পশ্চিমি ঝঞ্ঝার জেরে দক্ষিণবঙ্গের ৯ জেলায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা

দিন কয়েক ধরেই আংশিক মেঘলা আকাশ রয়েছে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায়। মেঘলা আকাশ থাকলেও বৃষ্টির দেখা মেলেনি। যে কারণে শুরু হয়েছে গুমোট অস্বস্তিকর গরম। সোমবার সকাল থেকেও রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় মেঘলা আকাশ ও গুমোট গরম বজায় রয়েছে। আর এই গুমোট গরম থেকে স্বস্তি মিলতে পারে আজই বিকাল অথবা সন্ধ্যায়, এমনটাই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

হাওয়া অফিস জানিয়েছে, সোমবার বিকাল অথবা সন্ধ্যায় ভিজতে পারে তিলোত্তমা শহর কলকাতা। কলকাতার পাশাপাশি বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে রাজ্যের দক্ষিণবঙ্গের আরও ৮ জেলায়। দক্ষিণবঙ্গের ৯ জেলার পাশাপাশি আগামীকাল অর্থাৎ মঙ্গলবার থেকে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে উত্তরবঙ্গেও।

১৭ ই এপ্রিল অর্থাৎ শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের নতুন করে একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা প্রবেশ করবে। এই পশ্চিমী ঝঞ্ঝার কারণেই মেঘের সঞ্চার হচ্ছে দক্ষিণবঙ্গে। এছাড়াও আরব সাগরের কেরলের উপকূলে ও বাংলাদেশে রয়েছে ঘূর্ণাবর্ত। আর কর্ণাটক থেকে মধ্যপ্রদেশ পর্যন্ত রয়েছে নিম্নচাপ অক্ষরেখা। আর এসবের মিলিত প্রভাবে আগামী দিন কয়েক ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আলিপুর হাওয়া অফিস।

সোমবার বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, মুর্শিদাবাদ, নদিয়া, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হাওড়া ও কলকাতায়। বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টি পাশাপাশি শিলাবৃষ্টিরও দেখা মিলতে পারে। পাশাপাশি ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে বইতে পারে দমকা হওয়া।

অন্যদিকে মঙ্গলবার উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি সহ প্রতিটি জেলাতেই বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি মঙ্গলবার দক্ষিণবঙ্গে ৮ জেলাতেও ঝড়-বৃষ্টি দেখা দিতে পারে। দক্ষিণবঙ্গের যে ৮ জেলায় আগামীকাল ঝড় বৃষ্টি হতে পারে সেগুলো হলো পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, পশ্চিম বর্ধমান, বাঁকুড়া ও পুরুলিয়া। এছাড়াও মঙ্গলবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলার পাশাপাশি দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।