লাগবে না বাবার পরিচয়, সন্তান বড় হবে মায়ের পরিচয়ে, কঠিন সিদ্ধান্ত নিলেন নুসরাত

ছেলে ঈশানের (Yishaan) জন্মের শংসাপত্রের খোঁজ নিতে কলকাতা পুরসভায় (Kolkata Municipal Corporation) হাজির সাংসদ, অভিনেত্রী নুসরত জাহান (Nusrat Jahan) ও সঙ্গী যশ দাশগুপ্ত (Yash Dasgupta) । ছেলে ইশানের জন্মের শংসাপত্রে (Yishaan Birth Certificate) শুধু মায়ের নাম রাখতে করণীয় সম্পর্কে খোঁজ নেন নুসরত।

Nusrat Jahan wants to be Single Mother inspite of Father Yash Dasgupta

পিতৃপরিচয় ছাড়াও যে সন্তানের জন্ম দেওয়া যায়, তার প্রমাণ রেখেছেন টলিউড (Tollywood) অভিনেত্রী নুসরাত জাহান (Nusrat Jahan)। সোশ্যাল মিডিয়ার নীতি পুলিশদের বুড়ো আঙুল দেখিয়েই কার্যত এমন সাহসী পদক্ষেপ নিয়েছেন অভিনেত্রী। এবার সন্তানকে নিয়ে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিলেন নুসরাত। বাবার নামে নয়, ঈশানকে (Yishaan) কেবল নিজের নামে পরিচিত করে তুলতে এবার সন্তানের বার্থ সার্টিফিকেট বের করার তোড়জোড় শুরু করলেন অভিনেত্রী।

এতদিন গর্ভজাত সন্তানের কারণে ভ্যাকসিন নেননি নুসরাত। নুসরাতের সঙ্গে তার সঙ্গী যশও এতদিন ভ্যাকসিন নেননি। সন্তানের জন্মের পর ঠিক ১৫ দিনের মাথায় করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিলেন যশরত। একই দিনে দুটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ সেরে ফেলেছেন তারা। শনিবার ভ্যাকসিন নেওয়ার পাশাপাশি ঈশানের বার্থ সার্টিফিকেটের খোঁজ নিতে কলকাতা পুরসভায় উপস্থিত হন তারা।

এদিন কলকাতা পুরসভার চেয়ারম্যান ববি হাকিমের ঘর থেকে বেরোতে দেখা যায় যশ এবং নুসরাতকে। ঈশানের বার্থ সার্টিফিকেটে কেবল নিজের নাম রাখার জন্য কী কী করনীয় তা জেনে নিয়েছেন নুসরাত। উল্লেখ্য, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশিকা অনুসারে সিঙ্গেল মাদাররা শুধু তাদের নিজের নামেই সন্তানের জন্মের শংসাপত্র বের করতে পারেন। কলকাতা পুরসভার তরফ থেকে এদিন নুসরাতকে সেটা জানানো হয়েছে।

নুসরাত যে তার সন্তানকে নিজের পরিচয়েই বড় করে তুলতে চান, আগে থেকেই তা অনুমান করছিলেন নেটিজেনরা। তাইতো সন্তানের পিতৃপরিচয় নিয়ে যতই ঝড় উঠুক না কেন, টু শব্দটিও করেননি তিনি। বর্তমান প্রেক্ষাপটে সিঙ্গেল মাদার হিসেবে জীবনের এক নতুন অধ্যায় শুরু করতে চলেছেন নুসরাত জাহান। তার এই সাহসী মনোভাবকে সমর্থন করেছেন অনেকেই। যদিও সন্তানের জন্ম মুহূর্ত থেকেই নুসরাতের পাশে পাশে থেকেছেন যশ। কিন্তু পিতৃত্বের দাবি তিনি কখনও তোলেননি।

যশ এবং নুসরাত এখন ঈশানের অভিভাবকত্ব উপভোগ করছেন। সন্তানের জন্মের ঠিক ১২ দিনের মাথাতে একটি স্যাঁলোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে সাংবাদিকদের প্রশ্নের মুখে পড়ে ঠিক এমনটাই জানিয়েছেন নুসরাত জাহান। সেখানেও কৌতুহলী মানুষের ভিড় থেকে নুসরাতের সন্তানের পিতৃপরিচয় নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। তারা সরাসরি তাকে প্রশ্ন করে বসেন, “সন্তানের বাবা কে?”

আরও পড়ুন : আর রাখঢাক নয়, ছেলে বাবার নাম প্রকাশ্যে আনলেন নুসরাত জাহান

প্রত্যুত্তরে নুসরাত জানিয়ে দেন, “বাবা কে তা বাবাই জানে”। একই প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হলেও এদিন মেজাজ হারাননি নুসরাত। বরং নিতান্তই হালকাভাবে হাসিমুখে তিনি উত্তর দেন, “সন্তানের বাবাই জানে বাবা কে। এই মুহূর্তে অভিভাবকত্ব উপভোগ করছি। আমি এবং যশ খুব ভাল সময় কাটাচ্ছি”। বার্থ সার্টিফিকেটে শুধু মায়ের নাম রাখতে চাইছেন অভিনেত্রী? তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। যদিও অভিনেত্রীর এই সাহসী পদক্ষেপকে কুর্নিশ জানাচ্ছেন সমাজের একাংশ।

আরও পড়ুন : নুসরাত একা নয়, পিতৃপরিচয় ছাড়াই বড় হচ্ছে এই টলিউড অভিনেত্রীদের সন্তান