‘এই সন্তানের বাবা আমি নই’, নুসরত ‘সন্তানসম্ভবা’ হতেই সাফ জানিয়ে দিল স্বামী নিখিল

Nusrat Jahan and Husband Nikhil Jain

সময়টা ২০১৬-র মাঝামাঝি, কলকাতার সম্ভ্রান্ত ব্যবসায়ী তথা কলকাতার গড়িয়াহাটের রঙ্গোলি শোরুমের কর্ণধার নিখিল জৈনের (Nikhil Jain) সঙ্গে আলাপ হল টলিউড (Tollywood) অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের (Nusrat Jahan)। শোরুমের বর্ষপূর্তি উপলক্ষে যে অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল, সেই অনুষ্ঠানেই প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নুসরাত। এরপর দুর্গাপুজোতে নিখিলের রঙ্গোলি শোরুমের হয়ে (Rangoli Sarees Limited) প্রচারের মুখ হিসেবে দেখা গিয়েছিল নুসরাতকে। সেই থেকেই সম্ভবত সম্পর্কের সূত্রপাত। কর্মসূত্রে যাদের আলাপ হয়েছিল, ব্যক্তিগত পরিসরেও তারা একে অন্যের প্রতি অনুরক্ত হয়ে পড়েন।

২০১৬ সালে যে সম্পর্কের সূত্রপাত হয়েছিল, ২০১৯ সালে এসে তা পরিণতি পায়। জাত-ধর্মের বেড়াজাল টপকে, পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-বান্ধবদের বাধা উপেক্ষা করে একপ্রকার সমাজের বিরুদ্ধে গিয়েই নুসরাত এবং নিখিল একে অন্যের জীবনসঙ্গী হয়ে ওঠার সিদ্ধান্ত নেন। নুসরাত এবং নিখিলের প্রেম সেই সময়  যেমন চর্চায় বিষয়বস্তু ছিল, ঠিক তেমনই চর্চার বিষয়বস্তু হয়ে উঠেছিল তাদের রাজকীয় বিয়ের আসর!

২০১৯ সালেই তুরস্কের বোদরুম শহরে তাদের বিবাহ আসর বসে। এটিই টলিউডের প্রথম ডেস্টিনেশন ওয়েডিং! প্রেম থেকে শুরু করে বিয়ে, এরপর দাম্পত্য জীবন নিয়েও চর্চায় আসতে শুরু করলেন নুসরাত এবং নিখিল। সমাজের চোখে তারা হয়ে উঠলেন “সুখী দম্পতি”! একদিকে নিখিলের ব্যবসার মুখ হয়ে উঠলেন নুসরাত, অপরদিকে নুসরাতকে খুশি রাখার জন্য “আদর্শ স্বামী” হয়ে উঠতে কার্পণ্য করলেন না নিখিল।

Nusrat Jahan and Husband Nikhil Jain

 

সবকিছু বেশ ভালই চলছিল। তবে গোল বাঁধলো ঠিক দেড় বছরের মাথায়! “কাপল গোলস”, “হ্যাপি কাপল” এর ইমেজ ভেঙে বেরিয়ে আসতে চাইলেন নুসরাত। নিখিলের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্কে থাকাকালীন তিনি নাকি বেশ বোর হয়ে যাচ্ছিলেন! তাই তো বিবাহিত জীবনের একঘেয়েমি কাটাতে নুসরাত বেছে নিলেন পরকীয়ার রাস্তা।

নিখিলের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্কে থাকার সময় কালীনই টলিউড অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হতে শুরু করেন নুসরাত। সৌজন্যে “এসওএস কলকাতা”, কারণ এই ছবির শ্যুটিং চলাকালীনই নাকি নুসরাত এবং যশের “বিশেষ বন্ধুত্বের সম্পর্ক” গড়ে ওঠে।

Tollywood Actress Nusrat Jahan Nikhil Jain Divorce

তারপরেই নিখিল এবং নুসরাতের সম্পর্কে ভাঙ্গন ধরে। বালিগঞ্জের ফ্ল্যাটে একা থাকতে শুরু করেন নুসরাত। সেই ফ্ল্যাটেই আবার তার নতুন প্রেমিকের আনাগোনাও শুরু হয়! শোনা গিয়েছিল, একুশের বিধানসভা নির্বাচনের পরেই নাকি নিখিল এবং নুসরাতের আইনগত বিচ্ছেদ হয়ে যাবে। তবে তার আগেই দেখা দিল আরেক বিতর্ক।

আরও পড়ুন : সেলিব্রিটি সুলভ বিলাসিতা নয়, রাস্তায় দরদাম করে সবজি কিনছেন নুসরত জাহান

মা হতে চলেছেন অভিনেত্রী নুসরাত জাহান। অথচ স্বামী নিখিলের সঙ্গে দীর্ঘ প্রায় ছয় মাস ধরে তার কোনও সম্পর্কই নেই! তাহলে এই সন্তান কার? এই প্রশ্নের পরিপ্রেক্ষিতে অবশ্য মৌনতা অবলম্বন করেছেন নুসরাত। তবে মুখ খুলেছেন নিখিল। নিখিলের সাফ জবাব, “আমি এই সন্তানের বাবা নই”! আনন্দবাজার পত্রিকায় এক সাক্ষাতকারে তিনি জানিয়েছেন, “আমি জানিও না নুসরত মা হতে চলেছে। এই খবর আমার কাছে আসেনি। আসার পথও বন্ধ। আর আমরা কেউ যোগাযোগ রাখি না। নুসরত আর আমি অনেকদিন থেকেই আলাদা থাকি। নয়-নয় করে ছ’মাস হয়ে গেল।”

আরও পড়ুন : ‘বউ বউয়ের মতো থাকো নাহলে তোমার ঠ্যাং ভেঙে দেব’, নুসরতকে হুমকি দিল স্বামী নিখিল

সাধারণত স্ত্রীর গর্ভধারণের খবর পেলে আনন্দে উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়েন স্বামী। তবে এক্ষেত্রে পরিস্থিতিটা কিছুটা অন্যরকম। এই সুসংবাদটি আদেও খুশিমনে গ্রহণ করতে পারছেন কি নিখিল? আনন্দবাজার ডিজিটালের কাছে তিনি জানালেন, “এখন যে নতুন সঙ্গীর সঙ্গে ও আছে, তার সঙ্গেই ভাল থাক। ঈশ্বর ওদের মঙ্গল করুন। গত ছ’মাস ওর সঙ্গে আমার সম্পর্ক নেই। আমি একজন সাধারণ মানুষ। আমার পরিবারের মূল্যবোধ নিয়ে আমি ভাল আছি”।