ভগবান কি ফেসবুক করেন? অসুস্থ ঐন্দ্রিলাকে খোঁচা দিয়ে বিপাকে ঋত্বিক চক্রবর্তী

অসুস্থ ঐন্দ্রিলাকে খোঁটা দিয়ে রসিকতা! ঋত্বিক চক্রবর্তীকে ছিঃ ছিঃ করছে নেটপাড়া

Ritwick Chakraborty's jocked on prayer for Aindrila Sharma made netizen angry

বাংলা সিরিয়ালের (Bengali Mega serial) জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মার (Aindrila Sharma) আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়ার খবরটা নাড়িয়ে দিয়েছিল গোটা বাংলাকে। ২ বার ক্যান্সার জয় করে ফেরার পর ঐন্দ্রিলা ফের ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে দু সপ্তাহ আগে ভর্তি হন হাসপাতালে। গত কিছুদিন ধরে তার অবস্থার উন্নতি-অবনতি সংক্রান্ত সমস্ত খবরাখবর রেখেছেন অনুরাগীরা। সেইসঙ্গে ঈশ্বরের কাছে কায়মনো বাক্যে ঐন্দ্রিলার জন্য প্রার্থনাও করছেন সকলে।

ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে উপচে পড়ছে প্রার্থনা, শুভকামনা। টলিউডের তাবড় তাবড় তারকারা তাকে নিয়ে কলম ধরেছেন। ফিরে আসার অনুরোধ করেছেন তাকে বারবার। ঐন্দ্রিলা আবার ফিনিক্স পাখি হয়ে ফিরে আসবেন, এই আস্থার উপর জোর দিয়ে সকলেই আশাবাদী নিজ নিজ পোস্টে। এসব দেখে আচমকাই কটাক্ষ করে প্রশ্ন তুললেন অভিনেতা ঋত্বিক চক্রবর্তী (Ritwick Chakraborty)।

“অনেকেই দেখি নানা কারণে ফেসবুকে প্রার্থনা করেন। কিন্তু, যাঁর কাছে প্রার্থনা করা হয়, তিনি ফেসবুক করেন তো?”, ঋত্বিকের এই পোস্টের নিচে কমেন্ট বক্সে উপচে পড়ছে নেটিজেনদের মন্তব্য। কেউ কেউ তার সঙ্গে সহমত পোষণ করছেন। অভিনেত্রী উষসী চক্রবর্তীও তার মন্তব্য মারফত পরোক্ষে ঋত্বিককেই সমর্থন করেছেন। কিন্তু মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছেন যিনি সেই ঐন্দ্রিলার শুভাকাঙ্ক্ষীরা মোটেও ঋত্বিককে ছেড়ে কথা বলেননি।

বিশ্বাসে মিলায় বস্তু, তর্কে বহুদূর! ফলাফল ইতিবাচক হোক কিংবা নেতিবাচক, টলিউড এবং সাধারণের মধ্যে যারা ঐন্দ্রিলার শুভাকাঙ্ক্ষী তারা সকলেই এখন আরাধ্য দেবতার কাছে একনাগাড়ে প্রার্থনা করে চলেছেন। ঐন্দ্রিলার কাছের মানুষ সব্যসাচী চৌধুরী থেকে শুরু করে তার মা শিখা শর্মাও প্রার্থনার উপরই বিশ্বাস রেখে সোশ্যাল মিডিয়াতে সকলকে অভিনেত্রীর জন্য আরাধ্য দেবতার কাছে প্রার্থনা জানানোর অনুরোধ করেন।

এই পরিস্থিতিতে ঋত্বিক চক্রবর্তীর হালকা রসিকতা মোটেও মেনে নিতে পারছেন না নেটিজেনরা। পাল্টা তারা তার মানসিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন। বুধবার সকালেই ঐন্দ্রিলার হার্ট অ্যাটাক হয়েছে। এই খবরটা জানার পর থেকেই আরও উদ্বিগ্ন হয়ে রয়েছেন তার ভক্তরা। ঐন্দ্রিলা সুস্থ হয়ে ফিরে আসুন, সেই কামনায় করছেন তারা। যদিও ঋত্বিক অবশ্য তার পোস্টে কারও নাম নেননি। তবুও নেটিজেনরা তাকে ধুয়ে দিলেন।

জনৈক নেটিজেন লিখেছেন, ‘‘দাদা ঐন্দ্রিলা আর সব্যসাচীকে নিয়ে এই ধরনের খোঁটা না মারলেই চলছিল না?” কেউ লিখছেন, “অনেক কিছুই হয়তো যুক্তিহীন। তবু যুক্তির বাইরেও কিছু আছে সেই বিশ্বাসে হয়তো এসব করে থাকি আমরা। আর সম্মিলিত প্রার্থনা এবং শুভেচ্ছার একটা ভাল দিক নিশ্চয়ই আছে।” ঋত্বিককে প্রবল কটাক্ষ করে কেউ লিখলেন, “ডকুমেন্ট রেখে পৃথিবীকে জানিয়ে প্রার্থনা করা ক্লিশে মনে হতেই পারে তবে এক একজন মানুষের আবেগের প্রকাশ এক একরকম। যিনি সকলের সামনে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন, তাঁর আবেগ হয়ত সস্তা হয়ে যায় অনেকের কাছে”।