লোকাল ট্রেনের যাত্রীদের ক্লান্তি দূর করতে অভিনব সিদ্ধান্ত নিল পূর্ব রেল

করোনা পরবর্তী পর্যায়ে রেল পরিষেবা ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে ভারতীয় রেল (Indian Railways)। যাত্রীদের সুযোগ-সুবিধাগুলিকে বিশেষভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। দূরপাল্লার ট্রেনের পাশাপাশি এবার লোকাল ট্রেনের (Local Train) যাত্রীদের জন্যেও বিশেষ পরিষেবা প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে রেল দপ্তর (Indian Rail)। লোকাল ট্রেনের যাত্রীদের রেলের সফরজনিত একঘেয়েমি, বিরক্তি দূর করে মূলত তাদের বিনোদন প্রদানের উদ্দেশ্যেই এবার এক অভিনব ব্যবস্থা নিয়েছে রেল দপ্তর।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করোনা পর্যায়ে লকডাউন চলাকালীন দীর্ঘদিন ট্রেন চলাচল বন্ধ ছিল।সেই সময়টাকে সম্পূর্ণভাবে কাজে লাগিয়েছে ভারতীয় রেল বিভাগ। রেল পরিষেবায় আর কি কি ভাবে উন্নতি করা যায়, যাত্রী সুবিধার্থে কি কি ব্যবস্থা রাখলে রেলের সফর যাত্রীদের কাছে আরও আরামদায়ক এবং সুখকর হয়ে উঠবে সেই নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়েছে রেল। শোনা যাচ্ছে, যাত্রীদের জন্য শীঘ্রই “কন্টেন্ট অন ডিমান্ড” এর ব্যবস্থা আনা হবে রেলের তরফ থেকে।

লোকাল ট্রেনের যাত্রীদের কাছে ওয়াইফাই মারফত স্মার্টফোনে বিনোদন পৌঁছে দেওয়ার যে পরিকল্পনা হয়েছে, তার জন্য একটি সর্বভারতীয় সংস্থার সঙ্গে রেলের চুক্তি হয়েছে। স্মার্টফোনে ওটিটি (ওভার দ্য টপ) প্ল্যাটফর্মে ওই সংস্থা এখন সিনেমা, ওয়েব সিরিজ, সংবাদ চ্যানেল, বিনোদনমূলক অনুষ্ঠান দেখায়। ভবিষ্যতে লোকাল ট্রেনের কামরায় বসে স্মার্টফোনেই পছন্দসই অনুষ্ঠান দেখা যাবে।

তার আগেই অবশ্য লোকাল ট্রেনের রেকে চালু হয়ে যাচ্ছে মিউজিক সিস্টেম। এই মিউজিক সিস্টেমের অডিও মারফত রবীন্দ্র সংগীত শোনানো হবে যাত্রীদের। এতে যাত্রীদের সফরজনিত ক্লান্তি দূর হবে বলেই মনে করছে রেল বিভাগ। যাত্রীরাও রেলের এই নতুন পরিকল্পনার কথা জানতে পেরে বেশ খুশি এবং আগ্রহী হয়ে উঠেছেন।

রেল দপ্তর সূত্রে খবর, শিয়ালদহ ডিভিশনে ১০টি ৯’কামরার রেক ও ৩৮টি ১২ কামরার রেকে এবং হাওড়া ডিভিশনের ৫৯টি রেকের মধ্যে ৪২টি রেকেই আপাতত এই অডিও সিস্টেম চালু করা হতে চলেছে। প্রসঙ্গত, রেলের তরফ থেকে এই বিনোদন আপাতত যাত্রীরা সম্পূর্ণ বিনামূল্যেই পেতে চলেছেন বলে জানানো হয়েছে।

তবে শীঘ্রই স্মার্টফোন মারফত বিশেষ অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করে যাত্রীরা রেলওয়ে বিভাগের তরফ থেকে প্রদত্ত “কন্টেন্ট অন ডিমান্ড” পরিষেবা মারফত রেলওয়ে ওয়াইফাই ব্যবহার করে রেলযাত্রা চলাকালীন নিজেদের পছন্দমতো অনুষ্ঠান দেখতে পারবেন। সেই ব্যবস্থাও চালু হতে চলেছে শীঘ্রই।

আপাতত জরুরি ঘোষণার মাঝে অডিয়ো সিস্টেমে আগে থেকে রেকর্ড করা রবীন্দ্রসঙ্গীতের সুর বাজানো হচ্ছে। ট্রেন সফরের ক্লান্তি দূর করতে ওই ব্যবস্থা। লকডাউন পর্বেই রেলের ওয়ার্কশপে লোকাল ট্রেনের রেকে ওই যন্ত্র বসানো শুরু হয়েছিল। প্রাথমিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরে এখন শিয়ালদহ ডিভিশনের ৪৮টি এবং হাওড়া ডিভিশনের ৪২টি রেকে ওই ব্যবস্থা চালু হয়েছে।