কঙ্গনা রানাউতের অভিনেত্রী হওয়ার পেছনে রয়েছে কোয়েল মল্লিকের অনেক বড় অবদান

বলিউডের (Bollywood) অন্যতম বিতর্কিত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত (Kangana Ranaut)। তাকে কেন্দ্র করে বলিউডে বহু বিতর্ক ছড়ায়। বলিউডের কন্ট্রোভার্সি কুইন’ কঙ্গনা! তবে কঙ্গনার অভিনয় দক্ষতা নিয়ে কোনও প্রশ্ন ওঠেনা। কারণ তিনি যথার্থই একজন দক্ষ অভিনেত্রী। “তনু ওয়েডস মনু”, “কুইন” এর মতো এভারগ্রীন সিনেমার পাশাপাশি “মণিকর্ণিকা”র মতো ঐতিহাসিক কাহিনী নির্ভর ছবিতেও তার অভিনয় যথেষ্ট প্রশংসিত হয়েছে।

কঙ্গনার অনুরাগীরা জানেন, বলিউডের রোমান্স কিং ইমরান হাশমির (Emraan Hashmi) বিপরীতে “গ্যাংস্টার” (Gangster) ছবিতে অভিনয় মারফত প্রথম গ্ল্যামার দুনিয়ায় ডেবিউ করেন “বলিউড কুইন”। প্রথম ছবিতেই কিস্তিমাত করে ফেলেছিলেন কঙ্গনা। ছবিতে অসাধারণ অভিনয়ের দৌলতে তিনি পেয়ে গিয়েছিলেন ‌ ফিল্ম ফেয়ার অ্যাওয়ার্ড। যে কোনও উঠতি নায়িকার জন্যই এই সাফল্য স্বপ্নাতীত।

তবে কঙ্গনা তা করে দেখিয়েছিলেন। এর কৃতিত্ব যেমন তার অভিনয় দক্ষতার উপরে যায়, তেমনই কঙ্গনার এই সাফল্যের পেছনে সরাসরি হাত ছিল টলিউড অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিকের (Koyel Mallik)। বলিউডে কঙ্গনার সাফল্যের সঙ্গে কোয়েলের কি সম্পর্ক? মনে এই প্রশ্ন উঠছে নিশ্চয়ই। আসলে অনুরাগ বসুর (Anurag Basu) পরিচালিত ছবি “গ্যাংস্টার”-এ যে চরিত্রে অভিনয় করেছেন কঙ্গনা, সেই চরিত্রটি আদতে প্রথমে কোয়েল মল্লিককেই অফার করা হয়েছিল।

অনুরাগ বসু একসময় বাংলার একটি টক শো “কে হবে বিগেস্ট ফ্যান” এর একটি এপিসোডে নিজের “গ্যাংস্টার” ছবিটি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে কার্যত স্বীকার করে নেন যে ছবিতে কঙ্গনার চরিত্রটিতে অভিনয় করার জন্য তিনি প্রথমে কোয়েল মল্লিকের কাছে প্রস্তাব নিয়ে গিয়েছিলেন। চরিত্রটির জন্য কোয়েল মল্লিককেই একেবারে পারফেক্ট বলে মনে হয়েছিল তার। তাই কোয়েলকে এই ছবিতে কাজ করার জন্য কোনও রকম অডিশন দিতে হয়নি।

অনুরাগ বসুর সরাসরি নিজের ছবিতে অভিনয় করার প্রস্তাব নিয়ে কোয়েল মল্লিকের কাছে উপস্থিত হন। তিনি জানাচ্ছেন, কোয়েলের কাছে প্রস্তাব নিয়ে যাওয়ার পর তিনি যখন “গ্যাংস্টার” ছবিটির স্ক্রিপ্ট কোয়েলকে পড়ে শোনাচ্ছিলেন তখনই কোয়েল জানতে পারেন যে ইমরান হাশমির সঙ্গে একটি ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে হবে তাকে। স্ক্রিপ্টের এই অংশটুকু শুনেই কার্যত ছবির অফার ফিরিয়ে দেন কোয়েল মল্লিক।

আসলে অভিনেত্রী কোয়েল কখনোই ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে স্বচ্ছন্দ্যবোধ করেন না। বাংলা ছবির ক্ষেত্রেও তাকে খুব একটা ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে দেখা যায়নি। শুধুমাত্র ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে হবে বলেই “গ্যাংস্টার” ছবির মতো ছবিতে অভিনয় করার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছিলেন কোয়েল মল্লিক। কোয়েল প্রস্তাব ফিরিয়ে দেওয়ার পর পরিচালক নবাগতা কঙ্গনা রানাওয়াতকেই চরিত্রটির জন্য মনোনীত করেন। বাকিটা ইতিহাস।

অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক আসলে নিজের ফিল্মি কেরিয়ারে কখনোই নিজের নীতিগত আদর্শ থেকে থেকে বিচ্যুত হননি। প্রয়োজনে তিনি “গ্যাংস্টার” ছবির মতো ব্লকবাস্টার ছবির অফার ফিরিয়ে দিতে পারেন, কিন্তু নিজের নীতির সঙ্গে আপোষ করতে রাজী নন এই অভিনেত্রী। অনুরাগ বসুর পরে নিজে স্বীকার করে নেন যে, কোয়েলের জায়গায় অন্য কোনও অভিনেত্রী থাকলে তিনি কখনোই “গ্যাংস্টার” ছবিতে অভিনয় করার অফার ফিরিয়ে দিতেন না।