বিয়ের পিঁড়িতে কোয়েল মল্লিকের ভাই, রইলো পাত্রীর ফটো অ্যালবাম

টলিউডে ফের বেজে উঠলো বিয়ের সানাই। এবার বিয়ের আসর বসলো রঞ্জিত মল্লিকের বাড়িতে। রঞ্জিত মল্লিকের ভাইপো দেবজয় মল্লিকের (Debjoy Mallick) বিয়ে বলে কথা! এলাহি আয়োজন রাখা হয়েছে বিয়ের প্রত্যেক অনুষ্ঠানে। দেবজয় মল্লিক কোয়েলের (Koel Mallick) খুড়তুতো ভাই। তার হবু স্ত্রীর নাম, রূপশ্রী চক্রবর্তী (Rupashree Chakraborty)। সম্পর্কের শুরুটা ম্যাট্রিমনিয়াল সাইট থেকে হলেও প্রেম করেই বিয়ে করছেন দেবজয় এবং রুপশ্রী।

দেবজয় মল্লিকও অভিনয় জগতের সঙ্গে জড়িত। তিনি বাংলা টেলিভিশন জগতের সঙ্গে জড়িত। বর্তমানে জি বাংলায় সর্বজয়া ধারাবাহিকে ‘মনোসিজ’ এর ভূমিকায় অভিনয় করতে দেখা যায় তাকে। তার হবু স্ত্রী রূপশ্রী পেশায় একজন নিউট্রিশনাল কনসালটেন্ট। রূপশ্রীর বাবা একটি ম্যাট্রিমনিয়াল সাইট থেকে দেবজয়কে দেখে মেয়ের জন্য পছন্দ করে ফেলেন। যদিও তারা একে অপরকে কলেজ জীবন থেকেই চিনতেন বলে জানা যায়।

তবে ম্যাট্রিমনিয়াল সাইট থেকে বিয়ের জন্য আলাপ-পরিচয় শুরু হয়। তাদের প্রেম এবং বন্ধুত্বের জার্নিটা সেখান থেকেই শুরু হয়েছে। আগামী ৮ অক্টোবর গোলপার্কে দেবজয় এবং রুপশ্রীর বিয়ের আসর বসতে চলেছে। বাঙালি রীতি-নীতি মেনেই বিয়েটা করবেন তারা। বিয়ের দিন গোলাপি রঙের বেনারসি পরবেন কনে।সঙ্গে থাকবে মানানসই সোনার গহনা। এরপর ১০ ই অক্টোবর চারু মার্কেটে মল্লিক বাড়িতেই বৌভাতের অনুষ্ঠান করা হবে। ওইদিন বেইজ রঙের শাড়ি পরবেন রুপশ্রী।

বিয়ের দিন দেবজয়ের পরনে থাকবে ট্রাডিশনাল পোশাক। ঠাকুমার বুটিকের ধুতি পাঞ্জাবি পরবেন দেবজয়। পরিবারের পুরুষ সদস্যরা প্রত্যেকেই সাবেকি ধুতি পাঞ্জাবি পরবেন বলে ঠিক হয়েছে। মহিলারা পরবেন শাড়ি। বিয়ে এবং বৌভাতের অনুষ্ঠানে একেবারে বাঙালি খাবারের মেনু করা হয়েছে। যেহেতু মাছ বরের প্রিয় খাবার, তাই মাছের তৈরি বিভিন্ন প্রিপারেশনের আধিক্য থাকছে মেনুতে।

বিয়ের আগে একটি সাক্ষাৎকারে রূপশ্রী জানিয়েছেন, “দেবজয় আমার বেস্ট হাফ। আমরা একে অপরের সবথেকে ভালো বন্ধু। সবসময় যেকোনও পরিস্থিতিতে দেবজয়কে পাশে পেয়েছি। শুধু দেবজয় নয়, বাড়ির সকলের সঙ্গেই আমার খুব ভালো সম্পর্ক। শ্বশুর শাশুড়ি আমার নিজের বাবা-মার মতোই। আমার ননদ কোয়েলদি। ওঁর সঙ্গেও বেশ ভালো সম্পর্ক। গল্ফ ক্লাব রোডের বাড়িতে যাওয়া আসা হয়, মল্লিক বাড়ির পুজোয় এবং নানা পার্টিতে দেখা হয়।”