এই সব উপকরন দিয়ে করা যায়না শিব পুজো

শিব স্বয়ং মহাকাল। তৃতীয় নয়নের অধিকারী। তিনি ধ্বংসের প্রতীক। আবার ভক্তবৎসল। শ্মশানে রাত কাটান। ছাই-ভস্ম মাখেন। সন্ন্যাসীর জীবন শিবের। সামান্য জিনিসেই তিনি সন্তুষ্ট। বেলপাতা আর ধুতরো ফলেই তুষ্ট। আবার নিত্য পূজার অঙ্গ কয়েকটা উপাদান আবার শিব পুজোয় চলে না একদমই। এখানে আমরা দেখে নিই তেমনই কয়েকটা উপাদান।

শঙ্খ বা শাঁখ

পুরাণ মতে, শঙ্খাসুর নামে এক মহাপরাক্রমশালী অসুর ছিলেন। ভগবানবিমুখ এবং প্রবল অত্যাচারী। পাপের ঘড়া পূর্ণ হলে শিব তাকে বধ করে ভারত মহাসাগরে ভাসিয়ে দেন। শঙ্খাসুরের স্ত্রী ঈশ্বরের কাছে স্বামীর জীবন চেয়ে তপস্যা শুরু করেন। এবং মৃত শঙ্খাসুরের অস্থি থেকে তৈরি করেন শাঁখ। সেই থেকে পূজার উপকরণ হিসাবে শাঁখ ব্যবহার করা হলেও শিব পূজায় শাঁখ নিষিদ্ধ।

তুলসিপত্র বা তুলসী পাতা

পুরাণ অনুসারে, তুলসি ছিলেন মহাপরাক্রমশালী অসুর জলন্ধরের পত্নী। দেববরে অজেয় জলন্ধর বিরাট প্রতিপত্তি লাভ করেন। সেই সময়ই শিব ও বিষ্ণু জলন্ধরকে হত্যা করেন। স্বামীর হত্যায় ক্ষিপ্ত হন তুলসি। তাঁকে সন্তুষ্ট করতে বিষ্ণু তাঁকে বর দেন যে, বিষ্ণুপদে স্থায়ী স্থান লাভ হবে তাঁর। কিন্তু শিবকে ক্ষমা করেননি তুলসী। তিনি শিবকে অভিশাপ দেন। মনে করা হয়, সেই থেকে শিবপূজায় তুলসীপত্র নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

তিল অর্পন

বিশ্বাস, বিষ্ণুর শরীরের ময়লা থেকে তৈরি হয়েছে তিল। তাই শিব পূজায় তিলের ব্যবহার নেই।

সিঁদুর

শিবের তিলক সিঁদুর দিয়ে করা উচিৎ নয়। শিব বৈরাগী, সন্ন্যাসী। শ্মশানে থাকেন। ছাই-ভস্ম মাখেন। আর সিঁদুর সৌভাগ্যের প্রতীক। বিবাহিত নারীর অলঙ্কার। তেল আর জল যেমন মেশে না তেমনই সৌভাগ্য আর বৈরাগ্য এক সঙ্গে থাকে না। তাই শিব পূজায় সিঁদুরের ব্যবহার নিষিদ্ধ। শিবের তিলক তাই সবসময় চন্দন দিয়ে করা উচিৎ।

ভাঙ্গা চাল

শিব পূজায় নিষিদ্ধ ভাঙ্গা চালও। চাল খন্ডিত হওয়ায় তা অসম্পূর্ণ ও অনুপযুক্ত। তাই শিব পুজো সবসময় অক্ষত বা সম্পূর্ণ চাল দিয়ে করা উচিৎ।

নারকেল ও হলুদ

ভগবান শ্রীবিষ্ণুর স্ত্রী লক্ষ্মীর প্রতীক হল নারকেল। তাই শিব পূজায় নারকেল বা নারকেলের জলের ব্যবহার করা হয় না। আবার হলুদের সঙ্গে শ্রীবিষ্ণুর গভীর সম্পর্ক। তাই শিবের আরাধনায় চলে না হলুদের ব্যবহার।

কথায় আছে, ভক্তের হৃদয়ে ভগবানের বৈঠকখানা। সেরকমভাবে ডাকলে ভগবান অবশ্যই সাড়া দেবেন। আর তিনি তো শিব, স্বয়ং মহাকাল। তিনি ভক্তবৎসল। ভক্তের আকাঙ্ক্ষা পূরণ করেন তিনি। ওপরের জিনিসগুলি মেনে চলুন, যথাযথ পূজা উপাদান বাছুন। শিব নিশ্চয় প্রসন্ন হবেন।