বাড়িতে বসেই বানিয়ে নিন ভোটার কার্ড! করে নিন ভুল সংশোধন এইভাবে

কি ভাবছেন লাইনে দাঁড়িয়ে কষ্ট করে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোটার আইডি করবেন কি করে? ভুলে যান সেসব দিনের কথা। এখন ইন্টারনেটের যুগ। তাই আর লাইনে দাঁড়িয়ে নয়, বাড়িতে বসেই কেবল এক ক্লিকেই আবেদনের করতে নতুন ভোটার আইডি কার্ডের জন্য। হ্যাঁ মনে রাখবেন কেবল ভোটার আইডি কার্ড নতুন করার ক্ষেত্রেই নয়, স্থান পরিবর্তন ও হারিয়ে গেলেও নতুন করে করতে পারেন বাড়িতে বসেই।

কাজের চাপে ভোটার কার্ড হারিয়ে গেলে বা সংশোধন বা স্থানান্তরিত জায়গা যোগ করার ক্ষেত্রে আর ঝামেলা নয়। প্রথমেই লগইন করুন নির্বাচন কমিশনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে। সাইটটি হলো https://www.nvsp.in

তারপর আপনি যা করতে চাইছেন অর্থাৎ নতুন ভোটার আইডি কার্ড, আইডি কার্ড হারানোর পর নতুন করে করা অথবা সংশোধন বা স্থানান্তরিত হওয়া জায়গার নাম যোগ এগুলি সব পর পর অপশন পাবেন। আপনার যেটি দরকার সেটিতে ক্লিক করুন।

এরপর আপনার সামনে খুলে যাবে নিদির্ষ্ট একটি ফর্ম। সেই ফর্মে সমস্ত কিছু ভালো করে পড়ে সঠিক ভাবে পূরণ করুন। কিছু ভুল দিবেন না। ভুল দিলে আপনার কার্ডে ভুলই চলে আসবে।

আরও পড়ুন ঃ ভোটার কার্ড কীভাবে সংশোধন (অনলাইন / অফলাইন) করবেন ?

এগুলি ফিলাপ করার পর আপনি দেখতে পাবেন, আপনাকে আপলোড করতে বলা হবে কিছু প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট যেগুলি অত্যাবশ্যক। মনে রাখবেন ১৮ বছর না হলে এপ্লিকেশন করবেন না, কারন ১৮ বছর ছাড়া ভোটার আইডি কার্ড সম্ভব নয়। সংশোধন বা অন্যান্য কিছুর জন্যও প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টগুলি আপলোড করুন। যেমন ছবির স্ক্যান কপি, বয়সের প্রমান পত্র, ঠিকানার প্রমাণপত্র ইত্যাদি।

এগুলি আপলোড করার পর আর কিছু করতে হবে না। আপনি একটি এনরোলমেন্ট নাম্বার পাবেন, সেটি রেখে দিবেন এবং অপেক্ষা করুন। আপনার যদি সমস্ত ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন করার পর সঠিক হয় তাহলে এক মাসের পরে বাড়িতে বসেই নতুন ভোটার আইডি কার্ডটি পেয়ে যাবেন।