পেট্রোপণ্য মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে নিজে স্কুটি চালালেন মমতা, ভিডিও ভাইরাল

দলের প্রচার এগিয়ে এর আগে বহুবার বাইকের পেছনে বসেছেন তিনি। তবে এই প্রথমবার দেশজুড়ে তেলের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে নিজে স্কুটি চালিয়ে নবান্ন পৌঁছান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রথমে মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম নিজেই স্কুটি চালিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে পেছনে বসিয়ে নবান্ন পৌঁছান। এরপর স্টাইলিং নিজের হাতে তুলে নেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্ন থেকে বেরিয়ে দ্বিতীয় হুগলি সেতুর মাঝামাঝি পর্যন্ত নিজে স্কুটি চালানো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

অনভিজ্ঞ হাতে যেভাবে মুখ্যমন্ত্রী স্কুটি চালালে তা দেখে চমকে গিয়েছে রাজ্যবাসী। কারণ এর আগে স্কুটি তো দূরের কথা মমতা ব্যানার্জিকে সাইকেল চালাতে ও কেউ কখনো দেখেননি। মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তায় তিনি যখন স্কুটার চালাচ্ছিলেন তখন শহরের আকাশে উড়ছে ড্রোন। তবে রাস্তার ট্রাফিক নিয়ন্ত্রণে আলাদা কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। মুখ্যমন্ত্রীকে প্রকাশ্যে রাস্তায় এইভাবে স্কুটি চালাতে দেখে ভিড় জমে যায় রাস্তার দু’ধারে। নিজেদের মোবাইল বের করে ছবি ও ভিডিও তুলতে থাকেন উৎসাহী জনতা। এই ভিডিও এখন ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

মুখ্যমন্ত্রী নিজের হাতে যে স্কুটি চালিয়েছেন তা বাড়তি চমক বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহলের বিশেষজ্ঞরা। এদিন ওই ইলেকট্রিক স্কুটার চালানোর সময় মুখ্যমন্ত্রীকে সাহায্য করেন তার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মীরা। মুখ্যমন্ত্রীর এই পদক্ষেপ শহর বাসীদের একাংশকে মুগ্ধ করলেও বিরোধীরা কটাক্ষ করতে ছাড়েননি। বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় এই পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন্দ্রের পথেই হাঁটলেন। কারণ কেন্দ্র পরিবেশ রক্ষার্থে ই-গাড়ি চালানোতে উৎসাহ দিচ্ছে। আর সেই একই পথ তিনি অনুসরণ করলেন।