বিয়ের আগেই প্রেগনেন্ট! বিখ্যাত ক্রিকেটারের প্রেমে পড়ে ডুবে গেল এই অভিনেত্রীর কেরিয়ার

বিয়ের আগেই প্রেগন্যান্ট, বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে সহবাস! বলিউড থেকে হারিয়ে যান এই অভিনেত্রী

শুধু পোশাকের দিক থেকে নয়, ব্যক্তিত্বের দিক থেকে যদি সাহসী কোন অভিনেত্রীর কথা আমাদের বলতে হয় তাহলে অবশ্যই বলতে হবে নীনা গুপ্তার (Neena Gupta) কথা। বিয়ে না করেই প্রেগনেন্ট, বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক, এই সব কিছুই নীনাকে বারবার অপরাধীর কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে দিয়েছিল। নিজের জীবনের সমস্ত কঠিন পরিস্থিতির সঙ্গে তিনি কিভাবে লড়াই করেছিলেন সেটাই জানবো আজ।

ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান ক্রিকেটার ভিভিয়ান রিচার্ডের সঙ্গে একটি সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল অভিনেত্রীর, যা কখনো গোপন করেনি তিনি। ১৯৮৯ সালে মাত্র ৩০ বছর বয়সে তিনি একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন এবং নিজেকে পরিচয় দেন একজন সিঙ্গেল পেরেন্ট হিসেবে। ক্রিকেটারের সঙ্গে সম্পর্কের কথা স্বীকার করলেও রিচার্ড ছিলেন বিবাহিত তাই তার সঙ্গে আর ঘর বাঁধা হয়নি অভিনেত্রীর।

NEENA GUPTA

অভিনেত্রী যখন প্রেগন্যান্ট হয়েছিলেন, তখন তার কেরিয়ার ছিল তুঙ্গে, কিন্তু তিনি নিজের ক্যারিয়ারের কথা না ভেবে গর্ভের সন্তানকে বাঁচিয়ে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। যদিও এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে তিনি প্রেমিক ভিভিয়ান রিচার্ডকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন, তিনি কি করবেন তখন ক্রিকেটার বলেছিলেন, “আমি চাই তুমি এই সন্তানকে রাখো।” রিচার্ড সম্মতি দিলেও নীনার পরিবার এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ছিলেন, যদিও পরবর্তীকালে অভিনেত্রীর পিতা সম্মতি জানিয়েছিলেন এই সিদ্ধান্তে।

হিউম্যানস অফ বোম্বেকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে অভিনেত্রী বলেছিলেন, “আমি এটা জেনে খুশিতে ডগমগ হইনি, কিন্তু আমি খুশি যে আমি ডিভিয়ানকে ভালবেসেছিলাম। আমি গর্ভাবস্থার কথা জানতে পেরে যখন ভিভিয়ানকে ফোন করে জিজ্ঞাসা করেছিলাম সে এই সন্তান চায় কিনা? উত্তরে ভিভিয়ান বলেছিল, রাখলে ভালো লাগবে। তখন সবাই ভেবেছিল আমি একা কিছুই করতে পারব না কিন্তু আমি পেরেছি। আসলে প্রেমে অন্ধ হয়ে গেলে কেউ কারোর কথা শোনে না।”

NEENA GUPTA

তবে গোটা প্রেগনেন্সিতে নীনা গুপ্তা আরও একজন মানুষকে ভীষণভাবে পাশে পেয়েছিলেন এবং তিনি হলেন প্রয়াত অভিনেতা সতীশ কৌশিক। সতীশ কৌশিক ছিলেন অভিনেত্রীর ভীষণ ভালো বন্ধু। অভিনেত্রীর এই কঠিন সময়ে সতীশ তাকে বলেছিলেন,”তুমি এক কাজ কর আমাকে বিয়ে করে নাও। আমিও তো কালো। কেউ বুঝতে পারবে না এটা কার সন্তান।”এক বন্ধুর বিপদের সময় এমন কথা বলতে পারে শুধুমাত্র এক প্রকৃত বন্ধুই।

আরও পড়ুন : ৫০ পেরিয়ে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন এই সেলিব্রেটিরা, রয়েছেন এক বাঙালিও

MASABA AND NEENA GUPTA

আরও পড়ুন : বিয়ের আগেই প্রেগন্যান্ট! লজ্জার মাথা খেয়ে পরিবারের মুখে চুনকালি দিয়েছেন এই ৮ বলিউড নায়িকা

চিরকালই ছক ভাঙা কাজ করে এসেছেন তিনি। নীনা গুপ্তা বোধ হয় প্রথম কোন অভিনেত্রী যিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন, “আমি মুম্বাইতে থাকি এবং আমি একজন ভালো অভিনেতা। আমি ভালো কাজের সন্ধান করছি।”৬৪ বছর বয়সে যখন প্রায় প্রত্যেক অভিনেত্রীর কেরিয়ার শেষ হয়ে যায় তখন নীনা নিজেকে নতুন ভাবে খুঁজে পান।অভিনেত্রীর একমাত্র মেয়ে মাসাবা গুপ্তা একজন বিখ্যাত ফ্যাশন ডিজাইনার।