মিঠাই থেকে উচ্ছেবাবু, বাংলার তারকাদের সঙ্গে ঘটে গেল বড় অঘটন, মাথায় হাত টলিউডের

বাংলার সব তারকাদের মাথায় হাত, রাতারাতি সকলের সঙ্গেই ঘটে গেল বড় অঘটন

বাংলা সিরিয়াল (Bengali Mega Serial) এবং টলিউড তারকারা সম্প্রতি পড়েছেন মহা ফাঁপরে। রাতারাত তাদের সঙ্গে ফেসবুকে (Facebook) ঘটে গেল এক বড় অঘটন। বর্তমানে ভক্তদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার জন্য তাদের একমাত্র ঠিকানা হয়ে উঠেছে ফেসবুক-ইনস্টাগ্রামের মত প্ল্যাটফর্মগুলো। সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়া তাদের কার্যত এক মুহূর্তও চলে না। অথচ সেখানেই কিনা এক বড়সড় সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাদের।

‘মিঠাই’ ধারাবাহিকের সৌমিতৃষা কুন্ডু, আদৃত রায় থেকে শুরু করে ‘আয় তবে সহচরী’র কনীনিকা ব্যানার্জী, ‘করুণাময়ী রানী রাসমণি’র দিতিপ্রিয়া রায়, সকলের সঙ্গেই ঘটেছে এই একই ঘটনা। রাতারাতি ফেসবুকে তাদের ফলোয়ারের সংখ্যা তলানিতে এসে ঠেকেছে। এমনটা কেন হল, কীভাবে ঘটল বুঝতে পারছেন না কেউই।

তবে শুধু যে টলিউডের অভিনেতা-অভিনেত্রীদের সঙ্গেই এমনটা ঘটেছে ব্যাপারটা এরকম নয়। এমনই এক অবস্থা সম্মুখীন হয়েছেন বলিউড তারকা আশুতোষ রানাও। এমনকি ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গও বাদ যাননি। রাতারাতি তারও ফলোয়ারের সংখ্যা হু হু করে নেমে গিয়েছে।

আজ সকালেই তারকারা লক্ষ্য করেন তাদের ফেসবুকে ফলোয়ারের সংখ্যা ৯ হাজারের কাছাকাছি নেমে এসেছে। এদের প্রত্যেকেরই ফলোয়ার্সের সংখ্যা ছিল লাখের উপরে। কারও কারও ক্ষেত্রে তো আবার সংখ্যাটা ৪ লাখ ৫ লাখ থেকে ১০ লাখের উপরেও ছিল। সেই জায়গায় মোটে ৯ হাজারে এসে ঠেকেছে অনুরাগীদের সংখ্যা।

ব্যাপার দেখে তো রীতিমত মন খারাপ হয়ে গিয়েছে তারকাদের। তবে সকলের সঙ্গেই যে এরকম হয়েছে তাও নয়। যেমন শ্রীলেখা মিত্রের ফলোয়ার্স যেমন ছিল তেমনই আছে। তবে বেশিরভাগ তারকাদের সঙ্গেই এই অঘটন ঘটে গিয়েছে। শুধু তারকারা নয়, সোশ্যাল মিডিয়াতে যারা বেশ জনপ্রিয়, যাদের ফলোয়ার্সের সংখ্যা প্রচুর তাদের সঙ্গেও একই ঘটনা ঘটে গিয়েছে।

এর কারণ নিয়ে বেশ চিন্তায় পড়ে গিয়েছেন সকলে। কেউ কেউ মনে করছেন ফেসবুকের কোনও আভ্যন্তরীণ গোলযোগের কারণেই এই কাণ্ড ঘটেছে। আবার অনেকেই বলছেন ফেসবুক সম্ভবত ভুয়ো অ্যাকাউন্টগুলোকে মুছে ফেলতে চাইছে। এর আগে টুইটারের ক্ষেত্রেও এরকম হয়েছিল। তবে সকলেই চাইছেন বিষয়টি যত দ্রুত সম্ভব সমাধান হোক। তারকারা আবার তাদের পুরনো ফলোয়ার্স ফিরে পাবেন কিনা সেই নিয়ে যথেষ্ট দুশ্চিন্তায় রয়েছেন।