‘বস্তাপচা’ গল্পে শুধু কুটকাচালী, শ্বশুরবাড়িতে নায়িকার উপর অত্যাচার দেখিয়ে চূড়ান্ত ট্রোল লীনা গাঙ্গুলী

মেয়েদের উপর অত্যাচার দেখিয়ে কি মজা পান! লীনা গাঙ্গুলীর ‘বস্তা পচা’ গল্পের দারুণ সমালোচনা নেটপাড়ায়

Leena Ganguly trolled as audience are not liking radhika character in Ekka Dokka serial

আরও একবার বাংলা সিরিয়াল (Bengali Mega Serial) লেখিকা লীনা গাঙ্গুলির (Leena Ganguly) সিরিয়াল নিয়ে সমালোচনা শুরু হল সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই যুগেও দিনের পর দিন শিক্ষিত, চাকুরীরতা মেয়েদের উপর নোংরা ষড়যন্ত্র আর অত্যাচার চালাচ্ছে শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা! সিরিয়ালের পর্দায় এমনটা দেখতে মোটেও রাজি নন দর্শকদের একাংশ। তাই এখন লীনা গাঙ্গুলীর সিরিয়াল ‘এক্কাদোক্কা’র (Ekka Dokka) যুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়াতে কলম ধরছেন দর্শকদের একটা বড় অংশ।

সম্প্রতি ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছে নায়িকা রাধিকা বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে এসেছে এবং এসে এসেই সে সকলের থেকে দুর্ব্যবহার পাচ্ছে। অথচ রাধিকা এবং তার স্বামী পোখরাজ দুজনেই ডাক্তারী পড়ুয়া। রাধিকার পরিবারের সঙ্গে অবশ্য পোখরাজদের পরিবারের বহু দিনের পুরনো শত্রুতা রয়েছে। তাই বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে আসতেই শাশুড়ি, ননদ, পোখরাজের ঠাকুমা থেকে শুরু করে কাকিমা-শাশুড়ি সকলেই রাধিকার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করতে লেগেছে।

কখনও পোখরাজের মা রাধিকাকে ধাক্কা মেরে কপাল ফাটিয়ে দিচ্ছেন, কখনও আবার বৌভাতের অনুষ্ঠানে রাধিকার রান্না করা খাবার ননদরা এসে চক্রান্ত করে নষ্ট করে দিচ্ছে! আবার এত কিছুর পরেও রাধিকা তার সেই দুই কুচুটে ননদের কাছেই বৌভাতের অনুষ্ঠানের জন্য সাজতে রাজি হয়! যার ফলাফলে রাধিকার দুই ননদ তাকে খুব খারাপভাবে সাজিয়ে দেয় এতেও তাকে সবার সামনে লজ্জায় পড়তে হয়।

এখানে রাধিকার চরিত্রটিকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে সমালোচনা শুরু হয়েছে। দর্শকদের মতে, রাধিকা একজন শিক্ষিত মেয়ে। তার ওপর সে ভবিষ্যতের ডাক্তার। সে কেন শ্বশুরবাড়ির সকলের অত্যাচার মুখ বুজে সহ্য করে নিচ্ছে? সকলে তাকে অপদস্থ করতে মরিয়া, অথচ রাধিকা সব জেনেশুনেও তার প্রতিবাদ করছে না। রাধিকার চরিত্রটিকে নিয়ে সন্দেহ দেখা দিচ্ছে দর্শকদের মনে।

Audience Are Not Happy With Sonamoni Saha Casting On Ekka Dokka

যদিও রাধিকা অবশ্য তার বাবাকে বাঁচানোর জন্য পোখরাজের বাড়িতে এসেছে প্রমাণ জোগাড় করতে। রাধিকার বাবাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসিয়ে দিয়েছে পোখরাজের পরিবার। তবুও দর্শকরা প্রশ্ন তুলছেন প্রমাণ যোগাড়ের জন্য এরকম শত্রুর ঘরে বিয়ে করারই বা কী প্রয়োজন ছিল? একাংশ লীনা গাঙ্গুলীর দিকেও আঙ্গুল তুলছেন বারবার। গল্প লেখিকা কেন সবসময় তার প্রতিটি সিরিয়ালে মেয়েদের অত্যাচারিত হতে দেখান?

শুধু টিআরপির জন্যই কি শ্বশুরবাড়িতে মেয়েদের উপর এত অত্যাচার দেখান লীনা গাঙ্গুলী? অত্যাচার দেখানো ছাড়া কি টিআরপি বাড়বে না? কতদিন আর এরকম ভাবনা থেকে এরকম নীচু মানের বাংলা সিরিয়াল তৈরি হবে? প্রশ্ন তুলছেন দর্শকরা। সেই সঙ্গে দর্শকরা দাবী করছেন সোনামণিকে কখনও এরকম অত্যাচারিত নায়িকা হিসেবে মানায় না। রাধিকা বরং স্বাবলম্বী হোক, এরকম চরিত্রেই তাকে দেখতে চান দর্শকরা।