রবীন্দ্রসঙ্গীতের নামে দ্বিজেন্দ্রগীতি! ভরা মঞ্চে ভুল গান গেয়ে বিপাকে ইন্দ্রাণী হালদার

স্টার জলসার (Star Jalsha) শ্রীময়ী (Sreemoyee) ধারাবাহিক শেষ হয়েছে সদ্য। অভিনেত্রী ইন্দ্রানী হালদার (Indrani Halder) এখন সিনেমাতে কাজ করার জন্য একের পর এক প্রজেক্ট পেয়ে গিয়েছেন হাতে। তাই এখনই তিনি ধারাবাহিকে ফিরতে চান না আর। আপাতত ধারাবাহিকের গণ্ডির বাইরে গিয়ে সিনেমার জন্য শুটিং করছেন তিনি। অবসরে স্টেজ শো করছেন গোটা রাজ্যে ঘুরে ঘুরে।

ইন্দ্রানী হালদার দীর্ঘদিন ধরে অভিনয় জগতের সঙ্গে যুক্ত। তিনি যোগমায়া দেবী কলেজ থেকে স্নাতক উত্তীর্ণ হয়েছেন। খুব ছোট বয়সে শিশুশিল্পী হিসেবে তেরো পার্বণ ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন। পড়াশোনা শেষ করে তিনি ফের অভিনয় জগতে পা রাখেন। একইসঙ্গে নাচও শিখেছেন মন দিয়ে। তিনি নৃত্যশিল্পী থাঙ্কুমনি কুট্টির কাছে দীর্ঘদিন ক্লাসিকাল নৃত্য শিখেছেন। তিনি গানের জগতের মানুষ নন। তবে দর্শকের আবদারে গান শোনাতে গিয়েই কার্যত বিপদে পড়লেন অভিনেত্রী।

সম্প্রতি তিনি একটি স্টেজ শো’তে অংশগ্রহণ করেছিলেন। রাজ্যের কোনও একটি গ্রামে স্টেজ শো করতে হাজির হয়েছিলেন ইন্দ্রানী। পয়লা জানুয়ারির সেই অনুষ্ঠানে দর্শকের অনুরোধে তাকে গান গেয়ে শোনাতে হয়। আদতে এমন সব অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করলে দর্শকের ইচ্ছায় তারকাদের গান গেয়ে শোনাতে হয়। কখনও আবার নেচেও দেখাতে হয়। তবে তিনি অবশ্য আগেভাগেই স্বীকার করে নিয়েছিলেন তিনি গান গাইতে পারেন না। দর্শক ইন্দ্রানীকে গান শোনাতে বললে তিনি বলেন তিনি লতা, আশা কিংবা ব্রততী নন যে বলামাত্র গান বা কবিতা শুনিয়ে দেবেন।

Indrani Halder Trolled on Social Media for Singing wrong Rabindra Sangeet

তবুও নাছোড়বান্দা দর্শকের আবদারে সাড়া দিয়ে অভিনেত্রী গাইলেন রবীন্দ্র সংগীত। তবে দর্শকের আবদারে রবীন্দ্র সংগীত শোনাতে গিয়ে দ্বিজেন্দ্রগীতি শোনালেন ইন্দ্রানী। দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের ‘ধন ধান্য পুষ্প ভরা’ গানটি গেয়ে শোনালেন ইন্দ্রানী। এই ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। ভিডিওতে রবীন্দ্রসঙ্গীত বলে ইন্দ্রানীর গলায় দ্বিজেন্দ্রগীতি শুনে হতাশ হয়েছেন নেটিজেনরাও।

তারা মন্তব্য করলেন, “হে ভগবান!! ধনধান্য পুষ্পে ভরা, আবার কবে থেকে রবীন্দ্রসঙ্গীত হোল? যতো অশিক্ষিতের দল।” কেউ লিখেছেন, “ইন্দ্রানীদি, খুব হতাশ হলাম ! দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের বিখ্যাত “ধন ধান্যে পুস্পে……”গানটি রবীন্দ্রসংগীত বলে চালিয়ে দিলেন।এতো দায়িত্বজ্ঞানহীনতা আপনার থেকে আশা করিনি।”