ফ্লপ হওয়ার ভয়, ভয়ের চোটে আগেই ‘কভি ঈদ কভি দিওয়ালি’ ছবির নাম বদলালেন সালমান

মুক্তির আগেই একের পর এক বাধা! আগেভাগেই ছবির নাম বদলে ফেললেন সালমান

SALMAN KHAN

করোনা পরবর্তী সময়ে ধীরে ধীরে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে বলিউড (Bollywood)। কিন্তু বলিউডের সাফল্যের মাঝে প্রবল বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে দক্ষিণের সিনেমাগুলো। দক্ষিণের সিনেমাগুলির দাপট এমনই যে তার ধারে কাছে টিকতে পারছে না বলিউডের কোনও সিনেমা। একটা সময় ছিল যখন শাহরুখ, সালমান (Salman Khan), আমির খানেদের ছবি মানেই হিট তকমা সেঁটে যেত ছবির মুক্তির আগেই! কিন্তু এখন ছবি মুক্তির আগে ফ্লপ হওয়ার ভয় চেপে বসেছে ভাইজানের মনেও!

বলিউডের ভাইজান সালমান খান প্রত্যেক বছরের ঈদে নতুন ছবি উপহার দেন ভক্তদের। আগামী বছরের ঈদের জন্য প্রস্তুতি তিনি ইতিমধ্যে শুরুও করে দিয়েছেন। আগামী বছরের ঈদে ‘কভি ঈদ কভি দিওয়ালি’ (Kabhi Eid Kabhi Deewali) ছবি আনার কথা ভাবছেন ভাইজান। ছবির শুটিং ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু এই বছর আর ভক্তদের মধ্যে ভাইজানের ছবি নিয়ে তেমন উৎসাহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। কলিউডের জ্বরে কাঁপছে ‌গোটা ভারতবর্ষ।

ইতিমধ্যেই ছবির ফার্স্ট লুক শেয়ার করেছিলেন সালমান। তবে নেটিজেনদের মধ্যে এই ছবি নিয়ে তেমন কোনও উৎসাহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। ছবির কথা প্রকাশ পেতেই বরং নানা বিতর্ক দানা বেঁধেছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। একাধিক বিষয় নিয়ে প্রবল বাঁধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে সালমান খানের আসন্ন ছবিটিকে। বিশেষত ছবির নাম নিয়েও নাকি সমস্যা দেখা দিয়েছে! যে কারণে ছবির নামটাই পাল্টে দেওয়া হতে পারে।

নাম না বদলানো হলে ফ্লপ হতে পারে! এই আশঙ্কায় আগেভাগেই ‘কভি ঈদ কভি দিওয়ালি’ ছবির নাম বদলে দিতে চলেছেন সালমান খান। এই ছবির নাম বদলে ‘ভাইজান’ নাম রাখা হবে বলে জানা যাচ্ছে। সালমান তার পোশাকি নামটাই ব্যবহার করতে চলেছেন ছবির ক্ষেত্রে। এই নাম কার্যত ছবির গল্পের সঙ্গে মিলে যাচ্ছে। ছবিতে একটি পারিবারিক গল্প তুলে ধরা হয়েছে, যেখানে পরিবারের বড় ভাইকে ভাইজান বলে ডাকেন সকলে। তাই সালমান চাইছেন ছবির নাম বদলে ‘ভাইজান’ রাখা হোক।

MUMBAI, INDIA – AUGUST 03 : Salman Khan attends the press conference of tv reality show Bigg Boss on August 03, 2010 in Mumbai, India (Photo by Prodip Guha/Getty Images)

যদিও বলিউডের অভ্যন্তরে গুঞ্জন, ছবি ফ্লপ হওয়ার আশঙ্কা থেকে তড়িঘড়ি নাম বদলে ফেলছেন সালমান। এদিকে ছবির কাস্টিং নিয়েও বড় সমস্যা দেখা দিয়েছে। তার বোনের বর আয়ুষ শর্মা ইতিমধ্যেই ছবি থেকে সরে গিয়েছেন। অন্যদিকে ছবির প্রযোজক সাজিদ নাদিয়াদওয়ালাও ছবি থেকে সরে গিয়েছেন। সালমানের আসন্ন ছবিটিকে নিয়ে তাই জোর চর্চা চলছে বলিউডে। এই ছবির ভাগ্যে কী আছে ছবি মুক্তির পরই তা জানা যাবে।