বাইরে বেরোলেই বাধ্যতামূলক মাস্ক, নিয়ম ভাঙলেই কড়া ব্যবস্থা

করোনা রুখতে সিল হচ্ছে একাধিক এলাকা, লকডাউন আর সিলের পার্থক্য কি

বাইরে বের হলেই বাধ্যতামূলকভাবে ব্যবহার করতে হবে ফেস মাস্ক, পাশাপাশি বজায় রাখতে হবে সামাজিক দূরত্ব। আর এমন নিয়ম অমান্য করলে অর্থাৎ নিয়ম ভাঙলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এই মর্মে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে নবান্নের তরফ থেকে। স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এই নির্দেশিকা জারি করেছেন।

নবান্ন দ্বারা প্রকাশিত নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, করোনা মহামারী থেকে বাঁচতে রাস্তায় অথবা প্রকাশ্য স্থানে বেরোলেই বাধ্যতামূলকভাবে ব্যবহার করতে হবে ফেস মাস্ক। পাশাপাশি বজায় রাখতে হবে সামাজিক দূরত্ব। আর এমনটা না মানা হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

গতকাল অর্থাৎ জুলাই মাসের ২ তারিখে স্বরাষ্ট্রসচিব কর্তৃক এই নির্দেশিকার প্রতিলিপি পাঠানো হয়েছে প্রতিটি জেলার জেলাশাসক এবং পুলিশ আধিকারিকদের।

সংকটের মাঝেই অবশেষে স্বস্তির খবর, করোনামুক্ত পশ্চিমবঙ্গের দুই জেলা

আধিকারিকদের পাঠানো এই নির্দেশিকা আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রাস্তায় অথবা প্রকাশ্য স্থানে কোন ব্যক্তিকে ফেস মাস্ক না পড়া অবস্থায় দেখতে পেলে তাকে যেন ফিরিয়ে দেওয়া হয়। আর ওই ব্যক্তি একাধিকবার নিয়ম ভঙ্গ করলে বা আইন না মানলে তার বিরুদ্ধে যেন কঠোর আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হয়।

বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশের করোনা পরিস্থিতি বেশ উদ্বেগজনক। ৬ লাখ পেরিয়ে গেছে আক্রান্তের সংখ্যা। শুধু দেশ নয় রাজ্যের পরিস্থিতিও দিন দিন উদ্বেগজনক হয়ে উঠছে। বর্তমানে রাজ্যে মোট করোনা সংক্রামিতের মোট সংখ্যা পৌঁছে গেছে ১৯ হাজার ৮১৯ এ।

আর এই পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাটা খুবই জরুরি বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে বিশেষজ্ঞরা এমনটা মনে করলেও জেলার বিভিন্ন প্রান্তে নিয়মকে যে বুড়ো আঙ্গুল দেখানো হচ্ছে তাও স্পষ্ট।