গ্যাস বুকিংয়ের নিয়মে বড় পরিবর্তন, ঘোষণা ইন্ডিয়ান অয়েলের

করোনা ভাইরাসের জেরে দেশে ২১ দিনের জন্য লকডাউন ডেকেছে কেন্দ্র সরকার। আর এই লকডাউনকে কেন্দ্র করে রটছে নানান গুজব। এই সকল গুজবের মধ্যে অন্যতম একটি গুজব হলো নিত্যপ্রয়োজনীয় রান্নার গ্যাস নিয়ে। দেশজুড়ে লকডাউন চলাকালীন যানবাহন না চলায় পেট্রোল ও ডিজেলের চাহিদা কমে গেছে, কিন্তু দিনের পর দিন বেড়ে চলেছে রান্নার গ্যাসের চাহিদা।

 

আর এই চাহিদা বাড়ার কারণ হিসাবে ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন দেখছে সাধারণ মানুষকে প্যানিককে। যে কারণে বিপুল পরিমাণে চাপ বাড়ছে গ্যাস সরবরাহকারী সংস্থার ওপর। তাই তারা এবার গ্যাস বুকিংয়ের ক্ষেত্রে নিয়মের পরিবর্তন ঘটালো।

ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশনের তরফ থেকে আগেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণে মজুদ রয়েছে রান্নার গ্যাস। লকডাউন ডাকা হয়েছে মাত্র তিন সপ্তাহের জন্য। কিন্তু দেশে যে পরিমাণে রান্নার গ্যাস মজুদ রয়েছে তাতে কোথাও কোনো খামতি হবে না।

কিন্তু তারপরেও কমেনি রান্নার গ্যাস বুকিংয়ের পরিমাণ। যে কারণে তারা এবার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে একজন গ্রাহক ১৫ দিনের ব্যবধান ছাড়া সিলিন্ডার বুক করতে পারবেন না। অর্থাৎ একবার বুকিং করার ১৫ দিন পর আবার নতুন বুকিং করতে পারবেন গ্রাহকরা।

দুদিন আগেই ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশনের ম্যানেজার সঞ্জীব সিং জানিয়েছিলেন, “এইভাবে গ্যাস সিলিন্ডার বুক করতে থাকলে পুরো ব্যবস্থার ওপর চাপ পড়ে যাবে। বুকিং হওয়ার সাথে সাথে গ্যাস সিলিন্ডার ভর্তি করার জন্য কারখানাকে জানাতে হয়। আর তারপর সেখান থেকেই গ্যাস সিলিন্ডার সরবরাহের কাজ শুরু হয়। এরপর ডেলিভারি বয়রা বাড়ি বাড়ি গিয়ে রান্নার গ্যাস সিলিন্ডার সরবরাহ করে থাকেন।”