘কাকিজ’কে একা হাতে এত কাজ করতে দেখে অবাক হয়েছে দর্শনা। জয়াকে তালের বড়া বানাতে দেখে তার নিজের মায়ের কথা মনে পড়ে যায়। তার মায়ের বানানো তালের বড়ার স্বাদের কথা মনে পড়ে যায় তার।

দর্শনা বলে, এভাবে নিজের হাতে তালের বড়া বানানোর হ্যাপা অনেক। তখন জয়া উত্তর দেয়, আগেকার দিনের মা ঠাকুমার পরিবারের সদস্যদের জন্য ভালবেসে খাবার বানাতে সারাটা দিন রান্নাঘরেই কাটিয়ে দিতেন। তখনকার যুগে এখনকার রান্নাঘরের মত এত আধুনিক সাজ-সরঞ্জামও ছিল না। তবুও তারা পরিবারের সদস্যদের সাধ আহ্লাদের কথা ভেবে ভালোবেসেই তালের বড়া, পিঠে-পুলি বানাতেন। একটুও বিরক্ত হতেন না।

ধারাবাহিকের এই নতুন প্রোমো প্রকাশের পর কার্যত দর্শক মহল থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া যাচ্ছে। দর্শকের একাংশ ধারাবাহিকের এই দৃশ্যে সাবেকিয়ানার ছোঁয়া পেয়ে আবেগে ভাসছেন। তবে নেটিজেনদের একাংশ আবার তালের বড়া বানাতে গিয়ে জয়ার বাড়াবাড়িতে বেজায় চটেছেন! তাদের মন্তব্য, এখনও অনেক মহিলাই বাড়িতে তালের বড়া তৈরি করেন। তালের বড়া নিয়ে এত বাড়াবাড়ি করার কি আছে? প্রশ্ন তুলেছেন তারা।

উল্লেখ্য, সর্বজয়া ধারাবাহিককে নিয়ে এর আগেও বহুবার সমালোচনায় মেতেছিলেন দর্শক। সর্বজয়ার সম্প্রচারণ যখন শুরু হয়নি, তখন ধারাবাহিকের ট্রেলার দেখে অনেকে ধরেই নিয়েছিলেন যে এই ধারাবাহিকে স্টার জলসায় সম্প্রচারিত শ্রীময়ী ধারাবাহিকের অনুকরণ করা হয়েছে। তবে ধারাবাহিক সম্প্রচার হওয়ার পরে অবশ্য দর্শকের সেই ভুল ভেঙেছে। এখন দর্শক এই ধারাবাহিকের প্রতি আলাদাই এক টান অনুভব করেন। যার প্রমাণ পাওয়া যায় টিআরপি তালিকায়।

আরও পড়ুন : সর্বজয়ার দাপটে মিঠাই ম্যাজিক হাওয়া, স্টার জলসা ও জি বাংলার জোর টক্কর

উল্লেখ্য, এই ধারাবাহিকে জয়া এক বিত্তশালী পরিবারের অতি সাধারণ মানসিকতাসম্পন্ন বধু। ধনী পরিবারের বউ হয়েও যে নিতান্ত সাধারণভাবেই বাঁচে। পারিবারিক অনুশাসনের বাইরে গিয়ে ছাতে বড়ি দেয়, পাড়ার ছেলেদের সঙ্গে মিলে বিশ্বকর্মা পুজোর চাঁদা তোলে, আবার মেয়ের সাথে মেয়ের কলেজের ফাংশানেও নাচে জয়া। এমনই এক দৃঢ়চেতা নারীর ভূমিকায় দুর্ধর্ষ অভিনয় করে জয়ার চরিত্রটিকে জীবন্ত করে তুলেছেন টলিউড অভিনেত্রী দেবশ্রী রায়।