অবশেষে যোগ্য সম্মান পেল বর্ধমানের মিলন, স্টুডিওতে রেকর্ড হল গান

বাদাম কাকুর পর ভাগ্য খুলে গেল মিলনের, অবশেষে এতদিনে পেলেন যোগ্য সম্মান

রানু মন্ডল, ভুবন বাদ্যকররা প্রমাণ করেছেন যদি যোগ্যতা থাকে তাহলে দেরিতে হলেও ফেরে সুদিন। তাদের দলেই নাম লিখিয়েছেন পূর্ব বর্ধমানের মিলন কুমার (Milan Kumar)। ভাইরাল গায়কদের ভিড়ে তিনিও একজন প্রখ্যাত গায়ক হয়ে উঠেছেন অল্প কিছুদিনের মধ্যে। আজ গোটা বাংলা তার গান শুনছে। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে এবার তার ভাগ্যও বদলাতে চলেছে।

পূর্ব বর্ধমানের ২ নম্বর ব্লকের অন্তর্গত নিত্যানন্দপুরের বাসিন্দা মিলন কুমার। তিনি কখনও কোনও নামী গুরুর কাছে তালিম নেননি। তারপরেও তার গলায় অসাধারণ সুর ঝরে পড়ে। কে কে, কিশোর কুমার থেকে কুমার শানুদের দুর্দান্ত সব গান শোনা যায় তার কন্ঠে।

Milan Kumar

ছোটবেলা থেকে বাবার কাছেই অল্প বিস্তর গান শিখেছিলেন তিনি। নিম্নবিত্ত পরিবারের হাল ধরার জন্য খুব ছোটবেলাতেই তাকে উপার্জনের রাস্তা খুঁজে নিতে হয়। তবে গানের মাধ্যমেই তিনি উপার্জন করতে শুরু করেন। লোকাল ট্রেনে গান শোনানোই তার পেশা হয়ে ওঠে।

এই ভাবে লোকাল ট্রেনে গান করতে করতেই একদিন তার গান ভাইরাল হয়ে যায়। বর্তমানে তার নাম ডাক ছড়িয়ে পড়েছে গোটা বাংলায়। ধীরে ধীরে বেড়েছে তার জনপ্রিয়তা। এখন বাদাম কাকু, রানু মন্ডলদের মত তিনিও একজন ভাইরাল গায়ক।

ভাইরাল হওয়ার সুবাদে ইতিমধ্যেই সুদিন ফিরতে শুরু করেছে তার। বীরভূমের গোধূলি বেলা মিউজিক সংস্থার সঙ্গে জোট বেঁধে ইতিমধ্যেই একটি গান রেকর্ডিং করে ফেলেছেন তিনি। তার এই নতুন গানের নাম, ‘নতুন কথা নতুন সুর’। গানের রেকর্ডিং হয়ে গেলেও এখনও এই গানটি মুক্তি পায়নি।

একসময় ট্রেনে গান ফেরি করে কষ্টেসৃষ্টে দিন চলতো তার। লোকাল ট্রেনের কামরাকে মঞ্চ করে নামিদামি তারকাদের গান শোনাতেন মিলন। আজ তিনি নিজের গান গাইছেন। দুদিন বাদেই মুক্তি পাবে তার গানের ভিডিও। তখন সারা বাংলা শুনবে মিলন কুমারের গান, এই গানের উপর অধিকার একান্তই তার নিজের।