মমতার মন্ত্রীসভায় জায়গা হলো না এই মন্ত্রীদের, ছাঁটাই করা হলো নাম

অবশেষে তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর পদে শপথ নিলেন মমতা ব্যানার্জী। বাংলার রাজনৈতিক ইতিহাসে তৈরি হল এক নয়া অধ্যায়। বিপুল জনসমর্থন নিয়ে তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নিলেন মমতা ব্যানার্জী। “জননেত্রী’কেই ফের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে পেলেন বাংলার মানুষ। বুধবার রাজভবনে তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান রাজ্যপাল। তৃতীয়বারের জন্য বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণের পর থেকেই মমতার মন্ত্রীসভায় কারা আসতে পারেন তা নিয়ে জোড় জল্পনা চলছিল দিন কয়েক ধরেই।

অবশেষে রবিবার সেই জল্পনার অবসান ঘটিয়ে মমতার মন্ত্রীসভার মন্ত্রী এবং প্রতিমন্ত্রীদের নাম প্রকাশ্যে আনা হল আজ। প্রকাশ্যে আসে ৪৩ জন মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর নাম যারা আগামীকাল রাজভবনে শপথ নেবেন। ৪৩ জন মন্ত্রীর মধ্যে পূর্ণমন্ত্রী ২৪ জন, বাকি ১৯ জন প্রতিমন্ত্রী। এদের মধ্যে ১০ জন পাচ্ছেন স্বাধীন দফতর। মন্ত্রীর তালিকায় এ বার ১৭ জন নতুন মুখ দেখা যাবে। প্রার্থী না হলেও মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে চলেছেন প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র।

যে ৪৩ জন মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীর নাম সামনে এসেছে তাদের মধ্যে অধিকাংশ পুরাতন বিধায়ক এবং দলের পুরাতন সৈনিক হলেও সদ্য রাজনীতিতে পা রাখা এবং বিধায়ক হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠিত করা মনোজ তিওয়ারি এবং বীরবাহা হাঁসদাকে প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে। তবে উল্লেখযোগ্য হবে এই তালিকা থেকে বাদ পড়েছেন বেশ কয়েকজন দলের বিশ্বাসযোগ্য সৈনিক। যাদের মন্ত্রীত্ব পাওয়ার নিয়ে জোড় জল্পনা চলছিল।

মদন মিত্র : দলের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সৈনিক তৃণমূলের প্রথম জামানায় পরিবহন মন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন। এবারও তিনি এই দায়িত্ব ফিরে পাবেন বলে মনে করা হচ্ছিল। কিন্তু তাকে মন্ত্রীসভায় ঠাঁই দিলেন না মমতা। মদন মিত্র চিটফান্ড কাণ্ডে অতীতে প্রায় সাড়ে তিন বছর জেল খেটেছেন। সেই মামলার নিষ্পত্তি এখনও হয়নি। মনে করা হচ্ছে এই কারণেই তাকে মন্ত্রীসভায় ফেরালেন না মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তাপস রায় : কামারহাটির পাশের আসন বরাহনগরের বিধায়ক তথা প্রবীণ নেতা তাপস রায় বিধানসভা উপ মুখ্য সচেতক ছিলেন। এছাড়াও তিনি ছিলেন প্রতিমন্ত্রী। তার স্বচ্ছ ভাবমূর্তি থাকলেও তাকে এবারের মন্ত্রীসভায় জায়গা দেওয়া হয়নি।

নির্মল মাঝি : মন্ত্রীসভা থেকে বাদ পড়লেন বিধায়ক নির্মল মাঝি। গত পর্যায়ে তিনি মন্ত্রী থাকাকালীন তার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছিল। যে ঘটনায় খুবই অসন্তুষ্ট হয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মনে করা হচ্ছে এই কারণেই তাকে এবারের মন্ত্রীসভায় জায়গা দেওয়া হয়নি।

আশিস বন্দোপাধ্যায় : প্রাক্তন কৃষিমন্ত্রী আশিস বন্দোপাধ্যায় বাদ পড়লেন মন্ত্রীসভা থেকে। তিনি এর আগে কৃষি মন্ত্রীত্ব ছাড়াও একাধিক গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলেছেন। তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মন্ত্রীসভা গঠনের প্রথম ভাগে তার নাম থাকেনা। পরে মন্ত্রীসভা সম্প্রসারণের সময় তার নাম আসে মন্ত্রী হিসেবে।

আরও পড়ুন : প্রকাশ্যে এলো মমতার ৪৩ জন মন্ত্রীর নাম, একাধিক চমক মন্ত্রীতালিকায়

এছাড়াও যারা মন্ত্রীসভা থেকে বাদ পড়েছেন তারা হলেন অসীমা পাত্র, মন্টু রাম পাখিরা, গিয়াসউদ্দিন মোল্লা, তপন দাশগুপ্ত। অন্যদিকে জঙ্গিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে যেহেতু এখনও ভোট হয়নি তাই ওই বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী তথা প্রাক্তন মন্ত্রী জাকির হোসেন মন্ত্রীসভায় ফিরতে পারলেন না।