অভাব যাবে না, পথের ভিখিরি করে ছাড়বে, আজই বাড়ি থেকে দূর করুন এই ৪ টি জিনিস

হিন্দুধর্মে কোনও উৎসব মানেই যেমন আনন্দ আর খুশির সময় ঠিক পাশাপাশি এই উৎসব পালন করার সময় মেনে চলতে হয় হরেক রকমের রীতি-নীতি। উৎসব যাই হোক, রীতি-নীতি থাকবেই। এমনি কিছু রীতি রয়েছে দোল (Dol) উৎসবের ক্ষেত্রে। এই উৎসব পালন করার আগেও কিছু রীতি-নীতি পালন করা হয়।

রীতি অনুযায়ী, ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও মা লক্ষ্মী প্রসন্ন করতে বাড়ি থেকে চারটি অপ্রয়োজনী জিনিস ফেলে দিতে হবে। এছাড়াও দোলের আগে কিছু নতুন জিনিস কিনতেও হবে। ভগবান শ্রীকৃষ্ণ ও মা লক্ষ্মীর কৃপায় এই জিনিসগুলি বাড়িতে সুখ-শান্তি নিয়ে আসবে।

বাড়ি থেকে কী কী ফেলে দিতে হবে?

MAA LAKSHMI

ভাঙা মূর্তি: অনেকের বাড়িতেই ভাঙা দেবদেবীর মূর্তি রাখা থাকে। কিন্তু এই ধরনের ভাঙা দেবদেবীর মূর্তি কখনও বাড়িতে রেখে দেওয়া উচিত নয়। ভাঙা মূর্তি বাড়িতে রাখলে বাড়ির বাস্তদোষ দেখা দিতে পারে। তাই বাড়ির থেকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ফেলে দেওয়া উচিত।

ভাঙা কাঁচ: ভাঙা কাঁচ বাড়িতে রাখা উচিত নয়। এর ফলে বাড়ির অগ্ৰগতি আটকে যাবে। পাশাপাশি বাস্তদোষ থাকতে পারে যদি বাড়িতে ভাঙা কাঁচ থাকে। এছাড়াও ঘরে পুরনো বন্ধ হয় যাওয়া ঘড়িও ফেলে রাখতে নেই। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বাড়ি থেকে ফেলে দিতে হবে।

BROKEN GLASS

ভাঙাচোরা ইলেকট্রিক সরঞ্জাম: ভাঙাচোরা ইলেকট্রিক জিনিসপত্র যেমন ভাঙা টিভি, কম্পিউটার, মোবাইল, ইত্যাদি ঘরে না রাখাই উচিত। এগুলি ঘরে থাকলে নেতিবাচক শক্তি জন্ম দেবে।

মূল দরজা পরিষ্কার রাখতে হবে: যে উৎসবের আগে বাড়ির প্রবেশদ্বার পরিষ্কার করাতে হবে। কারণ এই প্রবেশদ্বার দিয়েই মা লক্ষ্মী ঘরে প্রবেশ করে। এছাড়াও এই প্রবেশদ্বারের সামনে নোংরা, জুতো ও কাটা জাতীয় গাছ রাখা যাবে না।

নতুন কী কী জিনিস কিনতে হবে?

JHARU

ঝাঁটা: হিন্দুধর্ম অনুযায়ী ঝাঁটা হল দেবী লক্ষ্মীর রূপ। এই ঝাঁটা দিয়েই পরিষ্কার করা হয় ঘর-দোর। যার ফলে দেবী লক্ষ্মীকে পরিচ্ছন্ন জায়গায় রাখা যায়। তাই ঝাঁটা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ জিনিস। তাই দোলা আগে ঝাঁটা কেনা খুব শুভ মনে করা হয়।

কড়ি: মা লক্ষ্মীর খুব প্রিয় জিনিস হল কড়ি। তাই লক্ষ্মীপুজো সময়েও কড়ি লাগে। দোলের আগেই কড়ি কিনে আনুন। আর যেখানে টাকা হয় সেখানেই ঐ কড়িগুলো রেখে দিতে হবে। এই রীতি মেনে চললে কোনও দিন‌ অর্থের অভাব হবে না।

CORIENDER

ধনে: ধনে কেনা খুব শুভ একটা কাজ। বাড়িতে ধনে কিনে। আনলে। সেটা মা লক্ষ্মীকে নিবেদন করতে হবে। মা লক্ষ্মীকে নিবেদন করার‌ পর সেটা বাড়ির বাগানে রোপন করে দিতে হবে। এভাবে এই নিয়ম মেনে চলতে পারলে অর্থনৈতিক সমস্যা দূর হয় যাবে।

পিতলের বাসন: দোলের আগে পিতলের বাসন কেনা খুব শুভ। এর ফলে সকলের জীবনে আসে সমৃদ্ধি। সমুদ্র মন্থনের পর এই পিতলে বাসন দেবীর হাতেই আবির্ভূত হয়েছিল। তাই এই সময় পিতলের বাসন ঘরে আনলে সমৃদ্ধি বাড়ে।