সম্পুর্ন নগ্ন দৃশ্যে অভিনয় করে প্রশংসিত পাওলি, ছত্রাকের সাফল্যে ভাসছেন নায়িকা

Paoli Dam at Cannes Film Festival

ফ্রান্সে আয়োজিত হয়েছে ৭৪তম কান (Cannes Film Festival) চলচ্চিত্র উত্‍সব। সারা পৃথিবী থেকে বেস্ট চলচ্চিত্রগুলি স্থান পেয়েছে এই উৎসবে। আগামী কয়েকদিন উৎসব চলবে জোর কদমে। আর উৎসবের এই মুহূর্তে স্মৃতির সাগরে ডুব দিয়েছেন টলিউড (Tollywood) তথা বলিউড (Bollywood) অভিনেত্রী পাওলি দাম (Paoli Dam)। পাওলিও প্রায় ১ দশক আগে এই চলচ্চিত্র উৎসবে যোগদান করার সুযোগ পেয়েছিলেন। তাই তার ইনস্টাগ্রামে ধরা পড়লো পুরনো সেই দিনের স্মৃতি।

সোমবার পাওলির ইনস্টাগ্রাম ওয়ালে ধরা পড়লো অভিনেত্রীর বিকিনি পরিহিত ছবি। সুদূর ফ্রান্সের সমুদ্রসৈকতে বিছানো সাদা বালির উপর পাতা রয়েছে লাল রংয়ের তোয়ালে। আর তার উপরেই হট রেড বিকিনি পড়ে সানবাথ নিচ্ছেন পাওলি। সোমবার সকাল সকাল এই ছবি ইন্সটাগ্রামের উষ্ণতার পারদ এক ধাক্কায় অনেকটাই বাড়িয়ে দিয়েছে। বলা বাহুল্য, পাওলির এই ছবি ভাইরাল হতে সময় নেয়নি।

Paoli Dam

তার ঠিক কয়েক ঘণ্টা বাদেই স্মৃতির পাতা হাতড়ে আরও একটি ছবি তুলে নিয়ে এলেন তিনি। সেখানেও লালে লাল অভিনেত্রী। লাল পেড়ে সাদা জামদানি শাড়ি, খোলা চুল, গলায় সোনার হার, প্রকৃত বাঙালিয়ানা ফুটে উঠেছে অভিনেত্রীর বেশভূষায়। এক দশক আগে যখন তিনি কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে অংশগ্রহণ করেছিলেন, তখন ঠিক এই লুকেই রেড কার্পেটে ঝড় তুলেছিলেন অভিনেত্রী। দেশ-বিদেশের ক্যামেরায় ধরা পড়েছে পাওলির এই লুক। বিদেশীরাও সেদিন মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে দেখেছিলেন এই ভারতীয় সুন্দরীকে।

পোস্টের ক্যাপশনে হ্যাশট্যাগ দিয়ে ‘কানসমেমোরিজ’ লিখেছেন পাওলি। একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন কান চলচ্চিত্র উৎসবে রেড কার্পেটে হাঁটতে পারা তার জীবনের অন্যতম সেরা মুহূর্ত হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে। প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে ‘ছত্রাক’ (Chhatrak) ছবির প্রিমিয়ারে কান চলচ্চিত্র উৎসবে হাজির হওয়ার সুযোগ পেয়েছিলেন পাওলি। এই ছবিটি পাওলির কেরিয়ারের সবথেকে বিতর্কিত এবং চর্চিত ছবি হিসেবে চিহ্নিত হয়ে থাকবে।

শ্রীলঙ্কার পরিচালক বিমুক্তি জয়াসুন্দরের পরিচালনায় এই ছবিতে ক্যামেরার সামনে সম্পূর্ণ নগ্ন হয়ে ধরা দেওয়ার সাহস দেখিয়েছিলেন পাওলি। পরে অবশ্য ইন্টারনেটে এই দৃশ্য ফাঁস হয়ে গিয়েছিল। যে কারণে চূড়ান্ত সমালোচনার সম্মুখীন হতে হয়েছিল তাকে। এমনকি পুলিশের জেরার মুখেও পড়তে হয়েছিল অভিনেত্রীকে। যদিও যথেষ্ট সাহসিকতার সঙ্গে সেই পরিস্থিতির মোকাবিলা করেছেন অভিনেত্রী।

তবে তার অভিনীত এই ছবিতে ভারতীয় সেন্সর বোর্ড ছুরি-কাঁচি চালায়। এমনকি ভারতীয় সিনেমা হলে ছবির মুক্তির উপর নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দেওয়া হয়। ‘ছত্রাক’ কোনদিনও কোনও সিনেমা হলে মুক্তি পায়নি ঠিকই, তবে এই ছবিটি যতবারই চলচ্চিত্র উৎসবে মুক্তি পেয়েছে, ততবার পাওলি প্রশংসা অর্জন করেছেন। উল্লেখ্য, পাওলির মত ভার্সেটাইল অভিনেত্রীর বেশভূষা বরাবর সাধারণের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। তা সে ‘বুলবুল’-এর ‘ছোটি বহু’ হয়ে আটপৌরে শাড়িতেই হোক, বা ‘হেট স্টোরি’র সুপার বোল্ড ‘কাব্য কৃষ্ণা’ অবতারেই হোক। টলিউড, বলিউড এমনকি আন্তর্জাতিক মহলেও চর্চিত হন অভিনেত্রী পাওলি।