তাকানোর ধরন থেকে হাবভাব সবটাই যেন নতুন, বিয়ের পরেই বদলে গেল মিঠাই

বিয়ের পরে মিঠাইয়ের আচরণে ব্যাপক পরিবর্তন, কেমন যেন বউ বউ আচরণ করছে মিঠাই!

0
Mithai Sidhartha

সম্প্রতি সিদ্ধার্থ-মিঠাইয়ের (Mithai) জীবনের নতুন সূচনা হয়েছে। মিঠাইকে নিজের স্ত্রী হিসেবে মন থেকে মেনে নিয়েছে সিদ্ধার্থ। বহু বাধা-বিপত্তি কাটিয়ে শেষমেষ বিয়েটা হলো। মিঠাই এবং সিদ্ধার্থকে এবার পাকাপাকিভাবে সাত পাকে বাঁধা পড়তে দেখে দর্শকও বেজায় উৎসাহিত। তবে বিয়ের পর মিঠাইকে নিয়ে কার্যত কিছুটা অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছে সিদ্ধার্থ। কারণ বিয়ের পর আর সেই পুরনো ‘তুফান মেইল’ রইলো না মিঠাই।

মিঠাইকে সেই প্রথম দিন থেকেই কার্যত ছটফটে, প্রাণোচ্ছল‌ দেখে এসেছে সিদ্ধার্থ। যার হাতে-পায়ে নেই কোনও কন্ট্রোল! সেই মেয়ে এখন নতুন বউদের মত ধীর পায়ে হাঁটছে! যে যা বলছে তাই শুনছে! এমনকি বিয়ের রীতি রেওয়াজ মানতে গিয়ে লজ্জাও পাচ্ছে! এসব কার্যত সিদ্ধার্থের চোখে নতুন। তাই আচমকা মিঠাইয়ের চরিত্রগত পরিবর্তন দেখে কার্যত মাথা ঘুরে গিয়েছে উচ্ছেবাবুর!

ভাত-কাপড়ের অনুষ্ঠানেও দেখা গেল আগের তুলনায় অনেক খানি শান্ত হয়ে গিয়েছে মিঠাই। মিঠাইকে সবসময় ছটফট আর দুষ্টুমি করতে দেখে অভ্যস্ত সিদ্ধার্থ। বউয়ের এই শান্ত চেহারার সঙ্গে তাই সে বিশেষ মানিয়ে নিতে পারছে না। তাইতো এই নিয়ে সরাসরি মিঠাইকেই প্রশ্ন করে বসে সে। যদিও প্রশ্ন শুনেই চটে যায় মিঠাই। আবারও পুরনো মূর্তি ফিরে পায় সে।

উচ্ছে বাবুর সঙ্গে আবারও সেই ঝগড়ার সুরেই কথা বলতে থাকে মিঠাই। যা দেখে কার্যত দর্শক আবারও বেশ মজা পেয়েছেন। আসলে মিঠাই-সিদ্ধার্থের খুনসুটি, তাদের মজার মজার ঝগড়ার দৃশ্যগুলিই ধারাবাহিকের অন্যতম ইউএসপি হিসেবে কাজ করে। তাই তো মিঠাইকে আচমকা অন্য রকম আচরণ করতে দেখে সিদ্ধার্থ খানিক অবাকই হয়েছিল।

তবে সিদ্ধার্থের উপর রাগ করে ভাত-কাপড়ের অনুষ্ঠানে মিঠাই আবার নিজের পুরনো ফর্মে ফিরলো। সে প্রণাম করার ছলে সিদ্ধার্থের পায়ে চিমটি কেটে দেয়। সিদ্ধার্থও মজার ছলে ‘মিঠাই’কে বৌমা বলে সম্বোধন করে। এই মজার মজার দৃশ্য দেখে নেটিজেনরা তো হেসে কুটোপাটি।

আবার মিঠাই সিদ্ধার্থের ফুলশয্যা দৃশ্যেও ছিল চমক। সেই রাতে বউকে সোনার হার বা আংটি গিফট না করে সিদ্ধার্থ মিঠাইয়ের হাতে তুলে দেয় সোনার মেডেল! খবর জানতে পেরে পরদিন কার্যত বাড়িতে হুলুস্থুল কান্ড বেঁধে যায়। যদিও সম্পূর্ণ এপিসোড বেজায় উপভোগ করেছেন দর্শক।