বলিউডের সবথেকে অশিক্ষিত পরিবার! ভাট পরিবারে কে কতটা শিক্ষিত, জানলে চমকে যাবেন

পরিবারের সবাই নামী দামী সুপারস্টার, ভাট পরিবারের শিক্ষাগত যোগ্যতা জানলে চমকে যাবেন

বচ্চন পরিবার, কাপুর পরিবারের মতই বলিউডের (Bollywood) সুপারস্টার পরিবার হল মহেশ ভাটের (Mahesh Bhatt) পরিবার। বিশেষত পরিচালক মহেশ ভাট এবং তার দুই কন্যা পূজা ভাট (Puja Bhatt) ও আলিয়াকে (Alia Bhatt) চেনেন না এমন মানুষ এই দেশে প্রায় কেউ নেই বললেই চলে। অভিনয় এবং ছবি পরিচালনার সুবাদে ভাট পরিবারের সদস্যরা বেশ সুনাম পেয়েছেন তবে তারা কে কতদূর পড়াশোনা করেছেন জানেন কি?

ভারতীয় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে একজন পরিচালক প্রযোজক এবং চিত্রনাট্যকার হিসেবে যথেষ্ট সুনাম অর্জন করেছেন মহেশ ভাট। তিনি খুব বেশিদূর পর্যন্ত পড়াশোনা করেননি। মহেশ ভাট মাটুঙ্গার ডন বসকো হাই স্কুল থেকে পড়াশোনা করেন এবং তারপর তিনি পড়াশোনা ছেড়ে দিয়ে পুরোপুরি ফিল্ম দুনিয়াতে কাজে নেমে পড়েন। একজন অ্যাসিস্ট্যান্ট ডিরেক্টর হিসেবে তার কেরিয়ার শুরু হয়েছিল।পরে তিনি পরিচালক হিসেবে অনেক সুনাম অর্জন করেন।

mahesh bhatt shahin bhatt alia bhatt

মহেশ ভাট এবং তার দ্বিতীয় স্ত্রী সোনি রাজদানের বড় মেয়ে হলেন শাহীন ভাট। তিনি মুম্বাইয়ের একটি স্থানীয় স্কুল থেকে পড়াশোনা করেন। ছোটবেলা থেকেই তিনি সাহিত্য এবং কবিতা চর্চা করতেন। এরপর তিনি যুক্তরাজ্য বা ইউনাইটেড কিংডম থেকে এডিটিং এবং ফিল্ম মেকিংয়ের উপর পড়াশোনা করেন। শাহীন তার বোন আলিয়ার মত অভিনয়কে পেশা হিসেবে বেছে নেননি।

মহেশ এবং সোনির একমাত্র পুত্র সন্তান হলেন রাহুল। তিনি শাহিন এবং আলিয়ার একমাত্র ভাই। তিনি স্কুলের পাঠ শেষ করে মুম্বাইয়ের একটি কলেজে ভর্তি হন। রাহুল এরপর ইউনাইটেড স্টেটসের একটি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পুষ্টিবিদ্যার উপর উচ্চশিক্ষার জন্য পড়াশোনা চালিয়ে যান। বড় মেয়ে পূজা বলিউডের একজন সফল অভিনেত্রী। তিনি মহেশ এবং তার প্রথম পক্ষের স্ত্রী কিরণের মেয়ে।

পূজা ভাট খুব কম বয়সেই পড়াশোনা ছেড়ে পুরোদস্তর অভিনয়ে মন দেন। তিনি মুম্বাইয়ের এ এফ পেটিট হাই স্কুল থেকে পড়াশোনা করছিলেন। অভিনয়ের টানে স্কুল পাশ করার আগেই পূজা পড়াশোনা ছেড়ে দেন। পরে বলিউডে তিনি তার সকল কেরিয়ার গড়ে তুলেছিলেন। দিদির মতই আলিয়াও পড়াশোনার চেয়ে অভিনয়ের প্রতিই বেশি আকৃষ্ট ছিলেন।

মুম্বাইয়ের জামনাবাই নার্সি স্কুলে ভর্তি হয়েছিলেন আলিয়া। তবে ১২ ক্লাস পেরোনোর আগেই বলিউডে প্রবেশের সুযোগ এসে যায় তার হাতে। করণ জোহরের ‘স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার’ ছবির হাত ধরে বলিউডে তার অভিষেক হয়। এরপর তিনি আর পড়াশোনা করেননি। তার বদলে গত প্রায় ১০ বছর ধরে একের পর এক সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করে আলিয়া দেশের প্রথম সারির নায়িকাদের মধ্যে জায়গা করেছেন।