আর নেই ঐন্দ্রিলা, RIP লেখার ধুম সোশ্যাল মিডিয়ায়! ভারাক্রান্ত মনে বিশেষ বার্তা সব্যসাচীর

ঐন্দ্রিলার মৃত্যু সংবাদে ছয়লাপ সোশ্যাল মিডিয়া! মুখ খুললেন সব্যসাচী

Sabyasachi Chowdhury opens up about the fake news related Aindrila Sharma's death

ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma) যে হাসপাতালে গত ২ সপ্তাহ ধরে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন সে কথা সকলেই জানেন। তার কাছের মানুষ থেকে শুরু করে অনুরাগী, সতীর্থ সকলেই এমনকি যারা তাকে চেনেন না, কখনও তাকে দেখেননি তারাও তার এই সংকটজনক পরিস্থিতির খবর পেয়ে আরাধ্য দেবতার কাছে একনাগারে প্রার্থনা করে চলেছেন, মেয়েটা যেন ফিরে আসে।

অথচ এরই মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়াতে কিছু মানুষ ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে মিথ্যে খবর ছড়াতে শুরু করে দিয়েছেন। আচমকাই বুধবার রাতে ছড়িয়ে দেওয়া হয় ঐন্দ্রিলার মৃত্যুর সংবাদ। সত্য মিথ্যা যাচাই না করেই একদল সেলিব্রিটিও এই উড়ো খবর ছড়াতে শুরু করে দেন। তাদের মধ্যে স্যান্ডি সাহাও ছিলেন। এখানে সোশ্যাল মিডিয়াতে ঐন্দ্রিলাকে উদ্দেশ্য করে RIP লেখার ধুম পড়ে যায়।

Aindrila Sharma

তবে ঐন্দ্রিলা এখনও মৃত্যুর কাছে হার মেনে নেননি। হাওড়ার বেসরকারি ওই হাসপাতালে তার এই লড়াইটা এখনও জারি রয়েছে। বুধবার সকালেই পরপর ২ বার তার হার্ট অ্যাটাক হয়। ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হওয়ার পর হার্ট অ্যাটাক, ঐন্দ্রিলার শারীরিক পরিস্থিতি আরও সংকটজনক করে তুলেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। তবুও ঐন্দ্রিলা লড়ছেন।

এসব দেখে ঐন্দ্রিলার কাছের মানুষ সব্যসাচী ফেসবুকে ভারাক্রান্ত হৃদয়ে লিখতে বাধ্য হলেন, “আর একটু থাকতে দাও ওকে… এসব লেখার অনেক সময় পাবে।” এতে খানিকটা আশ্বস্ত হন ঐন্দ্রিলার ভক্তরা। ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে এই কঠিন পরিস্থিতিতে ভুয়ো খবর ছড়ানোতে সব্যসাচী মনে মনে কতটা আঘাত পেয়েছেন এই টুকরো কথাতেই তা পরিষ্কার হয়ে গেল সকলের কাছে। এরপর স্যান্ডি নিজের ভুল বুঝতে পেরে ফেসবুকে পোস্ট করে ক্ষমা চেয়ে নেন।

ঐন্দ্রিলাকে এখন নিয়ে উদ্বিগ্ন সারা বাংলা। এই পরিস্থিতিতে তাকে নিয়ে ভুয়ো খবরে সব্যসাচীর মত আরও অনেকের মন ভারাক্রান্ত করে তুলেছে। সকলেই চান মৃত্যুর সঙ্গে এই কঠিন লড়াইটাও পার করে আসুন ঐন্দ্রিলা। তারা সব্যসাচীর পোস্টে মন্তব্য করেছেন এরকম লেখার সময় যেন কখনও না আসে। ঐন্দ্রিলা সুস্থ হয়ে ফিরবেন, তাকে আবার হাসিমুখে দেখা যাবে, স্থির বিশ্বাস নিয়ে রয়েছেন তার কোটি কোটি শুভাকাঙ্ক্ষী।

এদিকে সোশ্যাল মিডিয়াতে অভিনেত্রীকে নিয়ে ভুয়ো খবর ছড়ানোতে ফুঁসে উঠেছে টলিউডও। সব্যসাচীর বন্ধু সৌরভ দাসও এর ঘোর নিন্দা করেছেন। অভিনেত্রী দোলন রায়ও নিন্দা করে লিখেছেন, “কিসের এত তাড়া RIP লেখার? বাঁচুন ও বাঁচতে দিন।” গায়িকা ইমন চক্রবর্তীও সোশ্যাল মিডিয়াতে জানিয়েছেন ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে উদ্বেগে নির্ঘুম রাত কাটছে তার। এমন পরিস্থিতিতে নেটিজেনরা অনেকেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সব্যসাচীর পোস্ট ছাড়া ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে আর কোনও কথাতেই তারা বিশ্বাস করবেন না।