পার্থঘনিষ্ঠ অর্পিতার পাশে দাঁড়ালেন টলিউড প্রযোজক, ধুয়ে দিল নেটিজেনরা

গুণধর অর্পিতা’র প্রশংসায় পঞ্চমুখ টলিউড প্রযোজক, বললেন অর্পিতার এই অবস্থার জন্য দায়ী সমাজ

এক সপ্তাহ আগে তার নামটুকু পর্যন্ত জানতেন না টলিউডের (Tollywood) বেশিরভাগ কলাকুশলী। তবে আজ তাকে শুধু টলিউড বা বাংলা নয়, গোটা দেশ চেনে। এসএসসি দুর্নীতি (SSC Scam) কাণ্ডে তার বাড়ি থেকেই উদ্ধার হয়েছে কোটি কোটি টাকা। পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে (Arpita Mukhopadhyay) অভিনেত্রী হিসেবে নয়, বেশিরভাগ মানুষ চিনছেন দুর্নীতির অংশীদার হিসেবে।

তবে এটা অর্পিতার পাওনা ছিল না বলেই মনে করছেন টলিউডে তার ঘনিষ্ঠজনেরা। এর আগে অর্পিতার সম্পর্কে মুখ খুলেছিলেন তার ছবির পরিচালকরা। তিনি যে কত ভালো অভিনেত্রী এবং শুধু অভিনয় করলে অনেক দূর এগোতে পারতেন একথা শোনা গিয়েছে পরিচালকদের মুখে। এবার অর্পিতার হয়ে মুখ খুললেন টলিউডের প্রখ্যাত প্রযোজক রানা সরকার। কেন অর্পিতার পক্ষ নিচ্ছেন রানা?

দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত অর্পিতা নয়, রানা বাঁচাতে চাইছেন তার মধ্যে থাকা শিল্পীকে। ফেসবুকে অর্পিতাকে নিয়ে একটি পোস্ট করেন রানা সরকার। সেখান থেকেই জানা যায় রানা সরকারের একটি সিরিজ এবং ছবিতেও কাজ করেছিলেন অর্পিতা। তার অভিনয় ক্ষমতা মুগ্ধ করেছিল প্রযোজককে।

একটি চ্যানেলের জন্য ব্যোমকেশ বক্সী সিরিজ এবং ২০১৪ সালে ‘কহেন কবি কালিদাস’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন অর্পিতা। রানা সরকারের কথায়, “রীতিমত অডিশন দিয়ে কাস্টিং করা হয়েছিল ওকে… ওড়িয়া ছবির প্রতিষ্ঠিত এক অভিনেত্রী, পরিশ্রমী, অভিনয়ে পারদর্শী মেয়েটি… শুধুমাত্র অভিনয় পেশা থেকেই অনেক কিছু পাওয়ার ছিল ওর, কিন্তু হারিয়ে গেলো এই জগৎ থেকে , হয়তো নিয়তির টানে।”

রানা আরও লিখেছেন, “এরকম বহু অর্পিতা লুকিয়ে আছে আমাদের মধ্যে, সমাজ এদের আসল প্রতিভা থেকে দূরে সরিয়ে দিয়েছে, শুধু যে টাকা পয়সার লোভ সেটা না কিন্তু আর্থিক ও সামাজিক নিরাপত্তাহীনতা এটার অন্যতম কারণ বলে মনে হয়।”

অর্পিতাকে নিয়ে যতই ট্রোল-মিম হোক, রাজনৈতিক বিশ্লেষণ হোক, একজন শিল্পী তাকে বাঁচিয়ে রাখার দায়িত্ব নিতে হবে সমাজকে, এমনটাই দাবি করেছেন প্রযোজক। যদিও তার এই পোস্টে নেটিজেনদের ক্ষোভ উপচে পড়ছে। অর্পিতার যদি প্রকৃত ‘প্রতিভা’ থাকতো তাহলে তিনি নিজেকে এইভাবে বেচে দিতেন না, রানা সরকারকে পাল্টা জবাব দিলেন তারা।