মা লক্ষ্মী কোন বাড়িতে থাকেনা? লক্ষ্মী নারী চিনবেন কীভাবে

মা লক্ষ্মী কোন বাড়িতে থাকেন? লক্ষ্মী নারী চিনবেন কীভাবে

প্রত্যেক মানুষই চায় তার বাড়িতে মা লক্ষ্মীর কৃপা যেন সর্বদাই বর্ষণ করেন। কিন্তু মা লক্ষ্মী যে চঞ্চলা, চপলা। তিনি এক জায়গায় স্থিতু হয়ে বেশিক্ষণ থাকতে পারেন না। তিনি খুব কম ভক্তের বাড়িতে স্থিতি হয়ে অধিষ্ঠান করেন। তার জন্য দরকার হয় বিশেষ কিছু অনুকূল পরিবেশ।

কোন বাড়িতে তার কৃপা বর্ষণ হবে সেটা নির্ভর করে সেই বাড়ির মানুষের স্বভাব, চরিত্র এবং অন্যান্য অনেক কিছু বিষয়ের উপর। আজকের প্রতিবেদনে আমরা তুলে ধরব সেরকমই কিছু বিশেষ বৈশিষ্ট্য, যার মধ্যমে আপনি জানতে পারবেন মা লক্ষ্মী কোন বাড়িতে থাকেনা? এবং লক্ষ্মী নারী চেনার উপায়।

মা লক্ষ্মী সবার ঘরেই অধিষ্ঠান করেন না। তবে ভক্তি ভরে এবং শুদ্ধমনে কিছু নিয়ম মেনে মা লক্ষ্মীর আরাধনা করলে সেই বাড়িতে মা স্থায়ীভাবে বসবাস করেন। ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ অনুযায়ী আমরা জানতে পারি লক্ষ্মী দেবীর কোন কোন স্থান প্রিয় এবং দেবী কোন কোন স্থান অপছন্দ করেন।

মা লক্ষ্মী কোন বাড়িতে থাকেন? নারীর কোন বৈশিষ্ট্য থাকলে লক্ষী ধরা দেন?

মা লক্ষ্মী কোন বাড়িতে থাকেনা?

গুরুভক্তি :- যে সকল গৃহে গুরু, ঈশ্বর পিতা-মাতা, আত্মীয়-স্বজন এবং বাড়ির সকল সদস্যদের মতামতের মর্যাদা দেওয়া হয়। বাড়ির প্রত্যেকের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে পারেন বাড়ির গৃহকর্তা সেইসব গৃহেই দেবী স্থায়ীভাবে অধিষ্ঠান করেন। অর্থাৎ আপনি যদি আপনার বাড়িতে লক্ষ্মী পূজা করছেন,কিন্তু আপনার আত্মীয়-স্বজন, আপনার পিতা মাতা, গুরুজন, গুরুদেব, ঈশ্বর ভক্তি না থাকে তাহলে কিন্তু আপনার বাড়িতে মা লক্ষ্মী স্থায়ীভাবে বিরাজ করবে না।

মিথ্যাচারী :- যে সকল ব্যক্তি তার কর্মে সৎ থাকেন না অর্থাৎ সদাই মিথ্যা কথা বলেন। যিনি সব কিছুতেই অভাব অনুযোগ করেন, অর্থাৎ সব কিছু বিষয়ে নাই নাই করতে থাকেন সেই সব ব্যাক্তির গৃহে দেবী প্রবেশ করেন না। অর্থাৎ মিথ্যাচারী এবং স্বভাব গুণে অভাবী ব্যক্তির গৃহে দেবী অধিষ্ঠান করে না।

অসৎ :-  যেসব ব্যক্তি নিজেদের উপর আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন, যারা দুর্বল চেতা এবং যাদের আত্মবিশ্বাস থাকে না, যারা মিথ্যা মামলায় সাক্ষ্য দান করে, যারা ভুল পথে অন্যকে পরিচালিত করে সেই সকল অসৎ কর্মধারী ব্যক্তি দের বাড়িতে দেবী প্রবেশ করেন না।

ঋণ :- যারা উপকারীর উপকার স্বীকার করেন না, যারা সর্বদা ভীত-সন্ত্রস্ত, যারা মনের মধ্যে অসৎ চিন্তা করেন যারা অসৎ উপায়ে উপার্জন করার চিন্তা করে থাকেন, সে সকল বাড়িতে দেবী অধিষ্ঠান করেন না। যারা সর্বদাই ঋণের বেড়াজালে জড়িয়ে পড়েন ,যারা অর্থ সঞ্চয় এর দিকে মাথা ঘামান না, যারা কৃপণ, যারা দরিদ্রের সাহায্যে এগিয়ে আসেন না সেইসব বাড়িতে দেবীর অধিষ্ঠান করেন না।

স্ত্রৈন :- যারা স্ত্রৈন অর্থাৎ আপন বিচারবুদ্ধি ত্যাগ করে স্ত্রীর কথা মতই কাজ করে, যারা কলহ প্রিয়, যারা সর্বদাই সন্দেহের বশবর্তী হয়ে থাকেন, তাদের বাড়িতে বসবাস করেন না।

ঈশ্বরে বিশ্বাস :- যারা ঈশ্বরে বিশ্বাসী নন, যারা কীর্তন ভজন ইত্যাদি কর্মে আগ্রহ প্রকাশ করেন না, যারা অতিরিক্ত দিবানিদ্রায় রত থাকেন, যারা শয়নের পূর্বে পদ পরিষ্কার করেন না, যারা বস্ত্রহীন অবস্থায় বিছানায় শয়ন করেন সেই সকল বাড়িতে মা অধিষ্ঠান করেন না।

যে গৃহস্ত পরিজনদের মধ্যে ধন এবং শস্য অর্থাৎ খাবার আপন সাকুল্য অনুযায়ী ভাগ করে বিতরণ করতে পারে অর্থাৎ করেন সেই সকল গৃহে দেবী খুশি ভরে অধিষ্ঠান করেন।

পিতামতার সেবা :- যে গৃহে বৃদ্ধ পিতামাতাদের যত্নসহকারে সেবা করা হয়, যে সকল গৃহকর্তা এবং গৃহকর্ত্রী মৃদুভাষী এবং মিষ্টভাষী ,যারা অন্যের সমালোচনা করেন না ,যারা অন্যের ধন ও যশের প্রতি ঈর্ষান্বিত হোন না ,তাদের বাড়িতেই দেবী লক্ষী সানন্দে অবস্থান করে।

আরও পড়ুন : বৃহস্পতিবার লক্ষ্মীপূজা করা হয় কেন, মা লক্ষ্মীর কৃপা লাভের উপায়

অলসতা :- যে সকল বাড়ির সদস্যগণ  কর্মে অলসতা দেখান না ,যারা পরের উপকার করে আনন্দ উপভোগ করেন, যারা সকলের সেবা করতে উদ্যত হন, সেই সকল গৃহে দেবী লক্ষ্মী সানন্দে বসবাস করেন।

যারা আপন কর্মের দ্বারা অন্যকে কষ্ট দেন না,  দেবতার উদ্দ্যেশ্যে যারা ফুল তোলার পর ফুলের গন্ধ শোঁকে না, যারা স্নান করেন ধীরভাবে ,যারা আহার দ্রুত গ্রহণ করেন, যাদের মধ্যে বিলাসিতা প্রদর্শন করা হয় না, যারা আপন কর্মের জন্য অহংকার বোধ করেন না, তাদের বাড়িতে দেবী লক্ষ্মী চিরস্থায়ী হয়ে থাকেন।

লক্ষ্মী নারী চিনবেন কীভাবে

লক্ষ্মী দেবী সাধারণত গৃহে বসবাস করেন গৃহিণীদের বা নারীদের মধ্যে। তবে সকল গৃহিণীদের বা নারীদের মধ্যে তার ছাপ পাওয়া যায় তা কিন্তু নয়। বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্য দেখা যায় যেসব বাড়ির গৃহিনীদের বা নারীদের মধ্যে তাদের মধ্যে দেবী লক্ষ্মী বিরাজ করেন।

ব্রহ্মবৈবর্ত পুরাণ অনুযায়ী জানা যায়, যে সকল গৃহিণী বা নারী তাদের গুরুজনদের কাছ থেকে সদাই শিক্ষা লাভ করতে উদ্যত হন সেই সকল গৃহিণীদের বা নারীদের মধ্যে মা লক্ষ্মী বিরাজ করেন।অর্থাৎ গৃহিণীদের এবং নারীদের গুরুজনদের প্রতি শ্রদ্ধা, ভক্তি, ভালোবাসা এবং শিক্ষা গ্রহণ করার ইচ্ছা যেন সর্বদায় থাকে।

আরও পড়ুন : মা লক্ষ্মীর বাহন পেঁচা কেন? বাড়িতে মা লক্ষ্মীর কিরকম ছবি রাখা উচিত?

যারা অর্থাৎ যেসব গৃহিণী তাদের স্বামীকে অর্থাৎ পতিদেবকে দেবতুল্য ভক্তি করেন এবং তাদের কথা মেনে চলতে ভালবাসেন, তাদের মধ্যে দেবী লক্ষ্মী বিরাজ করেন।

যেসব গৃহিণী বা নারী সত্যবাদিনী, পরিতুষ্ট, পরশ্রীকাতরা হয় না ,যারা মৃদুভাসিনী ,যারা অন্যের ধন ও খ্যাতির প্রতি ঈর্ষা প্রদর্শন করেন না ,যারা অন্য নারী বা অন্যের সমালোচনা করেন না ,সেই সব গৃহিণীদের মধ্যে দেবী অবস্থান করেন।