করোনা আবহে রেলের নতুন নিয়ম না মানলে কোন ধারায় কী কী শাস্তি

একদিকে দেশজুড়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। অন্যদিকে উৎসবের মরসুমে কয়েকশো ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভারতীয় রেল।

ট্রেনের সংখ্যা বৃদ্ধির সাথে সাথে যেমন বাড়বে যাত্রী সংখ্যা তেমনই বৃদ্ধি পাবে করোনা সংক্রমণ। যে কারণে এই করোনা আবহে ট্রেনে চাপতে হলে মানতেই হবে রেলের নতুন গাইডলাইন।

করোনা আবহে রেলের নতুন গাইডলাইন

আরপিএফ(RPF)-এর গাইডলাইনে বলা হয়েছে ট্রেনে চাপার আগে যাত্রীদের অবশ্যই মাস্ক পড়ে থাকতে হবে। কোনও কোরোনা আক্রান্ত ব্যাক্তি ট্রেনে যাত্রা করতে পারবেন না।

কোরোনা পরীক্ষার রেজাল্ট এখনও আসেনি কিন্তু সন্দেহ জনক, এমন ব্যাক্তি ট্রেনে সফর করতে পারবেন না। যদি রেলের তরফ থেকে বলা সত্বেও তারা ট্রেনে ওঠেন তবে তাদের জন্য শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

ট্রেনে থুতু ফেলা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। থুতু ফেলা ছাড়াও ট্রেনে কোনরকম অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ তৈরি করলে তাও শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে গণ্য হবে।

কোন কোন ধারায় কী কী শাস্তি?

এই সকল বিধিনিষেধ না মানা হলে আইনের প্রয়োগ করা হবে বলে জানানো হয়েছে আরপিএফ-এর তরফ থেকে। ১৯৮৯ সালের রেলওয়ে আইনের তিনটি ধারা প্রয়োগ করার কথা বলা হয়েছে।

রেলওয়ে আইন ১৯৮৯-এর ১৪৫, ১৫৩, ১৫৪ নম্বর ধারার এই শাস্তি দেওয়ার হবে যাত্রীদের।

১৪৫ নম্বর ধারায় মদ খেয়ে মাতলামি বা অসভ্যতা করলে ১ মাসের জেল এবং ২৫০ টাকার জরিমানা করা হবে।

আরও পড়ুন : করোনা আটকাতে ট্রেনের কামরায় একাধিক বদল, দেখুন ছবি

১৫৩ নম্বর ধারায় যাত্রী সুরক্ষা বিধি ভঙ্গ করায় ৫ বছরের জেল এবং জরিমানা হতে পারে।

১৫৪ নম্বর ধারা ভঙ্গ করলে,১ বছর জেল কিংবা জরিমানা হতে পারে অথবা দুইই হতে পারে।