ফাঁস হয়ে গেল দেবতুল্য বাবার আসল চরিত্র, সহচরীতে আসছে জমজমাট টুইস্ট

কঠিন সত্যের মুখোমুখি টিপু, চোখের সামনে ফাঁস হয়ে গেল বাবার কুকীর্তি

স্টার জলসার (Star Jalsha) ‘আয় তবে সহচরী’ (Aay Tobe Sohochori) ধারাবাহিকে আসছে বড় টুইস্ট। এতদিন চোখে আঙ্গুল দিয়ে সত্যিটা দেখানোর চেষ্টা করলেও দেবিনা এবং সমরেশের সম্পর্কের আসল সত্য টিপুর সামনে তুলে ধরতে পারেনি বরফি। তবে দেবিনা এবং সমরেশকে একান্তে একসঙ্গে দেখে তার সব ভুল ভেঙেছে। সে এতদিন বাবাকে দেবতুল্য বলে জেনে এসেছে। বাবার আসল চেহারা জানার পর তার পায়ের তলা থেকে যেন মাটি সরে গেল।

দেবিনা এবং সমরেশের মধ্যে সম্পর্কটা শিক্ষক-ছাত্রীর সম্পর্কের থেকেও অনেক কদম এগিয়ে। এতদিন এই সম্পর্ককেই হাতিয়ার করে সহচরীকে অপদস্থ করার চেষ্টা চালিয়ে এসেছে দেবিনা। তবে বরফি প্রতি পদে পদে দেবিনাকে উপযুক্ত জবাব দিয়েছে। সে সইমার অপমান সহ্য করতে পারে না। টিপুকেও আসল সত্যিটা জানাতে চেষ্টা করেছিল বরফি। তবে তাতে সে ব্যর্থ হয়েছিল।

অবশেষে দেবিনা এবং সমরেশের সম্পর্ক নিয়ে টিপুর ভুল ভাঙলো। বরফির থেকে অপমানিত দেবিনা ক্ষোভে ফেটে পড়ে সমরেশের উপর। সকলের অলক্ষ্যে একা একটি ঘরে দেবিনা সমরেশের কাছে বিচার চায়। রাগে-অপমানে সে সমরেশের সঙ্গে এমন ব্যবহার করতে শুরু করে যে দরজার বাইরে দাঁড়িয়ে টিপু বুঝে নেয় তার বাবা এবং তার ছাত্রীর মধ্যে সম্পর্কটা আর পাঁচটা শিক্ষক-ছাত্রীর সম্পর্কের মতো স্বাভাবিক নয়।

আসল সত্যিটা যখন টিপুর সামনে উঠে আসে তখন টিপুর পায়ের তলা থেকে মাটি সরে যায়। বরফি সেই সময় টিপুকে দেখে বুঝে ফেলে তার মনের অবস্থাটা। টিপুও বরফির প্রতিটা কথার মানে বুঝতে পারে। এই পর্বের জন্য এতদিন অপেক্ষা করে বসেছিলেন দর্শকরা। তাদের আশা এবার টিপু তার মায়ের পাশেই দাঁড়াবে। তবে টিপুর মনের অবস্থা বুঝতে পেরে নেটিজেনদেরও মন খারাপ হয়ে যায়।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

নেটিজেনদের মধ্যে থেকে কেউ লিখলেন, “টিপুকে দেখে খুব খারাপ লাগছে। ওর মনের মধ্যে কত ব্যাথা বেদনা একমাত্র ও নিজেই জানে। তবে টিপুর সামনে বাবার আসল রূপটি প্রকাশ হাওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। এবার টিপু পাশে থাকলে সহচরী ও বরফি আরও বেশি সাহস পাবে দেবিনাকে তাড়ানোর জন্য। দারুন হচ্ছে”। কেউ লিখছেন, “অনেক দিন ধরে এই টা দেখার অপেক্ষায় ছিলাম ৷এই বার মা তার ছেলের কাছে যোগ্য সম্মান পাবে ৷এটা আশা রাখায় যায়”।