‘ছোট জামা কাপড় পরলে মেয়েরা খারাপ হয়ে যায় না’ : প্রিয়াঙ্কা সরকার

টলিউড (Tollywood) অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার (Priyanka Sarkar) এই মুহূর্তে তার ছেলে সহজ এবং নিজের কেরিয়ার নিয়ে ভীষণ ব্যস্ত। আর কোনও দিকে নজর দেওয়ার সময় নেই তার হাতে। সিঙ্গেল মাদার হিসেবে ছেলেকে নিজের মনের মতো করে মানুষ করছেন তিনি। তিনি চান তার সন্তানের মধ্যে যেন সঠিক মূল্যবোধ গড়ে ওঠে। সমাজের জংধরা দৃষ্টিভঙ্গিতেই মেয়েদের দেখুক সহজ, এমনটা মোটেও চান না প্রিয়াঙ্কা।

অভিনেত্রী হওয়ার সুবাদে প্রিয়াঙ্কাকেও বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সাহসী দৃশ্যের শুটিং করতে হয়েছে। সাহসী ফটোশুটে খোলামেলা পোশাকে ক্যামেরার সামনে ধরা দিতে হয়েছে। অনুরাগীরা অবশ্য সেই সমস্ত ছবি ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়াতে তো সমালোচকদের কোনও অভাব নেই। তাই সমালোচকদের নোংরা মন্তব্য বারংবার ধেয়ে এসেছে তার দিকে। পোশাক নিয়ে তাকেও বহু কদর্য মন্তব্য শুনতে হয়েছে।

মাকে এমন বোল্ড অবতারে দেখে সহজের প্রতিক্রিয়া কী? আনন্দবাজারে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী ছেলের সম্পর্কে জানালেন, “আগামী প্রজন্ম সব দিক থেকেই ভীষণ এগিয়ে। ওরা এ সব নিয়ে মাথাই ঘামায় না। সহজ আমার সাহসী ফটোশ্যুট নিয়ে কোনও কথা বলে না। ওকে কেন নিয়ে যাইনি, কোথায় শ্যুট করলাম? এ সব জানতে চায়”। এর সঙ্গেই তার সংযোজন, “আমি যেমন মা তেমনি আমি এক জন সম্পূর্ণ নারী। তাই যে কোনও বিষয়ে আমার স্বাধীনতা থাকবে। কাজের ক্ষেত্রেও”।

প্রিয়াঙ্কা আরও বলেছেন, “আমি চাই সহজ সেটা বুঝুক। ও যেন বুঝতে পারে, ছোট জামা পরলেই মেয়েরা খারাপ হয়ে যায় না। ও যেন আমার পরিশ্রমকে সম্মান দেয়, স্বীকৃতি জানায়। আবার আমিও সহজের কথা ভেবে এমন কিছু করি না যাতে সহজ আহত হয়। তাই আমার মধ্যেও কোনও অপরাধবোধ নেই।” মা-বাবা দুজনেই টলিউডের নামকরা তারকা। যদিও বর্তমানে তারা আলাদা থাকছেন। তবুও ছেলের সঙ্গে প্রায়শই সময় কাটাতে দেখা যায় রাহুল ব্যানার্জিকে (Rahul Banerjee)।

Priyanka Sarkar

প্রিয়াঙ্কার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে প্রশ্ন উঠলে স্বভাবতই তার প্রাক্তন স্বামী রাহুল ব্যানার্জির প্রসঙ্গ উঠতে বাধ্য। পর্দায় হোক বা বাস্তবে, রাহুল-প্রিয়াঙ্কাকে আবারও একসঙ্গে দেখতে চান দর্শক। ইতিমধ্যেই বহুবার সেই আর্জি নিয়ে তাদের দ্বারস্থ হয়েছেন অনুরাগীরা। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে ‘চিরদিনই তুমি যে আমার’ সিনেমার একটি ছবি আপলোড করেছিলেন রাহুল। সেই নিয়েও বিস্তর জল্পনা শুরু হয়েছিল। এ সম্পর্কে প্রিয়াঙ্কার কি ভাবেন? অভিনেত্রীর বক্তব্য, “কোনও পরিচালক ‘চিরদিনই তুমি যে আমার’-এর মতো ছবি বানাতে পারলে অবশ্যই রাহুলের সঙ্গে পর্দা ভাগ করব”।

অভিনেত্রী জানালেন, “রাহুলকে ব্যক্তিগত ভাবে আমি ভীষণ শ্রদ্ধা করি। বন্ধুত্ব আছে। ওর সঙ্গে আমি বড় হয়েছি। অনেক কিছু শিখেছি রাহুলের দৌলতে। আমার পছন্দ-অপছন্দ ওর থেকে বেশি আর কেউ জানে না। তার পরেও বলব, আমরা উপযুক্ত দম্পতি বা যুগল নই। সেই কারণেই ছ’বছর ধরে নিজেদের মতো করে আমরা আলাদা। এত বছর পরে এক সঙ্গে সংসার জীবনে আর ফেরা যায়?” তাই আপাতত নিজেকে পুরোপুরি কাজের মধ্যে ডুবিয়ে ফেলেছেন অভিনেত্রী। আপাতত হাতে থাকা ১০টি ছবির শুটিংয়ের কাজ নিয়ে বেজায় ব্যস্ত প্রিয়াঙ্কা।