প্রতীকের পাশে সোনামণিকে দেখতে পারতেন না, সোনামণির নতুন প্রেমের পথেও বাঁধা প্রিয়াঙ্কা

মোহরের ‘চরম শত্রু’ খড়কুটোর চিনি, সোনামণিকে দু-চোখে দেখতে পারেন না প্রিয়াঙ্কা

সদ্য স্টার জলসাতে (Star Jalsha) শুরু হয়েছে নতুন ধারাবাহিক ‘এক্কাদোক্কা’ (Ekka Dokka)। চেনা তারকাদের যুগলবন্দীতে শুরু হয়েছে এক নতুন স্বাদের ধারাবাহিক। সপ্তর্ষি মৌলিক এবং সোনামণি সাহার (Sonamoni Saha) জুটিটাকেও বেশ পছন্দ করছেন দর্শকরা। সঙ্গে রয়েছে বাংলা টেলিভিশনের একঝাঁক চেনা তারকা। রয়েছেন প্রিয়াঙ্কা মিত্রও (Priyanka Mitra)।

লীনা গাঙ্গুলীর ধারাবাহিকে বাংলা টেলিভিশনের এই মিষ্টি সুন্দরী অভিনেত্রীকে এর আগেও দেখেছেন দর্শকরা। ‘চিনি’র মতো মিষ্টি অভিনেত্রীকে লেখিকা খলনায়িকার পার্টও দিয়েছেন। মোহরের পর এবার ফের ‘এক্কাদোক্কা’তে নেগেটিভ শেডসে পাওয়া যাবে তাকে। লীনা গাঙ্গুলীর খড়কুটো ধারাবাহিকে গুনগুনের মিষ্টি ননদ আবার মোহর ধারাবাহিকে গিয়ে চরিত্রের ভোল বদলে ফেলেন। মোহরকে দুচোখে সহ্য করতে পারতেন না তিনি।

এবার নতুন ধারাবাহিকেও ফের সোনামণির সঙ্গে তার শত্রুতা! ধারাবাহিকের নায়ক পোখরাজের বোন সৃজার চরিত্রে অভিনয় করছেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি নায়িকা রাধিকা ওরফে সোনামণিকে পছন্দ করেন না। মোহর এবং এক্কাদোক্কাতে তার ভূমিকা বলতে গেলে একই। তবে অভিনেত্রী কিন্তু পূর্ণ আস্থা রাখছেন লেখিকার উপর।

সম্প্রতি আনন্দবাজারের কাছে এই বিষয়ে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘‘লীনাদি ছোট-বড় সব চরিত্রকেই ভীষণ যত্ন নিয়ে ফুটিয়ে তোলেন। ওঁর সঙ্গে কাজ করে আরাম। ওঁর মতো স্বাধীনতা আগে কোথাও পাইনি। ফলে, লীনাদির উপরে সম্পূর্ণ ভরসা আছে।’’ নিজের সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেছেন, ‘‘বাস্তবে আমি আর ‘চিনি’ এক। চরিত্রের মতোই নরম সুরে কথা বলি।

আন্তরিক, নম্র। সারা ক্ষণ হাসছি, মজা করছি। ফলে, ওই চরিত্রে অভিনয় করতে হয় না। কিন্তু যখনই লীনাদি নেতিবাচক চরিত্র দেন তখন নিজের উপরে জোর খাটাতে হয়। নিজের সঙ্গে বোঝাপড়া করতে হয়। আমায় অভিনয় করতে হয়। চরিত্র ফোটাতে গিয়ে পরিশ্রম করতে হয়। তাই রাজি হয়ে যাই।’’

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)